২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

বাংলাদেশকে মোকাবেলার আগে টালমাটাল অস্ট্রেলিয়া!


বাংলাদেশকে মোকাবেলার আগে টালমাটাল অস্ট্রেলিয়া!

জাহিদুল আলম জয় ॥ ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলতে বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া অবস্থান করছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। বৃহস্পতিবার বাছাইপর্বের দ্বিতীয় পর্বের ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে অতিথি বাংলাদেশ। পার্থের পার্থ ওভাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি।

এই গ্রুপে অন্যতম শক্তিশালী দল অস্ট্রেলিয়া। তবে টাইগারদের মুখোমুখি হওয়ার আগে সকারু শিবিরে দেখা দিয়েছে নানা ধরনের জটিলতা ও সঙ্কট। দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের চোটের কারণে এমনিতেই দুশ্চিন্তায় অসি শিবির। যদিও মুখে তারা বিষয়টি স্বীকার করছে না। টাইগারদের বিপক্ষে স্বাভাবিক জয়ের প্রত্যাশাই করছে বর্তমান এশিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। তবে অস্ট্রেলিয়ার ডিফেন্ডার ম্যাথিউ স্পিয়ারানোভিচ ঠিকই সীমহ করছেন বাংলাদেশকে। তিনি এক সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন, বাংলাদেশের বিপক্ষে জয় পেতে নিজেদের সেরাটাই খেলতে হবে।

তবে ম্যাচের আগে বেশ বেকায়দায় আছে অস্ট্রেলিয়া। আগে থেকেই দলটিতে চোট সমস্যা ছিল। গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজন খেলোয়াড় ইতোমধ্যে ছিটকে পড়েছেন। এই সমস্যার রেশ কাটতে না কাটতেই নতুন করে সমস্যায় পড়েছে সকারুরা। টাইগারদের বিপক্ষে ম্যাচের আর একদিন বাকি। অথচ খেলোয়াড় ও ফেডারেশনের মধ্যে দ্বন্দ্ব স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। বেতন নিয়ে আগে থেকেই খেলোয়াড়দের সঙ্গে দ্বন্দ্ব ছিল ফুটবল ফেডারেশন অস্ট্রেলিয়ার (এফএফএ)। নতুন করে এই সমস্যাটি আবারও সামনে এসেছে। যদিও অস্ট্রেলিয়া কোচ এ্যাঞ্জে পোস্টেকোগলু এসব নিয়ে ভাবছেন না। বাংলাদেশের বিপক্ষে তার দল সেরাটাই খেলবে বলে বিশ্বাস। এরপরও সবমিলিয়ে অস্ট্রেলিয়া দলের যে অবস্থা তাতে বাংলাদেশের জন্য ভাল করার এটা সুবর্ণ সুযোগ। মামুনুল, সোহেল, এমিলিরা অস্ট্রেলিয়ার টালমাটাল অবস্থার সুযোগ নিয়ে স্মরণীয় কিছু করতে পারেন কি না সেটাই দেখার।

খেলোয়াড়দের সঙ্গে ফেডারেশনের দ্বন্দ্বের কারণে পৃষ্ঠপোষকদের সঙ্গে সব ধরনের আনুষ্ঠানিকতা বয়কট করছেন অস্ট্রেলিয়ার ফুটবলাররা। অর্থ সংক্রান্ত বিষয়ে অস্ট্রেলিয়ার পেশাদার ফুটবলারদের সংগঠন-পিএফএর সঙ্গে ফুটবল ফেডারেশন অস্ট্রেলিয়ার দ্বন্দ্ব এখন চরমে। খেলোয়াড়দের সঙ্গে একটি দর কষাকষি চুক্তির (সিবিএ) মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া পর এই ঝামেলার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। অবশ্য এই দ্বন্দ্ব বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচে কোন প্রভাব ফেলবে না বলে জানিয়েছে পিএফএ। কিন্তু ম্যাচের বাইরে ফুটবল ফেডারেশনের সব ধরনের বাণিজ্যিক কার্যক্রম বয়কটের ঘোষণা দিয়েছে তারা। অস্ট্রেলিয়ার পেশাদার ফুটবলারদের দাবি, চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর ফেডারেশন এ বিষয়ে নতুন উদ্যোগ না নিয়ে খেলোয়াড়দের অধিকার খর্ব করেছে।

