২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মধ্যপ্রাচ্যে নিরাপত্তা ও স্থিতিতে অবদান রাখবে ইরান চুক্তি ॥ সৌদি পররাষ্ট্রম


মধ্যপ্রাচ্যের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতায় ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি অবদান রাখবে বলে মনে করে সৌদি আরব। শুক্রবার হোয়াইট হাউসে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে সৌদি বাদশা সালমান বিন আবদুল-আজিজ আল সউদের বৈঠকের পর জ্যেষ্ঠ এক সৌদি কর্মকর্তা এ কথা জানান। চুক্তির বিষয়ে ওবামার আশ্বাসে সৌদি আরব সন্তুষ্ট হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। খবর ওয়েবসাইটের।

ইরানকে মোকাবেলায় যুক্তরাষ্ট্রের আরও সমর্থন চাইতে ওয়াশিংটন সফর করছেন বাদশা সালমান। জানুয়ারিতে সৌদি বাদশা হিসেবে অভিষেক হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রে এটাই সালমানের প্রথম সফর। জুলাইয়ে ইরানের সঙ্গে সই হওয়া পরমাণু চুক্তিসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন ইস্যুতে মতবিরোধে দেশ দুটির মধ্যে কূটনৈতিক উত্তেজনার একটি পর্বের পর যুক্তরাষ্ট্র সফরে গেলেন তিনি। তার এ সফরকে দুই দেশের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার সুযোগ হিসেবে দেখছে ওবামা প্রশাসন। ওবামা ও সালমানের মধ্যে বৈঠকের পর সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবেইর জানিয়েছেন, চুক্তিটি ইরানকে পরমাণু অস্ত্রের অধিকারী হওয়ায় বাধা দেবে।

এর মধ্যে দেশটির সামরিক ও সন্দেহজনক স্থানগুলো পরিদর্শন করার বিষয়টিও অন্তর্ভুক্ত এবং ইরান চুক্তি লঙ্ঘন করলে নিষেধাজ্ঞা ফের আরোপ করার বিধানও চুক্তিটিতে রাখা হয়েছে বলে আশ্বস্ত করেছেন ওবামা। আল জুবেইর জানিয়েছেন, এসব শর্তে চুক্তিটি সমর্থন করেছে সৌদি আরব। তিনি বলেন, ‘এখন ইরান বিষয়ে আমাদের একটিমাত্র সমস্যা মোকাবেলা করতে হবে, এ অঞ্চলে (মধ্যপ্রাচ্যে) ইরানের অশুভ তৎপরতার বিষয়ে আমরা আরও ভালভাবে মনযোগ দিতে পারব।