১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

গর্ভবতীসহ আহত ১৫ বরিশালের সংখ্যালঘু পল্লীতে বিএনপি ক্যাডারদের হামলা


স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করায় শুক্রবার দুপুরে বিএনপি ক্যাডার বখাটে ও তার সহযোগীরা সংখ্যালঘু পাড়ায় হামলা চালিয়ে এক গর্ভবতী নারীসহ কমপক্ষে ১৫ জনকে আহত করেছে। গুরুতর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার বারপাইকা গ্রামে।

জানা গেছে, স্থানীয় সাহেবেরহাট বাজারের ব্যবসায়ী একই গ্রামের মন্টু হালদারের কন্যা ও বারপাইকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে দীর্ঘদিন থেকে স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করত পশ্চিম বারপাইকা গ্রামের আলমগীর শাহ্র বখাটে পুত্র ও বিএনপি ক্যাডার নিশাত শাহ (২২)। তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার ওই ছাত্রী স্কুলে যাওয়ার পথে একই গ্রামের বিএনপি ক্যাডার রহিম শাহ ও মশিউর মোল্লার সহযোগিতায় ফের তাকে উত্ত্যক্ত করে নিশাত। এ সময় বারপাইকা স্কুল সংলগ্ন বাড়ির গোবিন্দ সরকার বখাটেদের প্রতিবাদ করেন। এ ঘটনার জের ধরে শুক্রবার দুপুরে উক্ত তিন বখাটের নেতৃত্বে ১৫/১৬ জনের একটি দল আকস্মিকভাবে গোবিন্দর বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় গোবিন্দকে বাঁচাতে প্রতিবেশী তপন বল্লভ, তার গর্ভবতী স্ত্রী কনিকা বল্লভ, জয়ন্ত বল্লভ, পলাশ বাড়ৈ, নান্টু কীর্তুনীয়া, কমলেশ বাড়ৈ, পলাশ ম-ল, ইভেন বাড়ৈ, লিটন পা-ে, বিপুল বাড়ৈ ও লিটন বাড়ৈসহ কমপক্ষে ১৫ জন এগিয়ে এলে বখাটে সন্ত্রাসীরা তাদেরকে পিটিয়ে জখম করে। পরে আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতরা অভিযোগ করেন, বখাটেদের হামলার সময় বিষয়টি থানার ওসিকে মোবাইল ফোনে অবহিত করা সত্ত্বেও কোন পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়নি।

রতœপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা বলেন, খবর পেয়ে তিনি সরেজমিন পরিদর্শন করে ঘটনার সত্যতা পেয়েছেন। ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, থানা থেকে ঘটনাস্থলে পৌঁছতে যোগাযোগ ব্যবস্থা খারাপ হওয়ায় পুলিশ পৌঁছতে বিলম্ব হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: