১২ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া একমাত্র টি২০ আজ


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইংল্যান্ড ও সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার একমাত্র টি২০ ম্যাচ আজ। কার্ডিফে খেলা শুরু বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায়। ম্যাচ যতটা না স্বাগতিক ইংলিশ, অতিথি অসিদের জন্য তার চেয়ে ঢের বেশি চ্যালেঞ্জিং। এ্যাশেজ ভরাডুবির পর এই ম্যাচ খেলতে নামছে তারা। যদিও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে জয়ে প্রস্তুতিটা মন্দ হয়নি স্টিভেন স্মিথদের। স্বল্পদৈর্ঘের ম্যাচে সাফল্য তুলে নিয়ে এ্যাশেজ ব্যর্থতা ভুলতে চান নতুন অধিনায়ক। চ্যালেঞ্জটা বেশি কারণ, বিশ্বকাপ পুনরুদ্ধারের মাত্র সাড়ে চার মাসের মাথায় ৩-২ এ এ্যাশেজ সিরিজ খোয়ায় অসিরা। ব্যর্থতা মাথায় নিয়ে ক্রিকেটকেই বিদায় জানান মাইকেল ক্লার্ক। তার ওপর জর্জ বেইলি, গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের মতো ছোট ফরমেটের স্পেশালিস্টরা অনেকদিন খেলার মধ্যে নেই। এ্যাশেজের গ্লানি মুছতে আসন্ন পাঁচ ওয়ানডের সিরিজেও ভাল করতে হবে ওয়ানডের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের। যেখানে টি২০ দিয়ে শক্তির একটা রিহার্সেল হয়ে যাবে। বেলফাস্টে আইরিশদের বিপক্ষে বৃষ্টিবিঘিœত ম্যাচটা স্মিথরা জেতে ২৩ রানে। ওপেনিংয়ে ১৩৯ রানের জুটি গড়েন ডেভিড ওয়ার্নার (৮৪) ও জো বার্নস (৬৯)। পরে প্রতিপক্ষকে ১৫৭ রানে অলআউট করার পথে ভাল বোলিং করেন মিচেল স্টার্ক, কল্টার নাইল, প্যাট কুমিন্স ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ওই ম্যাচের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে স্টিভেন স্মিথ যুগে প্রবেশ করে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট। তবে আসল পরীক্ষাটা অবশ্যই ইংল্যান্ড সিরিজ। অসি সেনাপতি বলেন, ‘আইরিশদের সঙ্গে ম্যাচ আমাদের জন্য ইতিবাচক ছিল। ওয়ার্নারের সঙ্গে তরুণ বার্নস ওপেনিংয়ে চমৎকার ব্যাটিং করেছে। যদিও মিডলঅর্ডারে ব্যাটিং ভাল হয়নি। অবশ্য বেইলি-ম্যাক্সওয়েল অনেকদিন খেলার মধ্যে নেই। আশা করছি দ্রুতই মানিয়ে নেবে। এ্যাশেজের ব্যর্থতা ভুলে এই সিরিজে ঘুরে দাঁড়াতে চাই।’ ঘুরে দাঁড়ানোর সামর্থ্য অস্ট্রেলিয়ার রয়েছে। ব্যাটিংয়ে স্মিথের সঙ্গে ওয়ার্নার, শেন ওয়াটসন, স্পেশালিস্ট বেইলি-ম্যাক্সওয়েল। অলরাউন্ড পজিশনে দুরন্ত মিচেল মার্শ। যদিও বিশ্বকাপ ফাইনালের নায়ক জেমস ফকনারকে পাচ্ছে না তারা। ম্যানচেস্টারে মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালিয়ে আপাতত নিষিদ্ধ তিনি। বোলিংয়ে মিচেল স্টার্ক, প্যাট কুমিন্স, কাল্টার নাইল প্রত্যেকে দৃশ্যপট বদলে দেয়ার ক্ষমতা রাখেন। চ্যালেঞ্জটা স্বাগতিক ইংলিশদের জন্যেও কম নয়। এ্যাশেজ সাফল্যের বেশিরভাগ কুশিলবই যে ছোট্ট ফরমেটে নেই। নেতৃত্বে ইয়ান মরগান। অফ-ফর্ম ও দলীয় ব্যর্থতায় বিশ্বকাপের আগে জায়গা হারান কুক। বাংলাদেশের কাছে হেরে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয় ইংলিশরা। এ্যাশেজের পর টি২০ ও ওয়ানডেতে বিশ্রামে রাখা হয়েছে তুখোড় ব্যাটসম্যান জো রুটকে। তবে টেস্টে ভাল করে স্বল্পদৈর্ঘে ফিরেছেন অলরাউন্ডার মঈন আলি ও বেন স্টোকস।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: