মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ আগস্ট ২০১৭, ৬ ভাদ্র ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বিপিএল দল কিনতে আগ্রহী আরও পাঁচ প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত : ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫
  • ৫ সেপ্টেম্বর পাকিস্তান যাবে নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল, ২১৬ সালের এশিয়া কাপ ক্রিকেটের আয়োজক হতে পারে বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল-টি২০) দল চালানো নিশ্চিত করেছে ৫ প্রতিষ্ঠান। বুধবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি জানালেন, নতুন-পুরনো মিলে আরও ৫টি প্রতিষ্ঠান দল কিনতে, দলের ফ্র্যাঞ্চাইজি হতে আগ্রহী। এর সঙ্গে আরও জানালেন, বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল পাকিস্তান সফর করবে কিনা, তা জানতে আগে নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ করতে হবে। সে জন্য ৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল পাকিস্তানে যাবে। আর ২০১৬ সালের এশিয়া কাপও বাংলাদেশেও হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি।

বিপিএলে দলের ফ্র্যাঞ্চাইজি হতে হলে ১ কোটি টাকা পে-অর্ডার ও সাড়ে ৪ কোটি টাকা ব্যাংক গ্যারান্টি দিতে হবে। নতুন-পুরনো মিলিয়ে আগ্রহ দেখানো ১৩ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শর্তগুলো ৫ প্রতিষ্ঠান পূরণ করেছে। এত কম সাড়া মেলায় সবাই হতাশ। তবে বিসিবি সভাপতি জানালেন, ‘বেসিক্যালি যেটা হয়েছে যে, এর মধ্যে পাঁচটা টিম পে-অর্ডার ও ব্যাংক গ্যারান্টি জমা দিয়েছে। আমরা এবার একটা বিষয় নিশ্চিত করতে চেয়েছি যে, খেলোয়াড়দের পেমেন্ট এবং আরও যা পেমেন্ট আছে তা নিয়ে যাতে আর কোন জটিলতা না হয়। এ জন্য আগেই আমরা টাকা নিয়ে নিতে চেয়েছি। যে কয়টি প্রতিষ্ঠান দল নেয়ার আগ্রহ দেখিয়েছিল, তাদের মধ্যে পাঁচ প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত সময়ে টাকা জমা দিয়ে দিয়েছে। এর মধ্যে দুটি দল আমাদের চিঠি দিয়ে সময় বাড়ানোর কথা বলেছিল এবং আরও দুই একটি প্রতিষ্ঠান সুযোগ চেয়েছে। তারা বিদেশে ছিল, দেশে এসে যাতে সুযোগ পায়, সে জন্য সময় বাড়ানোর কথা বলেছে। আপাতত আমাদের কাছে পাঁচ দলই আছে। যারা সময় বাড়ানোর আবেদন করেছিল, তাদের বিষয়ে আমরা এখনও কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারিনি। আশা করছি, আগামী চার তারিখে (শুক্রবার) এ বিষয়ে আমরা একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে পারব এবং আপনাদের বিস্তারিত জানাতে পারব।’

সভাপতি আরও জানান, ‘যে চার প্রতিষ্ঠান সময় বাড়ানোর আবেদন করেছে, তাদের জন্য দুটো বিষয় আছে। প্রথমটি হলো, তাদের সময় বাড়ানোর দাবি আমরা মানব কি না। দ্বিতীয়ত হলো, আমরা যদি তাদের দাবি মানি, তবে চার দলের মধ্যে কাদেরটা মানব। তাদের বিষয়ে আমাদের জানার দরকার আছে। সুতরাং এ বিষয়ে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। সময় বাড়ানোর দাবি করা চার প্রতিষ্ঠানের বাইরে পুরনো একটা প্রতিষ্ঠানও সুযোগ চেয়েছে। সে হিসেবে আরও পাঁচ দল নিয়ে আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমি পুরনো একটি প্রতিষ্ঠানকে বাদ দিয়েই চার প্রতিষ্ঠানের কথা বলেছি। আমরা পাঁচ দল নিয়েও বিপিএল করতে পারব। তবে আমাদের সব সময়ই চিন্তা ছিল অন্তত ছয় দল নিয়ে বিপিএল করার। এই চিন্তাটা আমাদের মৌলিক পরিকল্পনার মধ্যেই ছিল।’

২০১৬ সালের টি২০ বিশ্বকাপকে সামনে রেখে এবার এশিয়া কাপ টি২০ ফরমেটেই হবে। সেই এশিয়া কাপ বাংলাদেশে হওয়ার সম্ভাবনার কথাই জানালেন বিসিবি সভাপতি, ‘বাংলাদেশে এশিয়া কাপ হওয়ার সুযোগ আছে। তবে এ বিষয়ে এসিসির সভা ছাড়া কোন কিছু নিশ্চিত নয়। খুব সম্ভবত ভারতেই পরবর্তী এশিয়া কাপ হবে। সেটা না হলে বাংলাদেশেই মনে হয় সম্ভাব্য আয়োজক। এ বিষয়ে কিছুই চূড়ান্ত হয়নি। এসিসির পরবর্তী মিটিংয়ে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। ‘বাংলাদেশ যদি প্রস্তাব পায়, তবে এশিয়া কাপ বাংলাদেশেই হবে।’ যদি এবারও বাংলাদেশে এশিয়া কাপ আয়োজন হয়, তাহলে টানা তৃতীয়বার ও সবমিলিয়ে ১৩ বারের মধ্যে পঞ্চমবার আয়োজন হবে।

মহিলা ক্রিকেটাররা পাকিস্তানে খেলতে যাবে কি না, তা চূড়ান্ত করতে পর্যবেক্ষক দল পাঠানো হবে বলেও জানালেন বিসিবি সভাপতি। বলেছেন, ‘বাংলাদেশের নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা পাকিস্তান সফরে যাচ্ছেন। আগামী ৫ সেপ্টেম্বর যাবেন তারা। নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ দলে চারজন আছেন। তাদের সঙ্গে ডিফেন্স থেকে একজন যোগ দেবেন। পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট একটি দল যাবে। তারা করাচী ও লাহোরের নিরাপত্তা দেখবেন, এই দুটি জায়গাতেই বংলাদেশের খেলা হওয়ার সম্ভাবনা আছে।’

প্রকাশিত : ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৩/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: