২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ইংলিশদের ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই আজ


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চ্যালেঞ্জটা আজ ইংলিশদেরই বেশি। কারণ টেস্ট আর ওয়ানডে যে এক নয়, ইয়ন মরগানের দল প্রথম ওয়ানডেতেই সেটি হারে হারে টের পেয়েছে। ৫৯ রানের বড় হারে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ১-০তে পিছিয়ে পড়েছে স্বাগতিকরা। বাংলাদেশের কাছে হেরে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল ইংল্যান্ড। এ্যালিস্টার কুকের নেতৃত্বে এ্যাশেজ-সাফল্যে (টেস্টে) স্বপ্ন বুনছিলেন মরগানরা। কিন্তু ওয়ানডের চ্যাম্পিয়নদের কাছে শুরুতেই ধাক্কা খায় তারা। অন্যদিকে এ্যাশেজের দুঃখ ভুলতে মরিয়া অস্ট্রেলিয়া। তরুণ অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথও বলেছেন, স্বল্পদৈর্ঘে তারা ‘নাম্বার ওয়ান’ এবং প্রথম ম্যাচের সেরাদের মতোই খেলেছেন। যে ধারা অব্যাহত রেখে অসিরা আজ সিরিজের ব্যবধান বাড়িয়ে নিতে প্রস্তুত। ক্রিকেটের মক্কা লর্ডসে দিবারাত্রির ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে তিনটায়।

সাউদাম্পটনে অস্ট্রেলিয়ানদের শুরুটা হয়েছে ‘নাম্বার ওয়ানের’ই মতো। টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেন অধিনায়ক স্মিথ। ওপেনিংয়ে ১৪.৩ ওভারে ৭৬ রান যোগ করে শক্ত ভিত তৈরি করে দেন জো বার্নস (৫৩ বলে ৪৪) ও ডেভিড ওয়ার্নার (৬৭ বলে ৫৯)। স্মিথ খেলেন ৫৪ বলে ৪৪ রানের ইনিংস। অধিনায়ক যখন ফেরেন ৩১ ওভারে অতিথিদের সংগ্রহ মোটে ১৬৪। বড় সংগ্রহের পথে এরপরই আসল কাজটা করেন ম্যাথু ওয়েড (৫০ বলে ৭১*) ও মিচেল মার্শ (৩৪ বলে ৪০*)। সপ্তম উইকেট জুটিতে ১৩ ওভারে অবিচ্ছিন্ন ১১২ রান যোগ করেন দুজনে। ৬ উইকেটে ৩০৫ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর পায় অস্ট্রেলিয়া। ৭১* Ñ সাত নম্বরে নেমে ওয়ানডেতে এটিই অস্ট্রেলিয়ার যৌথভাবে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। ওয়েডের আগে যেটি ছিল ব্র্যাড হগের দখলে। স্বাগতিকদের হয়ে স্পিনার আদিল রশিদ ৪ ও পেসার মার্ক উড নেন ১টি করে উইকেট।

জবাবে ইংল্যান্ডের শুরুটাও ছিল দুর্দান্ত। ১১.২ ওভারে ৭০ রান এনে দেন দুই ওপেনার জেসন রয় (৬৪ বলে ৬৭) ও এ্যালেক্স হেলেস (২২ বলে ২২)। কিন্তু আশা জাগিয়েও টপঅর্ডারে তেমন বড় কোন স্কোর আসেনি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৯ রান করে আউট হন জেমস টেইলর। একমাত্র টি২০ মাতানো অধিনায়ক মরগান ও তারাক অলরাউন্ডার মঈন আলি এদিন সুবিধা করতে পারেননি। ব্যক্তিগত ৩৮ ও ১৭ রানে সাজঘরে ফেরেন তারা। ৪ ওভার ৩ বল আগেই অলআউট হয় স্বাগতিকরা। অসিদের হয়ে চমৎকার বোলিংয়ের পথে ২টি করে উইকেট নেন মিচেল স্টার্ক, কাল্টার-নাইল, প্যাট কুমিন্স ও শেন ওয়াটসন। সন্তুষ্ট অধিনায়ক স্মিথ বলেন, ‘ম্যাচে দেখিয়েছি আমরা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন এবং নাম্বার ওয়ান-টিম। ওয়েড-মার্শ অসাধারণ ব্যাটিং করেছে। তিন শতাধিক রানের স্কোর উপহার দিয়েছে। ফলে বোলারদের জন্য কাজটা সহজ হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত রেখে এগিয়ে যেতে চাই।’ প্রতিপক্ষ অধিনায়কও ওয়েড-মার্শের কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করেন। মরগান বলেন, ‘বেশিরভাগ সময় আমরা ভাল বোলিং করেছি। কিন্তু শেষ ১০-১৫ ওভারে ওয়েড-মার্শই সমীকরণ বদলে দিয়েছে। বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া ওয়ানডেতে সত্যিই ভয়ঙ্কর দল। তবে অপরাজেয় নয়। টি২০তেই আমরা সেটি দেখেছি। পাঁচ ম্যাচের এই সিরিজে অনেক কিছুই হতে পারে। নিজেদের সেরাটা দিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে চাই।’

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: