১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বিলুপ্ত ছিটমহলে জমি নিয়ে বিরোধ, সংঘর্ষ ॥ প্রথম মামলা দায়ের


স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম থেকে ॥ সদ্য বিলুপ্ত ছিটমহলে মারামারির ঘটনায় প্রথম মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন কুড়িগ্রামের বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়ার বাসিন্দা শহীদুল ইসলাম। বুধবার রাতে পৌনে ৯টায় ফুলবাড়ি থানায় তিনি মামলাটি করেন। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ছিটমহল ভাগাভাগির পর বাংলাদেশে এ ধরনের প্রথম কোন ছিটমহলবাসী মামলা করলেন। মামলার দুই আসামি হলেন, হানি মিয়া ও শাহিন মিয়া। ফুলবাড়ি থানা পুলিশ জানায়, জমি নিয়ে মারামারির কারণে এ মামলা হয়েছে। যার মামলা নং-২।

কুড়িগ্রাম সদর সার্কেলের সিনিয়র এএসপি মোঃ মাসুদ আলম বলেন, বিচারের জন্য যে কেউ আইনের আশ্রয় নিতে পারেন। কুড়িগ্রামের দাসিয়ারছড়া হচ্ছে সবচেয়ে বড় বিলুপ্ত ছিটমহল। আর এ ছিটমহলের ছোট কামাত পাড়ায় কয়েকদিন আগে শহীদুল ইসলামকে পথ রোধ করে আক্রমণ করে মারধর করে আসামিরা। এ ঘটনায় তিনি আইনের আশ্রয় নিয়েছেন। তদন্ত সাপেক্ষে এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এতদিন যেখানে মারামারি ও খুনের ঘটনায় সাজা ছিল শুধু মাত্র অর্থদ- ও শারীরিক নির্যাতন।

মামলার বাদী শহীদুল ইসলাম জানান, আগে বিচার কি জানতাম না। আইন-পুলিশ কি জানতাম না। এখন বিচারের পথ খুলে গেছে। আশা করছি এ মামলায় সুবিচার পাব। ছিটমহল অধিবাসীদের চিন্তার প্রধান কারণ-জমির মালিকানা নিয়ে।

কুড়িগ্রামের এসপি তার চিঠিতে বলেছেন, কুড়িগ্রাম জেলার অভ্যন্তরে ১২টি ছিটমহল রয়েছে। এসব ছিটমহলে বাড়িঘর, আবাদি-অনাবাদি, বিল ইত্যাদি জমির মালিকানা নিয়ে সমস্যা, নতুন সৃষ্টি হওয়া স্কুল-কলেজের নাম নিয়ে সমস্যা, নতুন নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সামাজিক প্রতিষ্ঠান গঠন নিয়ে অন্তর্কোন্দল, মাদক, চোরাকারবারি এবং মুজিব-ইন্দিরা চুক্তির বিরোধিতাকারীরা আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটাতে পারে। এসব পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য পুলিশ ক্যাম্প স্থাপনের সুপারিশও করা হয়। আইনশৃঙ্খলা অবনতির বিষয়টি আগেই অবগত করা হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: