মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

তৃতীয় পর্বে নাদাল-জোকোভিচ

প্রকাশিত : ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইউএস ওপেনের পুরুষ এককে জয়ের দেখা পেয়েছেন নোভাক জোকোভিচ এবং রাফায়েল নাদাল। টুর্নামেন্টের শীর্ষ বাছাই জোকোভিচ এদিন ৬-৪, ৬-১ এবং ৬-২ গেমে অস্ট্রেলিয়ার আন্দ্রেস হায়দার-মৌরারকে পরাজিত করে তৃতীয় পর্বে জায়গা করে নেন। এই নিয়ে শেষ ১৭ ম্যাচের ১৪টিতেই জয়ী হলেন বর্তমান অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও উইম্বল্ডনের শিরোপাজয়জয়ী নোভাক জোকোভিচ। অষ্টম বাছাই রাফায়েল নাদাল ৭-৬ (৭/৫), ৬-৩ এবং ৭-৫ গেমে আর্জেন্টিনার দিয়েগো শোয়ার্জম্যানকে হারিয়ে দ্বিতীয় পর্বের বাধা অতিক্রম করেন। প্রথম সেটে স্প্যানিশ টেনিস তারকা নাদাল ৫-৪ গেমে পিছিয়ে থাকার পরে টাইব্রেকে শেষ পর্যন্ত সেটটি জিতে নেন। ক্যারিয়ারে ১৪ গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন নাদাল। কিন্তু স্প্যানিয়ার্ডের বর্তমান সময়টা মোটেই ভাল কাটছে না। গত বছর ফ্রেঞ্চ ওপেনই ছিল তার শেষ কোন মেজর শিরোপা জয়। এর ফলে চলতি বছর এটাই তার গ্র্যান্ডসøাম জয়ের শেষ সুযোগ। নাদালও হাঁটছেন ঠিক সেই পথে। পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারবেন কি না সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা। তবে তৃতীয় পর্বের টিকেট পেয়েই রোমাঞ্চিত নাদাল। ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে ২৯ বছর বয়সী নাদাল বলেন, ‘তৃতীয় পর্বে উঠতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত। তবে ম্যাচটা কঠিন ছিল সে ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই। আমার সৌভাগ্য যে শেষ পর্যন্ত জিততে পেরেছি। প্রথম সেট জেতাটা আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ২০১০ ও ২০১৩ সালে ইউএস ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছিলেন নাদাল। ২০১২ ও ২০১৪ সালে ইনজুরির কারণে বছরের শেষ মেজর এই টুর্নামেন্টে খেলতেই পারেননি তিনি। ২০১১ সালে অবশ্য রানারআপ হয়েছিলেন তিনি। পরবর্তী পর্বে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান তারকা নাদালের সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ হতে পারেন কানাডার দশম বাছাই মিলোস রাওনিক। দ্বিতীয় পর্বে রাওনিক ১৮টি এসের মাধ্যমে স্পেনের ফার্নান্দো ভারডাসকোকে ৬-২, ৬-৪, ৬-৭ (৫/৭), ৭-৬ (৭/১) গেমে পরাজিত করেছেন। ইউএস ওপেনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মারিন চিলিচ। ক্রোয়েশিয়ার নবম বাছাই চিলিচ এবং সপ্তম বাছাই ডেভিড ফেরারও চতুর্থ রাউন্ডের প্রায় কাছাকাছি পৌঁছে গেছেন। টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় পর্বে নবম বাছাই চিলিচ ৬-২, ৬-৩ এবং ৭-৫ গেমে পরাজিত করেছেন রাশিয়ার বাছাই খেলোয়াড় এভগেনি দোনোস্কয়কে। এদিন কঠিন লড়াইয়ে মারিন চিলিচ ১৯টি এস মেরেছেন। কনুইয়ের ইনজুরির কারণে প্রায় আড়াই মাস কোর্টের বাইরে থাকা ২০১৩ সালের ফ্রেঞ্চ ওপেনের রানারআপ ডেভিড ফেরার ৭-৫, ৭-৫, ৭-৬ (৭/৪) গেমে পরাজিত করেছেন সার্বিয়ার ১০২ নাম্বার খেলোয়াড় ফিলিপ কারিনোভিচকে। এর ফলে তৃতীয় পর্বে জায়গা পেয়ে উচ্ছ্বসিত ফেরার।

এবারের আসরে ফেবারিটের তকমাটা গায়ে মাখানো জোকোভিচ, ফেদেরার, মারে এবং নাদালের গায়ে। এখন পর্যন্ত দারুণভাবেই খেলে যাচ্ছেন তারা। রজার ফেদেরার আর রাফায়েল নাদালের বাজে সময় যাচ্ছে টেনিস কোর্টে। তাই মৌসুমের শেষ এই মেজর শিরোপা জিতে স্বরূপে ফিরতে মরিয়া দুই দলই। অন্যদিকে নিজের শ্রেষ্ঠত্ব বজায় রাখতে ইউএস ওপেনের শিরোপা জিততে উন্মুখ হয়ে আছেন শীর্ষ বাছাই জোকোভিচ। নোভাক-জোকোভিচ ছাড়াও দ্বিতীয় পর্বে জয়ের দেখা পেয়েছেন ফ্রান্সের জো উইলফ্রেইড সোঙ্গা, বেলারুশের ডেভিড গোফিন। ১৯তম বাছাই সোঙ্গা এদিন ৬-৩, ৬-৪ এবং ৬-৩ গেমে পরাজিত করেন স্পেনের মার্শেল গ্র্যানোলার্সকে। আর বেলারুশ তারকা ডেভিড গোফিন কঠিন লড়াইয়ে ৫-৭, ৬-৪, ৩-৬, ৬-২ এবং ৬-১ গেমে হারান রিকার্ডাস বেরানকিসকে। তবে দ্বিতীয় পর্ব থেকেই হেরে ছিটকে পড়েছেন বুলগেরিয়ার টেনিস তারকা গ্রিগর দিমিত্রোভ। কাজাখস্তানের অখ্যাত খেলোয়াড় মিখাইল কুকুসকিনের কাছে ৬-৩, ৭-৬, ২-৬, ৪-৬ এবং ৬-৪ গেমে হার মানেন সাবেক মারিয়া শারাপোভার এই প্রেমিকা।

প্রকাশিত : ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৪/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: