২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সুন্দরবনে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু খলিল নিহত


স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ পূর্ব সুন্দরবনে র‌্যাব-৮ এর সদস্যদের সঙ্গে বনদস্যু মনির বাহিনীর বন্দুকযুদ্ধে উক্ত বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড খলিল (৩০) নিহত হয়েছে। সোমবার ভোরে সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের চান্দেশরের দরজার খাল এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। র‌্যাব তল্লাশি চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলবারুদ উদ্ধার করেছে। উদ্ধারকৃত আগ্নেয়াস্ত্র ও সরমঞ্জামের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ১২টি আগ্নেয়াস্ত্র, ১১৪ রাউন্ড তাজা গুলি, ৩০ রাউন্ড গুলির খোসা, ৬টি ধারালো অস্ত্র, ২টি মোবাইল সেট, ৩টি সিম কার্ড ও দস্যুদের ব্যবহৃত টোকেন।

র‌্যাব-৮ এর সিও (অধিনায়ক) লে: কর্নেল ফরিদুল আলম জানান, পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দরজার খাল এলাকায় সোমবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা অন্যান্য দিনের মতো নিয়মিত টহল দিচ্ছিল। এ সময় দরজার খালে পূর্ব থেকে অবস্থান নেয়া বনদস্যু মনির বাহিনী সদস্যরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে আত্মরক্ষায় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় উভয়ের মধ্যে প্রায় আধা ঘণ্টা ধরে চলা বন্দুকযুদ্ধের এক পর্যায়ে বাহিনীর সেকেন্ডে ইন কমান্ড খলিল (৩০) ঘটনাস্থলেই গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়। বাহিনীর অন্য সদস্যরা বনের গহীনে পালিয়ে যায়। স্থানীয় জেলেরা নিহতের লাশ দেখে বনদস্যু খলিল বলে চিহ্নিত করে। পরে ওই এলাকায় তল্লাশি চালিয়ে ১২টি অস্ত্র, ১১৪ রাউন্ড তাজা গুলি, ৩০ রাউন্ড গুলির খোসা, ৬টি ধারালো অস্ত্র, ২টি মোবাইল সেট, ৩টি সিম কার্ড ও দস্যুদের ব্যবহৃত টোকেন উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

নিহত বনদস্যু খলিলের বাড়ি বাগেরহাটের শরণখোলায় বলে জানা গেছে। আগ্নেয়াস্ত্রসহ নিহত বনদস্যুর লাশ শরণখোলা থানা পুলিশে হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: