মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বাংলাদেশের শুভসূচনা

প্রকাশিত : ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৫
  • প্রতিবন্ধী ক্রিকেট, ইংল্যান্ডকে ১৫ রানে হারাল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এ্যাডেলেইড আর বিকেএসপি ভেন্যু দুটি আলাদা হলেও। ফলাফল প্রায় সমানই থাকল। এ বছর মার্চে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে ১৫ রানে হারিয়ে দেয়ার পর কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। পিছিয়ে থাকল না শারীরিক প্রতিবন্ধকতা থাকা ক্রিকেটাররাও। এবার বিকেএসপিতে ইংল্যান্ড প্রতিবন্ধী ক্রিকেট দলকে ১৪ রানে হারিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী ক্রিকেট দল। অপর ম্যাচে পাকিস্তান ৮ উইকেটে হারিয়েছে আফগানিস্তানকে। উল্লেখ্য, প্রথমবারের মতো আয়োজিত হচ্ছে পাঁচজাতি প্রতিবন্ধী ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। গত ২ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন। সেদিনই এ টুর্নামেন্ট শুরুর কথা থাকলেও প্রাকৃতিক বৈরিতায় দু’দিন পিছিয়ে শুক্রবার থেকে শুরু হলো।

বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ দল। ২০ ওভারের ম্যাচে শুরু থেকে অবশ্য খুব ভাল কিছু করতে পারেনি স্বাগতিকরা। তবে অধিনায়ক আলম খান, অপূর্ব কুমার পাল এবং নুরুজ্জামানের দৃঢ়তায় লড়াকু সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ দল। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১১৭ রান তোলে। অপূর্ব সর্বোচ্চ ২২, আলম ১৯ ও নুরুজ্জামান ১৪ রান করেন। ইংলিশ বোলারদের মধ্যে ফিন দুটি এবং ড্যানিয়েল হাম, রেইন্ডো, রিহেজ ও হ্যামন্ড একটি করে উইকেট নেন। তবে জবাব দিতে নেমে একেবারেই সুবিধা করতে পারেনি ইংল্যান্ডের প্রতিবন্ধী দল। বাংলাদেশী বোলাররা মিতব্যয়ী ও আঁটসাঁট বোলিং করেন। রান করতে হিমশিম খেতে থাকে ইংল্যান্ড। ফিল্ডিংয়েও নজরকাড়া নৈপুণ্য দেখিয়েছে বাংলাদেশ দল। তীর্থ ভয়ঙ্কর বোলিং করে ৪ ওভারে ১২ রান দিয়ে ৩ উইকেট শিকার করেন। নির্ধারিত ২০ ওভার ব্যাটিং করে ৭ উইকেটে ১০৩ রান করতে সক্ষম হয় ইংল্যান্ড। জেতার জন্য শেষ ওভারে তাদের প্রয়োজন ছিল ১৬ রানের। কিন্তু তীর্থ ওই ওভারে বোলিং করতে এসে মাত্র এক রান দিয়ে দুটি উইকেট তুলে নেন। ফলে ১৪ রানের পরাজয় বরণ করতে হয় ইংলিশদের। আজ বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে নামবে বাংলাদেশ।

বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে জয় তুলে নিয়েছে পাকিস্তান প্রতিবন্ধী দলও। টস জিতে আফগানিস্তানকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় পাকরা। তেমন সুবিধা করতে না পারলেও ১১৮ রানের লড়াকু পুঁজি নিয়ে অলআউট হয়ে যায় আফগানিস্তান। মোহাম্মদ উল্লাহ সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন। পাকিস্তানের উমাইজ রহমান ১২ রানে তিন উইকেট নেন। জবাব দিতে নেমে ৭৬ রানের উদ্বোধনী জুটিই দলকে বড় জয়ের ভিত গড়ে দেয় পাকদের। মতলুব কুরেশি টুর্নামেন্টের প্রথম অর্ধশতক হাঁকান। তিনি ৫৫ রানে অপরাজিত থাকেন। ৪ ওভার হাতে রেখেই দুই উইকেট হারিয়ে ১২১ রান তুলে জয় পায় পাকিস্তান। পাক অধিনায়ক হাসনাইন আলমও ৩৫ রানের একটি কার্যকর ইনিংস খেলেন।

প্রকাশিত : ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৫/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: