মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ডেমরায় কলেজছাত্রীকে মারধর

প্রকাশিত : ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জের পর এবার রাজধানীর ডেমরায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এক কলেজছাত্রীকে মারধর করেছে বখাটেরা। দীর্ঘদিন উত্ত্যক্তের পর শনিবার দুপুরে ওই ছাত্রী বাসায় ফেরার পথে প্রকাশ্যে তাকে মারধর করে বখাটে বাদশা ওরফে বাবু ও তার সহযোগীরা। পরে ওই ছাত্রীকে আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাদশা ওরফে বাবু ও ম্যাক বাবু নামে দুই বখাটেকে আটক করেছে পুলিশ।

ওই ছাত্রীর ভাই জানান, বোন ডেমরার একটি কলেজে বিএ (পাস কোর্স) দ্বিতীয় বর্ষে পড়াশোনা করে। পড়াশোনার খরচ চালানোর জন্য কয়েকটি টিউশনি করে বোন। তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে কলেজে যাওয়া-আসার পথে স্থানীয় বখাটে ইমরান, রাকিব, বাদশা ওরফে বাবু ও ম্যাক বাবুসহ কয়েকজন মিলে বোনকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। কিন্তু বোন এতে রাজি হয়নি। এমনকি বোনকে মাঝে মধ্যে অশ্লীল ভাষায় কথা বলত ওই বখাটে যুবকরা। তিনি আরও জানান, শনিবার দুপুরে বোন টিউশনি শেষে বাসায় ফেরার পথে কোনাপাড়ার নূরানী মসজিদ সংলগ্ন রাস্তায় এলে আবারও প্রেমের প্রস্তাব দেয় বখাটেরা। এতে সাড়া না পেয়ে বখাটেরা বোনের পথরোধ করে মারধর করে। এ সময় তারা ইট দিয়ে তার মাথায় আঘাত করে। এতে তার মাথা ফেটে গেছে। বিকেল ৩টায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ওই কলেজছাত্রী বাসায় ফিরে যায়। ওসিসির সূত্র জানায়, আজ রবিবার সকালে তাকে পুনরায় ওসিসিতে আনা হবে। ওই ছাত্রীর ভাই জানান, এ ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা করবেন। ওই ছাত্রীর বোন শিল্পী বেগম জানান, বোন বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। পড়াশোনার পাশাপাশি টিউশনি করে। টিউশনিতে যাওয়া-আসার পথে বখাটে বাদশা বাবু প্রায়ই তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিত। রাজি না হওয়ায় শনিবার দুপুরে বাবুর নেতৃত্বে চার থেকে পাঁচ যুবক ক্ষিপ্ত হয়ে কোনাপাড়ার নূরানী মসজিদ সংলগ্ন রাস্তায় বোনকে অকথ্য ভাষায় গালাগালিও করে। প্রতিবাদ করলে বাবু এবং তার সঙ্গে থাকা যুবকরা মিলে তাকে বেধড়ক পেটায়।

উল্লেখ্য, গত ২৬ আগস্ট হবিগঞ্জে এক স্কুলছাত্রীকে স্কুল থেকে ফেরার পথে মারধর করে রুহুল আমিন। এ ঘটনা ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও ছেড়ে দেয় তার বন্ধুরা। এরপর ঘটনায় হবিগঞ্জের বিভিন্ন মহলে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়।

প্রকাশিত : ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৬/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: