২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দুগ্ধ খামারিদের স্বল্প সুদে ঋণ দিতে চুক্তি


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দুধের চাহিদা পূরণে খামারিদের মাত্র ৫ শতাংশ সুদে ঋণ দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ২শ’ কোটি টাকার পুনর্অর্থায়ন তহবিলের আওতায় ১২টি ব্যাংক ও ১টি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে এই ঋণ বিতরণের চুক্তি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। মঙ্গলবার বিকেলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সম্মেলন কক্ষে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে সই করেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের কৃষিঋণ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক প্রভাষ চন্দ্র মল্লিক এবং সোনালী, জনতা, অগ্রণী, রূপালী, বেসিক, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক, আনসার ভিডিপি ব্যাংক, কর্মসংস্থান ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক, মিডল্যান্ড ব্যাংক ও আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে গবর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, দেশে দুধের মোট চাহিদার মাত্র ২০ শতাংশ উৎপাদন হয়। বাকি ৮০ শতাংশ বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়। আমদানিনির্ভরতা কমাতে সরকার ক্ষুদ্র প্রান্তিক খামারিদের ২শ’ কোটি টাকার তহবিলের মাধ্যমে ঋণ বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছে।

তিনি বলেন, সৃজনশীল এই প্রকল্পের শতভাগ বাস্তবায়ন হলে দেশ দুধে স্বয়ংসম্পূর্ণ হবে এবং মানুষের পুষ্টির চাহিদাও পূরণ হবে। এই ঋণ বিতরণ করতে প্রকৃত ও নারী খামারিদের অগ্রাধিকার দেয়ার নির্দেশ দেন গবর্নর। তিনি বলেন, এতে নারীর ক্ষমতায়ন ও কর্মসংস্থান বাড়বে। আতিউর রহমান বলেন, সম্ভাবনাময় এই প্রকল্পটি সফলভাবে বাস্তবায়ন হলে পরবর্তীতে বাজেট আরও বাড়ানো হবে। টেকসই অর্থায়নের অংশ হিসেবে উৎপাদনশীল খাতে টাকা দিচ্ছে সরকার।

অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রবৃদ্ধি অর্জনের জন্য উন্নয়নমুখী কর্মতৎপরতায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক সব সময় সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে। সভাপতির বক্তব্যে ডেপুটি গবর্নর এসকে সুর চৌধুরী বলেন, প্রতি বছর আমাদের ৪ হাজার কোটি টাকার দুধ আমদানি করতে হয়। প্রকৃত খামারিদের এই ঋণ দেয়া হলে দুধের সঙ্কট ক্রমেই কমে আসবে। আমদানিনির্ভরতাও কমবে। এ জন্য কৃত্রিম প্রজনন ও গাভী পালনকারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এই ঋণ দিতে হবে। প্রকল্পটির সফল বাস্তবায়ন করতে প্রধানমন্ত্রীও নির্দেশ দিয়েছেন। এতে বক্তব্য রাখেন, সোনালী, জনতা, রূপালী, আনসার ভিডিপি, আইএফআইসি ব্যাংক ও আইডিএলসি ফাইন্যান্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা।