২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দুই নেত্রীর ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়


স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক দলের শীর্ষ পর্যায়ে কোন ধরনের যোগাযোগ না থাকেলেও ঈদ ও নববর্ষের শুভেচ্ছা বিনিময় হয় নিয়মিত। দুই পক্ষ থেকেই একটি প্রতিনিধি দল দুই নেত্রীর দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শুভেচ্ছা কার্ড বিনিময় করেন। কখনও কখনও তারা পরস্পরকে ইফতারসহ কোন কোন অনুষ্ঠানে দাওয়াতও করে থাকেন। শুভেচ্ছা বিনিময় কিংবা এসব দাওয়াতের সংবাদ ঘটা করে সংবাদ মাধ্যমে প্রচারও করা হয়। তবে দুই নেত্রী কখনও একে অপরের দাওয়াতে উপস্থিত থাকেন না। রাষ্ট্রীয় কোন সঙ্কটেও তাদের মধ্যে যোগযোগ হয় না। এমনকি তাদের মধ্যে সচরাচর টেলিফোনে আলাপও হয় না। কখনও কখনও টেলিফোনে কথা হলেও এ নিয়ে সম্পর্কের আরও অবনতি ঘটে। তাই রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা দুই নেত্রীর মধ্যে ঈদের শুভেচ্ছা কার্ড বিনিময়কে অর্থহীন বলেই মনে করেন।

বরাবরের মতো এবারও দেশের দুই প্রধান নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া পরস্পরকে ঈদ-উল-ফিতরের শুভেচ্ছা কার্ড পাঠিয়েছেন। সোমবার দুপুরে আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক ওয়াহিদুর রহমানের নেতৃত্বে¡ একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীর পাঠানো ঈদ শুভেচ্ছা কার্ড নিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ে যান। সেখানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার কার্ডটি গ্রহণ করেন। আর মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে কার্ড পাঠান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। বিএনপির সহ-দফতর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন ও শামীমুর রহমান শামীম আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর ধানম-ি কার্যালয়ে এ শুভেচ্ছা কার্ড পৌঁছে দেন। শুভেচ্ছা র্কার্ডটি গ্রহণ করেন আওয়ামী লীগের সহ-সম্পাদক সিকান্দার আলী। স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের সময়ও দুই নেত্রীর মধ্যে খুব বেশি যোগাযোগ ছিল না। তবে সঙ্কটকালে দুই নেত্রীর টেলিফোন সংলাপ হয়েছে একাধিকবার।