মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

সম্পাদক সমীপে

প্রকাশিত : ১৬ জুলাই ২০১৫

বাড়ি ফেরা হোক নির্বিঘ্ন

প্রতিবছরই ঈদের সময় দূরপাল্লার যাত্রীদের ভোগান্তি চরমে ওঠে। অনিয়ম, অব্যবস্থাপনার কারণে যোগাযোগ ব্যবস্থায় তৈরি হয় এক হ-য-ব-র-ল অবস্থা। ঈদ এলেই যেন সংশ্লিষ্টরা নড়েচড়ে বসেন। সারাবছরের আলস্য ঝেড়ে তারা কর্মতৎপর হওয়ার চেষ্টা করেন। আর এরই জের ধরে সরকারের দায়িত্বশীল মন্ত্রী, মন্ত্রণালয় ও বিভাগের পক্ষ থেকে বেশ কঠোর ভাষায়ই জানিয়ে দেয়া হয়, যাতে বাস, লঞ্চ, ট্রেনগুলো নির্ধারিত যাত্রীর চেয়ে অতিরিক্ত যাত্রী বহন না করে। শুধু ঘোষণা দিয়েই তারা ক্ষান্ত হন না এ ব্যাপারে যারা অনিয়মের আশ্রয় নেবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ারও অঙ্গীকার করেন। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, ঈদকে সামনে রেখে সড়ক ব্যবস্থাপনায় অতিরিক্ত ভাড়া, ট্রেনে টিকেট কালোবাজারি, অতিরিক্ত যাত্রী ওঠানো, জায়গায় জায়গায় বাস থামানোÑ সব মিলিয়ে ঈদে যাত্রীদের বাড়ি ফেরা হয়ে ওঠে দুর্বিসহ। তবু বাবা-মা, ভাই-বোন, স্ত্রী, সন্তানসহ প্রিয়জনের সঙ্গে দেখা হবেÑ এই আনন্দে মানুষ এসব দুঃখ-কষ্ট-বেদনাকে মুখ বুজে সহ্য করে নেয়।

সরকার এবার অন্যান্য বছরের তুলনায় বেশ সক্রিয়। বাসের ভাড়া মনিটরিং, কালোবাজারি বন্ধে কার্যকর উদ্যোগ, অতিরিক্ত যাত্রী বহনে নিরুৎসাহিত, যাত্রী পরিবহনে অতিরিক্ত বাস সংযোজন, লঞ্চের ফিটনেস পরীক্ষাসহ বিভিন্ন বিষয়ে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এ ব্যাপারে সরকারের সঙ্গে যদি যাত্রী সাধারণও সচেতন হয়ে ওঠেন তাহলে বাড়ি ফেরার ভোগান্তি ও দুর্ঘটনার হাত থেকে মূল্যবান জীবন রক্ষা পাওয়া সহজ হবে।

এম.এ. সালেহ

নারিন্দা রোড, ঢাকা

প্রকাশিত : ১৬ জুলাই ২০১৫

১৬/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: