২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

নতুন লক্ষ্যে মাঠে নামছেন বার্সা কোচ


অনলাইন ডেস্ক ॥ নতুন মৌসুমে নতুন লক্ষ্য নিয়ে নামছেন লুইস এনরিক। তার অধীনে গত মৌসুমে ট্রেবল জয় করে বার্সেলোনা। সামনে রয়েছে আরো তিনটি শিরোপার হাতছানি। ২০১৫-১৬ মৌসুম শুরুর ‍আগে প্রথম প্রেস কনফারেন্সে এসব কথাই বলেন এনরিক। এছাড়াও পেদ্রো রদ্রিগেজের ক্লাব ছাড়ার গুজব, নিজের চুক্তি নবায়ন, বার্সার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন, রিয়াল থেকে ক্যাসিয়াসের বিদায়, ন্যু ক্যাম্পে পগবার আগমনের সম্ভাবনা, আরদা তুরান ও আলেক্স ভিদালকে দলে ভেড়ানোর বিষয়ে তিনি কথা বলেন।

গত মৌসুমে লা লিগা, কোপা দেল রে ও উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতে ইউরোপের প্রথম ক্লাব হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো ট্রেবল জয়ের কীর্তি গড়ে বার্সা। সামনে রয়েছে স্প্যানিশ সুপার কাপ, উয়েফা সুপার কাপ ও ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ। তিনটি প্রতিযোগিতাতেই নিশ্চিত ফেভারিট হিসেবে মাঠে নামবে কাতালানরা। তাই অনেকে এখনই মেসি-নেইমার-ইনিয়েস্তা-সুয়ারেজদের হাতে ছয় শিরোপা দেখছেন!

এমনটি ঘটলে ২০০৯ সালের পুনরাবৃত্তি ঘটবে। সেবার পেপ গার্দিওলার অধীনে এক বছরে রেকর্ড ছয়টি ট্রফি ঘরে তোলে স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

এনরিক বলেন, ‘ট্রেবল জয় এখন অতীত। আমাদের আরো তিনটি শিরোপা জিতে ছয় শিরোপা পূর্ণ করতে হবে। এ লক্ষ্যেই এগোতে হবে। তবে, কাজটি মোটেই সহজ হবে না। সবাইকে নিজেদের সেরাটা দিয়েই তা অর্জন করতে হবে।’

আরদা ও ভিদাল প্রসঙ্গে এনরিক উল্লেখ করেন, ‘আরদা খুবই ভালো মানের ফুটবলার। ভিদালও দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এমন খেলোয়াড়দের দলে ভেড়ানোয় বার্সার অন্তর্বর্তী কমিটিকে সাধুবাদ জানাই। ট্রান্সফার নিষেধাজ্ঞার কারণে এ দুজন ছয় মাস খেলতে না পারলেও এ বছরটি ভালো যাবে বলে আশা রাখছি।’

পেদ্রোকে বার্সাতেই রাখার ইচ্ছা ব্যক্ত করেন এনরিক। ‘পেদ্রো আমাদের চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়। সে ভালো পারফর্ম করছে। ‍আমি চাই সে এখানে থাকুক। তবে, সিদ্ধান্তটি তার একান্তই ব্যক্তিগত। সে ক্লাব ছাড়তে চাইলে ‍আমাদের বিকল্প চিন্তা করতে হবে।’

বার্সা কোচ নিজের চুক্তি নবায়ন নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন, ‘আমি বর্তমান চুক্তির শেষ পর্যন্ত থাকতে চাই। গত মৌসুমে ক্লাব প্রেসিডেন্ট বার্তোমেউ আমার সঙ্গে এ বিষয়ে অনেকবারই কথা বলেছে। কিন্তু, আমি তাকে মৌসুম শেষ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেছিলাম এবং সেটিই হয়েছে।’ উল্লেখ্য, ২০১৫-১৬ মৌসুম শেষে বার্সার সঙ্গে এনরিকের দু’বছরের চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে।’

পগবার ব্যাপারটি খুব একটা গুরুত্ব দেননি এনরিক। ‘আমাদের দলের বাইরের কোনো খেলোয়াড় প্রসঙ্গে কথা বলতে চাই না। তবে নতুন প্রেসিডেন্টের কাছে আমার পরিকল্পনাগুলো তুলে ধরব।’

রিয়াল থেকে ক্যাসিয়াসের বিদায় প্রসঙ্গে এনরিক বলেন, ‘ক্যাসিয়াসের ক্লাব ছাড়ার বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করতে চাচ্ছি না। রিয়ালের হয়ে তার রেকর্ডগুলো সত্যিই আশ্চর্যজনক। কিন্তু, জীবনকে তো আর থামিয়ে রাখা যায় না। আমাদের এ বিষয়টিকে নাট্যরূপ দেওয়া মোটেই ঠিক হবে না।’

বার্সার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন বিষয়ে নিজের অবস্থান তুলে ধরেন এনরিক। ‘নতুন প্রেসিডেন্ট কে হবেন সে ব্যাপারে আমার মাথাব্যথা নেই। আমি এই ইস্যুটি নিয়ে কথাও বলতে চাই না। তবে, পছন্দের প্রার্থীকে তো অবশ্যই ভোট দেব।’