১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গাজীপুরে সাফারি পার্কে দু’পক্ষের সংঘর্ষ থামাতে বনকর্মীদের ফাঁকাগুলি


নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ৪ সেপ্টেম্বর ॥ কটূক্তি করার জেরে গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাফারি পার্কে শুক্রবার বিকেলে দর্শনার্থী দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বনকর্মীরা তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়েছে। এ ঘটনায় নারী দর্শনার্থীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ছয় জন আহত হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাফারি পার্কে শুক্রবার ঢাকার তেজগাঁও এলাকা থেকে নারীসহ কমপক্ষে ১২ জন দর্শনার্থী বেড়াতে আসে। এদিন গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা থেকেও কয়েক যুবক সেখানে বেড়াতে যায়। বিকেলে পার্কের ভেতর ঘোরাঘুরির সময় কটূক্তি করাকে কেন্দ্র করে ওই দুই পক্ষের দর্শনার্থীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এ খবর পেয়ে পার্ক সংলগ্ন শ্রীপুরের মাওনা এলাকা থেকে বেশ কয়েক যুবক ঘটনাস্থলে ছুটে এসে ঢাকা থেকে আগত প্রতিপক্ষের কয়েকজনকে পার্ক অফিসের সামনে মারধর করলে দু’পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ শুরু হয়। এক পর্যায়ে বনকর্মীরা রাইফেলের তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে দু’পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ ঘটনায় শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের মুলাইদ গ্রামের আব্দুর রশীদের ছেলে জসীম উদ্দিন (৩৫), তার চাচাতো ভাই দিলশাদ (২২), ভাগিনা তুষার (২০) ও নারী দর্শনার্থীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ৬ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে জসীমের পায়ের দুটি আঙ্গুল কেটে গেছে। খবর পেয়ে শ্রীপুর মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং পুলিশ প্রহরায় ঢাকার দর্শনার্থীদের নিরাপদ স্থানে (রাজেন্দ্রপুর) পৌঁছে দেয়া হয়। এ ঘটনায় একপক্ষ অপর পক্ষকে দায়ী করেছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাফারি পার্কের রেঞ্জ কর্মকর্তা শিবপ্রসাদ জানান, পরিস্থিতি সামাল দিতে রাইফেলের তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি করা হয়েছে। বর্তমানে পার্কের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।