মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১২ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

আইআরআই রিপোর্ট দেখে খালেদা জিয়ার হা-হুতাশ বেড়ে গেছে ॥ আওয়ামী লীগ

প্রকাশিত : ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৫

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ মার্কিন গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইনস্টিটিউটের (আইআরআই) জনমত জরিপ প্রতিবেদনের কথা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ নেতারা বলেছেন, সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ দমন করে শেখ হাসিনা সরকারের আমলে দেশের ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে বলেই তাঁর এবং বর্তমান সরকারের জনসমর্থন বেড়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই গবেষণা রিপোর্টের পর বিএনপির নির্বাচন নিয়ে আর কোন কথা থাকার কথা নয়। আর এ রিপোর্ট দেখে বেগম খালেদা জিয়ার হা-হুতাশ বেড়ে গিয়েছে। কেননা তিনি বুঝতে সক্ষম হয়েছেন যে, যেভাবে শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, তাতে আগামীতে বিএনপির ক্ষমতায় যাওয়ার কোন সুযোগ নেই।

শুক্রবার রাজধানীতে পৃথক পৃথক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ক্ষমতাসীন দলটির নেতারা এমন মন্তব্য করেন। আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার জঙ্গী ও সন্ত্রাস দমন করেছে, বিদ্যুত সমস্যার সমাধান করেছে, বিনাযুদ্ধে সমুদ্র বিজয় করেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৪২ বছর পর ভারতের সঙ্গে ছিটমহল সমস্যার সমাধান করেছেন। শেখ হাসিনার আমলে দেশের ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে এবং দেশ দ্রুত গতিতে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলেই তাঁর (শেখ হাসিনা) প্রতি জনসমর্থন বেড়েছে।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর কাকরাইলের ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

দেশকে এগিয়ে নিতে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার জাতীয় ঐক্যের রাজনীতির আহ্বান প্রসঙ্গে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, যাদের হাতে রক্তের দাগ তাদের সঙ্গে কোনদিন ঐক্য হবে না। খুনীদের সঙ্গে আবার কিসের ঐক্য? খুনীদের সঙ্গে কোনদিন ঐক্য হতে পারে না। যাদের হাতে বঙ্গবন্ধু ও আমার পিতা হত্যার রক্ত তাদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের কোনদিন ঐক্য বা সমঝোতা হতে পারে না।

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশে করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আপনি ঐক্যের কথা বলেছেন, আমরা কার সঙ্গে ঐক্য করব? যারা জাতির পিতার হত্যাকারীদের পুরস্কৃত করেছে, খুনীদের বিচার বন্ধ করতে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করেছে, খুনীদের বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়েছেÑ তাদের সঙ্গে সংলাপ বা সমঝোতা হতে পারে না। আমাদের সঙ্গে সমঝোতা হবে কৃষক, শিক্ষক, শ্রমিক ও দেশের জনগণের। কারণ আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের সরকার। জনগণের ভোট নিয়ে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসেছে।

বিএনপিকে জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের এই সভাপতিম-লীর সদস্য বলেন, সংলাপ ও সমঝোতার কথা বলার আগে আপনারা জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করুন। প্রকাশ্যে বলুন আর কোনদিন ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে মিথ্যা জন্মদিন পালন করবেন না, কেক কাটবেন না, তাহলে সংলাপের বিষয়ে ভেবে দেখা যেতে পারে।

সংগঠনের সভাপতি আইয়াল তালুকদারের সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরা, স্বাধীনতা একাডেমি ফাউন্ডেশনের সদস্য নুরুল ইসলাম ঠা-ু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

নির্বাচন নিয়ে বিএনপির আর কথা নয়Ñ সুরঞ্জিত ॥ বিএনপির মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবি নাকচ করে দিয়ে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, নির্বাচন নিয়ে বিরোধ মিটে গেছে। আমেরিকার এক গবেষণা প্রতিষ্ঠানের জরিপ বলেছে, সরকারের জনপ্রিয়তা বাড়ছে; প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা আরও বেড়েছে। তাই বিএনপির নির্বাচন প্রশ্নে আর কথা থাকার কথা নয়। বিএনপির কাছে নির্বাচন নিয়ে এখন কোন কথা শুনতে চাই না। গণতন্ত্রের স্বার্থে নির্বাচন ঠিক সময়েই অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার দুপুরে কাকরাইলে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। লতিফ সিদ্দিকীর পদত্যাগ যথাযথ হয়নি উল্লেখ করে প্রবীণ এই পার্লামেন্টারিয়ান বলেন, এই প্রক্রিয়া গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিকভাবে ছিল না। স্পীকার লতিফ সিদ্দিকীর বিষয়টি সুরাহা করার জন্য নির্বাচন কমিশনে পাঠিয়ে দিলেন। নির্বাচন কমিশন তার বিচারিক ক্ষমতা দিয়ে আদালত বানিয়ে তার শুনানি করলেন। হঠাৎ করে ইসি আবার স্পীকারের কাছে পাঠিয়ে দিলেন।

