মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বাউফলে ১৪টি খাল দখল করে স্থাপনা নির্মাণ

প্রকাশিত : ১ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ০৪:০২ পি. এম.
বাউফলে ১৪টি খাল দখল করে স্থাপনা নির্মাণ

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল ॥ বাউফল পৌর শহরসহ, কালাইয়া, কালিশুরী, বগা, হাজিরহাট কনকদিয়া ও নুরাইনপুর বন্দরে মালামাল পরিবহন কাজে ব্যবহারিত ১৪ টি খাল দখল করে বিভিন্ন ধরণের স্থাপনা নির্মাণ করা হচ্ছে। ফলে নাব্যতা হারিয়ে খালগুলো এখন মৃত্যুপ্রায়। তাই এসব খাল দিয়ে মালবাহি নৌকা কিংবা ট্রলার চলাচল ব্যহত হচ্ছে। সরেজমিন দেখা গেছে, বাউফল পৌর শহরের পূর্ব দিকে আতাহার গাজী ব্রিক ফিল্ড থেকে পশ্চিমে কাগুজীপুল ভায়া দক্ষিনে নুরিয়া প্রাইমারী স্কুল পর্যন্ত ও গোলাবাড়ি থেকে উত্তরে নুরাইনপুর খেয়াঘাট পর্যন্ত এবং বাউফল জেলা পরিষদের ডাকবাংলো থেকে উত্তর দক্ষিন দিকে সিকদার বাড়ি হয়ে নগরের হাট পর্যন্ত ৪টি খাল। কাগুজি বাড়ির পুল থেকে পশ্চিমে বিলবিলাস ভায়া বগা খাদ্য গুদাম ভায়া হোগলা পর্যন্ত দুইটি খাল, নওমালার নগরেরহাট থেকে বগা কবিরাজ বাড়ি পর্যন্ত খাল , বাণিজ্যকেন্দ্র কালাইয়া বন্দরের লঞ্চঘাট থেকে ধান হাট ভায়া দক্ষিন দিকে আয়নাবাজ কালাইয়া পর্যন্ত দুইটি খাল, কেশবপুরের তালতলা থেকে নুরাইনপুর বাজার ভায়া উত্তর দিকে কেশবপুর ও কালিশুরী পর্যন্ত একটি খাল, হাজির হাটের পূর্ব-দক্ষিণ দিকে মিল ঘর পর্যন্ত ও কাশিপুর বাধ থেকে দক্ষিন দিকে ধনিয়াপুর পর্যন্ত দুইটি খাল ও কনকদিয়া বাজারের উত্তর দিক থেকে দক্ষিন দিকে প্রবাহিত একটি খাল এবং মদনপুরা সোনামুদ্দিন হাই স্কুলের সামনে একটিসহ মোট ১৪টি খালের দুই পাশের জায়গা স্থানীয়রা দখল করে সে জায়গায় তারা পাকা বাড়ি ঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন ধরণের স্থাপনা নির্মান করেছে। ইউনিয়ন ভূমি অফিসের এক শ্রেনীর কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের যোগসাজসে এসব খালের দু’পাড় দখল করে নেয়া হচ্ছে। খালের পাড়েরর জায়গাগুলো দখল করে নেয়ার পানি প্রবাহে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। ফলে খালগুলো এখন মৃত্যুমুখে পতিত হচ্ছে এবং নাব্যতা না থাকায় নৌকা কিংবা ট্রলারও চলাচল করতে পারছেনা। খালের জায়গা দখলমুক্ত করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছেনা।

প্রকাশিত : ১ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ০৪:০২ পি. এম.

০১/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: