২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

এবার বরিশালে দুই শিশুকে পেটানোর ভিডিও


বিডিনিউজ ॥ সিলেটে শিশু সামিউল আলম রাজনকে নির্যাতন করে হত্যার ঘটনা নিয়ে তোলপাড়ের মধ্যে বরিশাল সরকারী শিশু পরিবারে দুই শিশুর ওপর নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। আর অভিযোগ এক সরকারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

গত ৪ জুলাই বরিশাল সরকারী শিশু পরিবার-বালিকায় (উত্তর) এ ঘটনা ঘটেছে। অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মোবাইল ফোনের ক্যামেরায় ধারণ করা ওই নির্যাতনের তিন মিনিটের একটি ভিডিও ফুটেজ সোমবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনার পর সরকারী শিশু পরিবার পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক ড. গাজী মোঃ সাইফুজ্জামান।

ভিডিওতে দেখা যায়, দুই শিশুকে গাছের ডাল দিয়ে পেটাচ্ছেন শিশু পরিবারের কম্পাউন্ডার মোঃ দুলাল। মাঝে মধ্যে চড়-থাপ্পড়ও দিচ্ছেন আর শিশুরা আর করব না বলে চিৎকার করছে।

এ ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে কম্পাউন্ডার মোঃ দুলালকে শিশু পরিবারে পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তা বন্ধ পান এ প্রতিনিধি।

অফিস খোলা থাকলেও সেখানে ছিলেন না শিশু পরিবারের উপ-তত্ত্বাবধায়ক ইসমত আরা খানম। পরে গণমাধ্যমকর্মীদের আসার খবর শুনে কার্যালয়ে আসেন তিনি।

ইসমত আরা জানান, গত ৪ জুলাই শিশু পরিবারের বাসিন্দা ডালিয়াকে (৯) দেখতে আসেন তার মা বিলকিস বেগম। দেখা করে মা চলে গেলে তার পিছু পিছু নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনাল পর্যন্ত যায় ডালিয়া। তাকে ফিরিয়ে আনতে সেখানে যায় আরেক শিশু সাথি (৯)। তিনি বলেন, ‘তৃতীয় শ্রেণীর এ দুই ছাত্রীকে নথুল্লাবাদে দেখতে পেয়ে শিশু পরিবারে ফিরে যেতে বলেন কম্পাউন্ডার মোঃ দুলাল। পরে তিনি শিশু পরিবারে ফিরে এসে তাদের দেখতে না পেয়ে খুঁজতে বের হন।’

তিনি আরও বলেন, সাগরদী বাজারের একটি মোবাইলের দোকান থেকে তাদের ধরে নিয়ে এসে দুলাল তাদের মারধর করেন। এ ঘটনা জানার পর তিনি শিশুদের ডেকে মারধর করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে শিশুরা তাকে জানায়, তাদের বকা দিয়েছে। তবে মারধর করেনি।

সাংবাদিকদের ওই দুই শিশু ডালিয়া ও সাথি জানায়, তাদের লাঠি দিয়ে পেটানো হয়েছে, ভয়ও দেখানো হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জেলা প্রশাসক ড. গাজী মোঃ সাইফুজ্জামান বলেন, বিষয়টি তদন্ত করা হবে। তদন্ত প্রতিবেদনের ওপর নির্ভর করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।