উটকো এসব ঝামেলা নিয়ে ভাবছেন না অস্ট্রেলিয়া কোচ পোস্টেকোগলুও। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমাদের চিন্তায় এখন শুধুই খেলা। একটা লক্ষ্য নিয়েই এগিয়ে চলেছি আমরা। সেটা হলো বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলা। এ জন্য প্রয়োজনীয় সবকিছুই করব আমরা। তবে বেতন নিয়ে যে অনাকাক্সিক্ষত বিষয়ের সৃষ্টি হয়েছে তা নিয়ে অস্বস্তির কথা স্বীকার করেছেন সকারু কোচ। কিরগিজস্তানকে ২-১ গোলে হারিয়ে বাছাইপর্ব শুরু করা অস্ট্রেলিয়ার এটি দ্বিতীয় ম্যাচ। এই ম্যাচেও জয় চাই তারা। তবে কিরগিজস্তানের বিপক্ষে এ্যাওয়ে ম্যাচে যেমন প্রতিরোধের সম্মুখীন হতে হয়েছে তাদের, সেই অভিজ্ঞতা থেকে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজেদের সেরাটাই দিতে চান দলটির ফুটবলাররা। অসি ডিফেন্ডার স্পিয়ারানোভিচ এ প্রসঙ্গে বলেন, স্কোরলাইনের দিকে খুব বেশি মনোযোগী না হয়ে আমাদের উচিত বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজেদের সেরা খেলাটা খেলার প্রতি গুরুত্ব দেয়া। নিজেদের সেরা খেলাটা খেলতে পারলেই প্রত্যাশিত ফল পাওয়া যাবে। তিনি আরও বলেন, কিরগিজস্তান বা বাংলাদেশের মতো দলগুলো মাঠে প্রতিরোধ সৃষ্টি করতে পারে। র‌্যাঙ্কিংয়ের যে দলের সঙ্গে আপনার ব্যবধান অনেক, সে দলের বিপক্ষে অনেক বড় কিছুরই প্রত্যাশা থাকতে পারে। কিন্তু কিরগিজস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের অভিজ্ঞতা হচ্ছে, বিষয়টা সহজ নয়। আন্তর্জাতিক ফুটবল যথেষ্ট কঠিন। বাংলাদেশও এই ম্যাচে নিজেদের সর্বোচ্চটা দেয়ার চেষ্টা করবে। বাংলাদেশকে হাল্কাভাবে নেয়ার সুযোগ নেই।

এশিয়া অঞ্চলের বাছাইপর্বের ‘বি’ গ্রুপে বর্তমানে শীর্ষে আছে জর্দান। এক ম্যাচ জিতে পূর্ণ ৩ পয়েন্ট ভা-ারে তাদের। দুই ম্যাচে এক জয় ও এক হারে ৩ পয়েন্ট নিয়ে গোল গড়ে দ্বিতীয় স্থানে কিরগিজস্তান। এক জয়ে ৩ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় অস্ট্রেলিয়া। তাজিকিস্তান ও বাংলাদেশ দু’দলই খেলেছে দুটি করে ম্যাচ। ফলাফলও একই। একটি করে ম্যাচে হার ও ড্র। দু’দলেরই ভা-ারে জমা ১ পয়েন্ট করে। তবে গোলগড়ে এগিয়ে থেকে চার নম্বরে তাজিকিস্তান। আর গ্রুপের তলানিতে অর্থাৎ পাঁচ নম্বরে বাংলাদেশ।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: