মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ আগস্ট ২০১৭, ৭ ভাদ্র ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মোবাইল কিনতে সাবধান!

প্রকাশিত : ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, মংলা, ২ সেপ্টম্বর ॥ হুয়াং গুয়াংজিং পুটিং সুদর্শন যুবক আর জিয়ান হং লিউ সুন্দরী যুবতী। এদের বয়স ত্রিশের মধ্যে। তারা চীনা নাগরিক। গত কয়েক মাস আগে পর্যটক ভিসা নিয়ে বাংলাদেশ এসেছেন। ব্যাপারটা এখানেই থেমে থাকেনি ।

পর্যটক হয়ে এলেও বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থান ঘুরে অবৈধভাবে তারা মোবাইল বিক্রি করছিল। সেখানেও ছিল প্রতারণা। নামি ব্রান্ড ডুপ্লিকেট করে সস্তায় বিক্রি করছিল তারা। আর তা কিনেই প্রতারণার শিকার সাধারণ মানুষ।

মঙ্গলবার রাতে এসব মোবাইলসহ হুয়াং গুয়াংজিং পুটিং ও জিয়ান হং লিকে গ্রেফতার করেছে মংলা থানা পুলিশ। পরে বিশেষ আইনে মামলা দায়েরের পর বুধবার সকালে তাদের জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মংলা থানার সেকেন্ড অফিসার মঞ্জুল এলাহি জানান, গত ২৫ মার্চ পর্যটক ভিসা নিয়ে চায়না হতে বাংলাদেশে এসেছেন তারা। এরপর গত সোমবার তারা খুলনা হয়ে মংলায় আসেন।

ওই দুই বিদেশী সুন্দর চেহারার অধিকারী ও সুন্দর করে বাংলা বলতে পারেন। আর তা দিয়েই প্রথমে সবাইকে বোকা বানান তারা। এরপর বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নামি দামী মোবাইল সস্তায় তারা বিক্রি করে। সাধারণ মানুষও ভিড় করে কিনতে থাকে। সারাদিন বিক্রি শেষে রাতেই খুলনায় চলে যায় তারা।

সেখানে রাত্রি যাপন করে মঙ্গলবার আবার তারা মংলায় ফিরে আসে। এদিকে একদিন যেতে না যেতেই তাদের বিক্রি করা পূর্বের মোবাইলে সমস্যা সৃষ্টি হয়। এরকম কয়েকটি মোবাইল মঙ্গলবার ক্রেতারা তাদের কাছে নিয়ে আসে। কিন্তু তারা ওই মোবাইল বিক্রি করেনি বলে অস্বীকার করে। এ নিয়ে গোলযোগ হয়। একপর্যায়ে পুলিশ গিয়ে শহরের মেইন সড়ক থেকে তাদের আটক করে।

এ সময় তাদের কাছ থেকে পাসপোর্টসহ বিভিন্ন ব্যান্ডের ৩৮টি মোবাইল জব্দ করা হয়েছে। ক্রেতাদের দাবি, ওই সব মোবাইলের উপরে আইফোনসহ বিভিন্ন ব্রান্ডের স্টিকার থাকলেও ভিতরে চায়না ও দুর্বল পার্স বসানো। সাধারণ মানুষ ব্রান্ড দেখে সস্তা পেয়ে কিনে নেয়। আর প্রতারিত হয়।

প্রকাশিত : ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৩/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: