১৫ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সেরেনার বিরল অর্জন


সেরেনার বিরল অর্জন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ উইম্বল্ডনে ষষ্ঠ, মোট গ্র্যান্ডসøামের সংখ্যা ২১। ৩৩ বছর বয়সী সেরেনা উইলিয়ামসের কৃতিত্ব বুঝানোর জন্য এই তথ্যটাই যথেষ্ট। তবে সেরেনা উইলিয়ামস বলে কথা। এখানেই থেমে থাকতে চান না আমেরিকান টেনিসের এই সেরা তারকা। বরং একের পর এক রেকর্ড গড়াটাই যেন তার স্বভাবজাত বৈশিষ্ট্য। সদ্যই উইম্বল্ডন জয়ী সেরেনা উইলিয়ামস আরেকটি মাইলফলক স্পর্শ করলেন। যা টেনিস ইতিহাসেরই প্রথম ঘটনা। স্টেফিগ্রাফ আর মার্গারেট কোর্ট গ্র্যান্ডসøামজয়ীদের তালিকায় শীর্ষে থাকলেও সেরেনার এই কীর্তির দ্বারপ্রান্তেও পৌঁছাতে পারেননি। তাহলে কী সেই কীর্তি। মঙ্গলবার প্রকাশিত সর্বশেষ ডব্লিউটিএ র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী সেরেনা উইলিয়ামসের র‌্যাটিং পয়েন্ট ১৩,১৬১। যা দুইয়ে থাকা মারিয়া শারাপোভার ৬৪৯০ এর দ্বিগুণের চেয়েও বেশি। এত বিশাল ব্যবধান নিয়ে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা এটাই ইতিহাসের প্রথম ঘটনা।

গত শনিবার মৌসুমের তৃতীয় গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের ফাইনালে স্পেনের গারবিন মুগুরুজাকে পরাজিত করে উইম্বল্ডনের ষষ্ঠ শিরোপা জয়ের রেকর্ড গড়েন তিনি। সেই সঙ্গে গ্র্যান্ডসøাম জয়ের সংখ্যাটাকে বৃদ্ধি করে একুশে নিয়ে যান কৃষ্ণকলি। দ্বিতীয়বারের মতো টানা চার মেজর শিরোপা জয়ের মাইলফলকও স্পর্শ করেন সেরেনা উইলিয়ামস। গত মৌসুম থেকেই যেন নতুন করে গর্জে উঠেন তিনি। টেনিস কোর্টে রীতিমতো অপ্রতিরোধ্য নাম হয়ে উঠে সেরে না। টেনিসের মেজর টুর্নামেন্ট উইম্বল্ডনের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক দেখা যায় তাকে। ফাইনালের আগে সেমিতেও অগ্নিপরীক্ষার মুখোমুখি হয়েছিলেন আমেরিকান তারকা। যেখানে প্রতিপক্ষ ছিলেন মারিয়া শারাপোভা। কিন্তু শারাপোভা বলুন আর মুগুরুজাই বলুন সেরেনা যেন প্রতিপক্ষ সব খেলোয়াড়েরই যমে পরিণত হয়ে গেছেন তিনি।

২০১৪ সালে ইউএস ওপেন জয় করেছিলেন সেরেনা। বছরের চতুর্থ গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট জিতে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থেকেই মৌসুম শেষ করেন তিনি। এরপর চলতি বছরে টানা অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ফরাসী ওপেন ও উইম্বল্ডন জয় করার বিস্ময়কর কীর্তি। এই অর্জনকে ‘সেরেনা সøাম’ হিসেবেই আখ্যায়িত করা হয়। এবার তার সামনে ইউএস ওপেন। আর বছরের শেষ গ্র্যান্ডসøাম জিতলেই ক্যালেন্ডার সøাম অর্জিত হবে তার। টেনিসের উন্মুক্ত যুগে স্টেফিগ্রাফের ২২ গ্র্যান্ডসøাম শিরোপা থেকে একটি পেছনে রয়েছেন সেরেনা। আর ২৪ জিতে এই তালিকায় সবার উপরে অবস্থান করছেন মার্গারেট কোর্ট। সেরেনা কী পারবেন গ্রাফ-কোর্টকে ছাড়িয়ে যেতে? তা বলবে সময়। তবে এই মুহূর্তে সেরেনার লক্ষ্য কেবলই এক পঞ্জিকাবর্ষে (ক্যালেন্ডার সøাম) চার গ্র্যান্ডসøাম জেতা। এই বিষয়ে সেরেনার কোচ প্যাট্রিক মোরাটাগ্লুও খুব আত্মবিশ্বাসী। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এটাই একমাত্র কীর্তি যা এখনও সেরেনার ঝুলিতে নেই।’ সেরেনা এই কীর্তি গড়ার সুযোগ পাচ্ছেন দু’মাস পর ইউএস ওপেনে। তবে সেরেনাও আশাবাদী নিজেকে সেখানে মেলে ধরতে। এ বিষয়ে ২১তম মেজর শিরোপা জয়ের পরই তিনি বলেন, ‘বিশ্বাসই হচ্ছে না আমার, আরও একটা সেরেনা সø্যাম নিয়ে এখানে দাঁড়িয়ে আছি। শেষদিকে গারবিন মুগুরুজা খুব ভাল খেলেছিল। তবে শিরোপা জয়ের ক্ষেত্রে সে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি। উইম্বল্ডনের পর আমার লক্ষ্য এখন ক্যালেন্ডার সøাম। ইউএস ওপেনে টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার রেকর্ড আমার আছে। আর এটাই আমাকে সেখানে আবারও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছে।’ আরও একটি রেকর্ড সেরেনার দখলে। তা হলো বর্তমানে যারা টেনিস খেলছেন তাদের মোট জয় পাওয়া গ্র্যান্ডসøামের সংখ্যা সেরেনার সমান ২১। আসলে অবিশ্বাস্যই মনে হতে পারে। তবে পরিসংখ্যানটা মিলিয়েই দেখুন। সেরেনার বড় বোন ভেনাস উইলিয়ামসের গ্র্যান্ডসøাম জয়ের সংখ্যা ৭। পাঁচটি জিতেছেন দুই নাম্বারে থাকা রাশিয়ান গ্ল্যামারগার্ল মারিয়া শারাপোভা। রুশ সুন্দরীর পর দুইটি করে গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন পেত্রা কেভিতোভা, সভেতলানা কুজনেটসোভা এবং ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা। আর একটি করে জয় পেয়েছেন সামান্থা স্টোসার, আনা ইভানোভিচ এবং ফ্রান্সেসকো শিয়াভোনি। তাদের সকলের মোট গ্র্যান্ডসøাম জয়ের সংখ্যা ২১ যা একা সেরেনা উইলিয়ামসেরই সমান।