তিনি বলেন, আবদুল লতিফ সিদ্দিকী যেহেতু পদত্যাগ করতে চান, তাই স্পীকারের কাছেই করতে হবে, এটা বলার এখতিয়ার ইসির নেই। ইসির এমন সাংবিধানিক আদেশ দেয়ার আগে এ্যাটর্নি জেনারেলসহ সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে পরামর্শ করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত ছিল।

তিনি বলেন, কেউ সংসদ থেকে পদত্যাগ করতে চাইলে স্পীকারের কাছে পদত্যাগপত্র দিলে আর স্পীকার তা ছুঁলেই তার পদত্যাগ কার্যকর হবে। এ জন্য আবার সংসদে পাঠিয়ে দেয়ার অধিকার ইসির নেই।

সিলেট শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান সঙ্কট প্রসঙ্গে সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসি স্বপ্রণোদিত হয়ে ছাত্রদের দিয়ে শিক্ষকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন। এতে হয় ভিসি স্বপ্রণোদিত হয়ে সরে যাবেন অথবা শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে তাঁকে সরিয়ে দিতে ভূমিকা নিতে হবে।

আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা এবং ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী মোহাম্মদ সেলিম এমপির সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন কৃষক লীগ নেতা আবদুল হাই কানু, সাম্যবাদী দলের নেতা হারুন চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু একাডেমির মহাসচিব হুমায়ুন কবির মিজী প্রমুখ।

আইন থেকে বাঁচতেই খালেদা জিয়ার নরম সুরÑ খাদ্যমন্ত্রী ॥ খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, আইনের হাত থেকে রক্ষা পেতেই বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া এখন নরম সুরে মতভেদ ভুলে ঐক্যের রাজনীতির জন্য কাকুতি-মিনতি করছেন। সম্প্রতি মার্কিন গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইনস্টিটিউটের (আইআরআই) গবেষণায় বাংলাদেশ সরকারের প্রতি জনগণের সমর্থনের যে চিত্র উঠে এসেছে, তা আইনের শাসনের প্রতি শেখ হাসিনার অনড় অবস্থানের কারণেই সম্ভব হয়েছে। দেশে এত তা-বের পরও সব প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলা করে শেখ হাসিনা দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।

শুক্রবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, বেগম জিয়া এখন হা-হুতাশ করছেন। তিনি বুঝতে সক্ষম হয়েছেন যে, যেভাবে বর্তমান সরকার দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন তাতে জনগণের ম্যান্ডেট নিয়ে আরও দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগ যে ক্ষমতায় থাকবে, এতে কোন সন্দেহ নেই। খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, যারা সুস্থ রাজনীতি থেকে দূরে সরে গিয়ে সন্ত্রাসের রাজনীতিতে লিপ্ত হয়েছিল, তাদের কোন অবস্থাতেই রেহাই দেয়া হবে না। যারা পেট্রোলবোমা মারার নির্দেশ দিয়ে শিশু ও মানুষ হত্যা করেছে সেই হুকুমদাতা ও অর্থদাতাদের বিচার হবে।

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের নেতা নাট্যব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. কামরুজ্জামান, বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মোহাম্মদ ইউনুস এমপি, স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের মহাসচিব অধ্যক্ষ শাজাহান আলম সাজু, অগ্রণী ব্যাংকের পরিচালক এ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।

প্রকাশিত : ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৫/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ:
রোহিঙ্গাদের জন্য সেফ জোনের প্রস্তাব সারা বিশ্ব গ্রহণ করেছে ॥ বিএনপির আপত্তি কেন? || গন্তব্যে পৌঁছেছে পদ্মা সেতুর সুপার স্ট্রাকচারবাহী ভাসমান ক্রেন || শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপনে বড় পরিবর্তন আসছে, আট সদস্যের কমিটি || আগামী বাজেট হবে সাড়ে চার লাখ কোটি টাকার ॥ অর্থমন্ত্রী || বিদ্যুতের দাম ইউনিট প্রতি ৭২ পয়সা বৃদ্ধির সুপারিশ || মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুমে পাঠদান চলছে জোড়াতালি দিয়ে || মংডুতে ৩ গণকবরের সন্ধান ॥ দুদিনে এসেছে আরও ২০ হাজার || বৃষ্টিতে ভিজছে শিশুরা, খাবার জোগাড়ে অনেকে নেমেছে ভিক্ষায় || চট্টগ্রাম বন্দরের বে টার্মিনাল নির্মাণে গতি সঞ্চার || আন্তর্জাতিক মানবপাচার চক্রের খপ্পরে ৫ শ’ তরুণ মেক্সিকো সীমান্তে ||