মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মন্ত্রিসভার নতুন সদস্যদের শ্রদ্ধা নিবেদন

প্রকাশিত : ১৬ জুলাই ২০১৫

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে শপথ নেয়া নতুন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন। বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে আস্থা ও বিশ্বাস তাদের ওপর দেখিয়েছেন, তার মর্যাদা রাখার চেষ্টা করবেন তারা। একই সঙ্গে তারা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের দুর্নীতি দূর ও গতিশীলতা বৃদ্ধির পাশাপাশি বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নিরলসভাবে কাজ করে যাওয়ার ঘোষণা দেন। সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ মোকাবেলায় জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণেরও প্রতিশ্রুতি দেন নতুন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা।

বৈরী আবহাওয়ার মধ্যে বুধবার সকালে মন্ত্রিসভার নতুন সদস্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট তারানা হালিম এবং খাদ্য প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ ধানম-ির ৩২ নম্বরে গিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের আগে ও পরে মন্ত্রিসভার নতুন সদস্যরা সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন এবং বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস দমনে বর্তমান সরকারের ‘জিরো টলারেন্স’ নীতির কথা উল্লেখ করে বলেন, জঙ্গী ও সন্ত্রাস দমনে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কাজ করে যাচ্ছি। কোন জঙ্গীকে মাথা তুলে দাঁড়াতে দেয়া হবে না। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ মোকাবেলায় জিরো টলারেন্স নীতি অব্যাহত থাকবে। তিনি বলেন, যেখানেই জনগণ সমস্যায় পড়বে সেখানেই পুলিশ তার পাশে দাঁড়াবে।

সিলেটে চোর সন্দেহে পিটিয়ে শিশু হত্যার ঘটনা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রাজন হত্যা মামলায় যারা ভিডিও ধারণ করেছে, তারা একবারও মনে করেনি যে পুলিশ প্রশাসন কিংবা সমাজপতি কাউকে খবর দিতে হবে। এটাও আমাদের কাছে তথ্য রয়েছে। এক্ষেত্রে আমরা কঠোর অবস্থান নিয়েছি। সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে। সন্ত্রাস মোকাবেলায় প্রয়োজনে আরও কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।

শ্রদ্ধা নিবেদনের পর প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি সাংবাদিকদের বলেন, মানবপাচার রোধে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। জনশক্তি খাত নিয়ে যদি কোন সমস্যা থাকে তাহলে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতা নিয়ে তা চিহ্নিত করে সমাধান করা হবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট তারানা হালিম তরুণ প্রজš§কে নিয়ে দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গড়ে তোলার জন্য সর্বোচ্চ ভূমিকা রাখার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করে বলেন, আমার প্রথম চ্যালেঞ্জ, স্বজনপ্রীতি-দুর্নীতি যাতে আমার মন্ত্রণালয়ে না হয়, সেটা নিশ্চিত করা। এ জন্য আমি আমার সর্বশক্তি ও সবরকমের প্রচেষ্টা নিয়োগ করব। দুর্নীতির ঊর্ধে থেকে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তিনি।

গম কেলেঙ্কারি প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে খাদ্য প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেন, ভবিষ্যতে এ ধরনের অনাকাক্সিক্ষত প্রশ্নের সম্মুখীন হওয়ার মতো কোন সুযোগ যাতে না থাকে, সে জন্য আমি সর্বোচ্চ সতর্ক থাকব। গমের বিষয়ে মন্ত্রণালয় কোন তদন্ত করবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি নতুন দায়িত্ব পেয়েছি। মন্ত্রণালয়ে যাওয়ার পর এ বিষয়ে বলতে পারব। তিনি বলেন, সমস্যাগুলো আগে চিহ্নিত করে তার সমাধানের চেষ্টা করা হবে।

প্রকাশিত : ১৬ জুলাই ২০১৫

১৬/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: