২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানির প্রতিশোধের লড়াই


বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানির প্রতিশোধের লড়াই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রতিশোধের লক্ষ্যে ইউরো বাছাই ফুটবলে মাঠে নামছে বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি। ‘ডি’ গ্রুপের ফিরতে পর্বের ম্যাচে নিজেদের মাঠে গ্রুপের শীর্ষে থাকা পোল্যান্ডের বিপক্ষে আজ রাতে ময়দানী লড়াইয়ে অবতীর্ণ হচ্ছে ইউরোপের পাওয়ার হাউসরা। এই গ্রুপের অপর দুই ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে জর্জিয়া-স্কটল্যান্ড ও জিব্রাল্টার-রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ড। ২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর প্রথম লেগের ম্যাচে পোল্যান্ডের মাঠ থেকে ২-০ গোলে হেরে এসেছিল জার্মানরা। বিশ্বকাপ জয়ের পর ওই হারে বিস্মিত হয়েছিলেন অনেকে। মিল্ক ও মিলার গোলে জার্মান বধ করেছিল পোলিশরা। এবার ওই হারের প্রতিশোধ নেয়ার মোক্ষম সুযোগ পাচ্ছে জোয়াকিম লোর দল। নিজেদের মাঠে পোল্যান্ডকে হারানোর লক্ষ্যের কথাই জানিয়েছেন তিনি। তবে কাজটা যে সহজ হবে না তা ভালই জানা জার্মানদের। কেননা তাদের কাছে হারের বিষয়টি তো আছেই, এই গ্রুপে দুর্দান্ত ছন্দে আছে পোলিশরা। এখন পর্যন্ত ৬ ম্যাচ শেষে সর্বোচ্চ ১৪ পয়েন্ট ভা-ারে পোল্যান্ডের। ১৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে জার্মানি। ১১ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে স্কটল্যান্ড। পোলিশদের বিপক্ষে ময়দানী যুদ্ধে নামার আগে আরও একটি দুঃসংবাদ পেয়েছে জার্মান শিবির। এবার ইনজুরিতে দল থেকে ছিটকে পড়েছেন মার্কো রিউস। পায়ের আঙুলের ইনজুরির কারণে খেলতে পারবেন না তিনি। গত বছরের সেপ্টেম্বরের পর থেকে রিউস জাতীয় দলের হয়ে আর খেলেননি। সেবার স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা ২-১ ব্যবধানে জয় পায়। আর ২০১৪-১৫ মৌসুম থেকে দুর্ভাগ্য পিছু ছাড়েনি বুরুশিয়া ডর্টমুন্ডের এই তারকার। ব্রাজিলের মাটিতে ২০১৪ বিশ্বকাপেও জোয়কিম লো’র অধীনে ইনজুরির কারণে থাকতে পারেননি রিউস। গত বছর এ্যাঙ্কেল ইনজুরিতে পড়েন তিনি। তবে ইনজুরি থেকে ফিরে ডর্টমুন্ডের হয়ে মৌসুমটা দারুণ শুরু করেন। তিন খেলায় দুই গোল করে ক্লাবকে বুন্দেসলিগার ওপরের দিকে নিয়ে যান। তবে এসব নিয়ে ভাবছে না জার্মান শিবির। বাস্তিয়ান শোয়াইনস্টাইগারের দলের লক্ষ্য জয় দিয়ে গ্রুপের শীর্ষে ফেরা। নিজেদের সর্বশেষ ম্যাচে জিব্রাল্টারকে নিয়ে ছেলেখেলা করে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি। প্রতিপক্ষের মাঠে আন্দ্রে শুরলের নৈপুণ্যে ২৮ মিনিটে প্রথম গোল পায় জোয়াকিম লোর দল। প্রথমার্ধে এক গোল পেলেও দ্বিতীয়ার্ধে মূলত বিধ্বংসী হয়ে ওঠে ইউরোপের পাওয়ার হাউসরা। মাত্র দশ মিনিটের মধ্যে স্কোরলাইন ৪-০ করে জয় নিশ্চিত করে ফেলে জার্মানি। ৪৭ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ম্যাক্স ক্রুজ। মেসুত ওজিলের কর্নার থেকে গোলটি করেন তিনি। চার মিনিট পর দলের তৃতীয় গোল করেন ইখাই গুনডোগান। ক্রুজের বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গোল করেন ২৪ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার। ৫৭ মিনিটে ওজিলের পাস থেকে গোল করেন মিডফিল্ডার কারিম বেলারবি। ৬৫ মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়ান শুরলে। ছয় মিনিট পর হ্যাটট্রিক পূরণ করেন তিনি। জার্মানি এগিয়ে যায় ছয় গোলে। ৮১ মিনিটে শুরলের হেড করে বাড়ানো বল পেয়ে দলের সপ্তম গোল করেন ক্রুজ। নিজেদের শেষ ম্যাচে জর্জিয়াকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দেয় পোল্যান্ডও। তাদের জয়ের নায়ক রবার্ট লেভানডোস্কি। হ্যাটট্রিক করেন বেয়ার্ন মিউনিখের এই স্ট্রাইকার। তার হ্যাটট্রিকটি ছিল অসাধারণ ভঙ্গিমায়। মাত্র চার মিনিটের ব্যবধানে তিন গোল করেন তিনি। আরও অবাক করা বিষয় হচ্ছে, লেভানডোস্কি হ্যাটট্রিক করেন ম্যাচের অন্তিম মুহূর্তে।