মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

১০০ মিলিয়ন ইউরো ছাড়িয়ে পোগবা!

প্রকাশিত : ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫
  • বিশ্বসেরা হওয়ার স্বপ্ন ফরাসী মিডফিল্ডারের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বর্তমান বিশ্ব ফুটবলে প্রতিভাবান ফুটবলারদের মধ্যে অন্যতম শীর্ষ নাম পল পোগবা। ফ্রান্সের এই তরুণ মিডফিল্ডার ব্রাজিল বিশ্বকাপেও নিজের জাত চেনান। জয় করেন টুর্নামেন্টের সেরা তরুণ খেলোয়াড়ের পুরস্কার। ২২ বছর বয়সী এই ফুটবলার বর্তমানে খেলে থাকেন ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে।

ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা তার পারফর্মেন্সে রীতিমতো মুগ্ধ। যে কারণে পোগবাকে কেউ পেতে চাইলেও সেটা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছে ক্লাবটি। অবিশ্বাস্য মূল্য হাঁকালেও তাকে ছাড়বে না সিরি এ’র চ্যাম্পিয়নরা। উঠতি পোগবার স্বপ্ন একদিন বিশ্বসেরা হওয়া। জুভেন্টাসের প্রধান নির্বাহী বেপ্পে মারোট্টা জানিয়েছেন, পোগবাকে কেউ কিনতে চাইলে ১০০ মিলিয়ন ইউরোও যথেষ্ট নয়। গত মৌসুম শেষে ফ্রান্স জাতীয় দলের এ তারকাকে দলে ভেড়াতে ইউরোপিয়ান শীর্ষ ক্লাবগুলো উঠেপড়ে লেগেছিল। বিশেষ করে পোগবার দিকে ট্রেবল জয়ী বার্সিলোনার দৃষ্টি ছিল সবচেয়ে বেশি। তবে ৮০ মিলিয়ন ইউরো প্রস্তাব করেও কাতালানরা তাকে দলে ভেড়াতে পারেনি। আগামী এক বছরে পোগবার মূল আরও বেড়ে যাবে বলে মনে করেন জুভেন্টাস পরিচালক। মোরাট্টা বলেন, বাজার দর এখন প্রতিদিনই উপরের দিকে যাচ্ছে। এটির সবচেয়ে বড় উদাহারণ ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ। আর পোগবা যদি তার পারফর্মেন্স ধরে রাখতে পারে তাহলে আগামী বছরে তার জন্য ১০০ মিলিয়ন ইউরোও যথেষ্ট হবে না। তিনি আরও বলেন, জয়ী দল সব সময় চায় সেরা ফুটবলারকে দলে ভেড়াতে। তবে ক্লাবটি যখন ১০০ মিলিয়ন ইউরোর সামনে পড়ে তখন হতবাক হয়ে যায়। তবে জুভেন্টাস এই যাত্রায় জিততে চায়। তাইতো আমরা তাকে ছাড়িনি। সময়ের অন্যতম সেরা এই প্রতিভাবান ফুটবলার একদিন বিশ্বসেরা ফুটবলার হবেন বলে বিশ্বাস করেন। মেসি-রোনাল্ডোদের কাতারে আসতে পারবেন বলেও দৃঢ় আশাবাদী তিনি। ফরাসী এ মিডফিল্ডার ২০১২ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে নাম লিখিয়েছেন। বর্তমান ক্লাবের হয়ে দুর্দান্ত নৈপূণ্য প্রদর্শন করে চলেছেন। ব্রাজিল বিশ্বকাপে সেরা তরুণ খেলোয়াড় হওয়া তার ক্যারিয়ারে এখন পর্যন্ত সেরা সাফল্য। এ প্রসঙ্গে পোগবা বলেন, আমি খুবই আনন্দিত এ পুরস্কারটি পেয়ে। বিশ্বকাপের এ খেতাবটি জিতে আমি গর্বিত। ভবিষ্যতে আমি এ ধরনের আরও ট্রফি জিততে চাই। সাফল্যের লক্ষ্যে কঠোর পরিশ্রম করে চলেছেন পোগবা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি আরও পরিশ্রম করে যাচ্ছি। আমার মূল লক্ষ্য হচ্ছে, ভবিষ্যতে বিশ্বসেরা ফুটবলার হওয়া। আর সে লক্ষ্যেই আমি কাজ করে যাচ্ছি। চৌকস নৈপুণ্য দিয়ে ইতোমধ্যে সবার নজর কাড়তে সক্ষম হয়েছেন পোগবা। এ কারণে গত মৌসুমে তাকে দলে ভেড়ানোর আগ্রহ প্রকাশ করেছিল রিয়াল মাদ্রিদ, প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনের মতো বড় বড় ক্লাবগুলোও। কিন্তু ফরাসী এ উঠতি তারকা ২০১৬ পর্যন্ত জুভেন্টাসের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছেন। পোগবার মাঝে প্যাট্টিক ভিয়েরার ছায়া খুঁজে পেয়েছে ফরাসীরা। দেশটির সাবেক মিডফিল্ডারের সঙ্গে খেলার ধরন, কৌশল আর গতি সবকিছুর মিল পাওয়া গেছে পোগবার মাঝে। কিন্তু অবাক করা বিষয়, ব্রাজিল বিশ্বকাপে দ্বিতীয় ম্যাচেই শুরুর একাদশ থেকে ২১ বছর বয়সী এই ফুটবলারকে সাইডবেঞ্চে রেখেছিলেন ফরাসী কোচ দিদিয়ের দেশম। তবে পরের ম্যাচ থেকে ফিরেই নিজের জাত চিনিয়েছেন পোগবা। ফ্রান্সের মাঝমাঠে গতি সঞ্চারক হিসেবে কাজ করেছেন। জাত চিনিয়েছেন দ্বিতীয় পর্বে গোলশূন্য থাকা ম্যাচে নাইজিরিয়ার বিপক্ষে ৭৯ মিনিটে দুর্দান্ত এক গোল করে। শেষ আটেও তরুণ এই তারকার উপর আস্থা ছিল ফরাসীদের।

প্রকাশিত : ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৪/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: