২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বার কাউন্সিল নির্বাচন ॥ খোকনের বক্ত্য দেশবাসীকে বিভ্রান্ত করার অপপ্রয়াস


স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের গত ২৬ আগস্ট অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ভোটার তালিকায় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদকের অনিয়মের অভিযোগ তোলাকে রাজনৈতিক ফায়দা নেয়ার অপপ্রয়াস বলে মন্তব্য করেছেন সমিতির ৫ জন সদস্য।

বুধবার সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনের ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সিনিয়র সহ সভাপতি আবুল খায়ের, সহ সম্পাদক দিলোয়ার মোস্তফা চৌধুরী মধু, সদস্য ব্যারিস্টার মহিউদ্দিন শামীম, এ কে এম দাউদুর রহমান মিনা ও অমিত দাশগুপ্ত।

এর আগে গত ৩১ আগস্ট সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ব্যানারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বার কাউন্সিলের নির্বাচনে ভোটার তালিকায় অনিয়মের অভিযোগ এনে নতুন নির্বাচনের জন্য প্রধান বিচারপতির কাছে অনুরোধ জানিয়েছিলেন সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। সেখানে বার কাউন্সিল নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের (নীল প্যানেল) পরাজিত কয়েকজন আইনজীবী ছিলেন।

সুপ্রিম কোর্ট বারের ওই ৫ নেতা বলেন, মাহবুব উদ্দিন খোকন সংবাদ সম্মেলন সম্পর্কে আমাদেরকে অবহিত করেননি। ওই সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিও উপস্থিত ছিলেন না। বার কাউন্সিলের নির্বাচনের ৫ দিন পরে এসে সুপ্রিম কোর্ট বারের সম্পাদকের পদমর্যাদা ব্যবহার করে মাহবুব উদ্দিন খোকন পরাজিত প্রার্থীদের নিয়ে কথিত সংবাদ সম্মেলনে অসত্য তথ্য দিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে চেয়েছেন। আইনজীবী এবং দেশবাসীকে বিভ্রান্ত করার অপপ্রয়াস চালিয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়, আমরা কথিত সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন ও প্রদত্ত বক্তব্যের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করছি।

গত ২৬ আগস্ট অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে সরকার সমর্থক আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ। বুধবার দুপুর থেকে এ নির্বাচনে ভোট গণনা শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। ভোট গণনা শেষে বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা করবেন।