মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

ক্যাসিয়াসের বিদায়ে মন খারাপ সতীর্থদের

প্রকাশিত : ১৪ জুলাই ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইকার ক্যাসিয়াস আর রিয়াল মাদ্রিদ যেন একে অপরের পরিপূরক হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু দীর্ঘ ২৫ বছরের মায়াজাল ছিন্ন করে সদ্যই স্পেন অধিনায়ক পাড়ি জমিয়েছেন পর্তুগালের ক্লাব এফসি পোর্তোতে। প্রিয় তারকা ঘর ছেড়ে পরবাসে যাওয়ায় ব্যথায় কাঁদছেন রিয়াল সতীর্থরা। রীতিমতো শোকে বিহ্বল হয়ে পড়েছেন তারা। কিংবদন্তি এই গোলরক্ষক রিয়াল ছাড়বেন এটা ভাবতেও পারেননি রিয়াল মাদ্রিদের ফুটবলাররা। ক্যাসিয়াসকে হারিয়ে তাই বাকরুদ্ধ রোনাল্ডো, রড্রিগুয়েজরা। সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে এরই বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছেন তারা। সবাই ক্যাসিয়াসকে উদ্দেশ করে বিদায়ী বার্তা লিখেছেন। রিয়ালের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলো বলেন, আট বছর ধরে ক্যাসিয়াসের সঙ্গে সতীর্থ হিসেবে খেলতে পেরে নিজেকে সম্মানিত মনে করছি। তার কাছ থেকে অনেক কিছুই শিখেছি। আশা করছি, সব সময়ই সে ভাল থাকবে। তার চলে যাওয়াটা ভীষণ কষ্টের। ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপের গোল্ডেন বুট জয়ী কলম্বিয়ান তারকা জেমস রড্রিগুয়েজ বলেন, ক্যাসিয়াসের পাশে খেলতে পেরে আমি গর্বিত। তার নতুন ক্যারিয়ারের জন্য শুভকামনা রইল। স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড জেসে রড্রিগুয়েজ রীতিমতো হতাশ। তিনি বলেন, আমরা ক্যাসিয়াসকে মিস করতে যাচ্ছি। তার উপদেশ সব সময় আমার কাজে লেগেছে। তার কাছে আমি কৃতজ্ঞ। ক্যাসিয়াস, তোমার সৌভাগ্য কামনা করছি। আশা করছি, সব সময় ভাল থাকবে। আরেক স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ইলারমেন্ডি বলেন, ক্যাসিয়াসের পাশে খেলতে পেরে আমি গর্বিত। তার নতুন ক্যারিয়ারের জন্য শুভকামনা রইল। খুব বেশি মিস করব তাকে। ক্যাসিয়াসের স্বদেশী গোলরক্ষক ভিক্টর ভালদেস বলেন, ক্যাসিয়াস ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে অনেক রেকর্ড গড়েছে। এতে আমি মোটেও অবাক নই। সে সত্যিকার অর্থেই প্রতিভাবান। আমি শুধু এটুকুই বলতে চাই, সে কতবারই না তার দলকে বাঁচিয়েছে। শুধু রিয়ালই নয়, অন্য ক্লাবের ফুটবলাররাও শুভকামনা জানিয়েছেন ক্যাসিয়াসকে। ইতালি জাতীয় দল ও জুভেন্টাসের অধিনায়ক এবং গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি বুফন বলেন, ক্যাসিয়াস অসাধারণ গোলরক্ষক। সেরা পর্যায়ে নিজেকে ধরে রাখাটা কঠিন। কিন্তু রিয়ালের হয়ে সে অনেক ধারাবাহিক ছিল। আমরা দু’জন দু’রকম। তবে তাকে আমার চেয়েও এগিয়ে রাখছি। সাবেক বার্সিলোনা তারকা জাভি হার্নান্দেজও ক্যাসিয়াসের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে তার নতুন পথচলায় শুভকামনা জানিয়েছেন। রিয়ালের যুবদলে খেলার মধ্য দিয়ে ক্যারিয়ারের আত্মপ্রকাশ ঘটে ক্যাসিয়াসের। যুবদলে টানা নয় বছর খেলার পর ১৯৯৮ সালে যোগ দেন রিয়াল মাদ্রিদের ‘সি’ টিমে। সেখানে এক বছর খেলার পর ১৯৯৯ সালে সুযোগ পান ‘বি’ টিমে। সেখানে দুর্দান্ত ক্যারিশমা দেখিয়ে ওই বছরই জায়গা করে নেন রিয়াল মাদ্রিদের মূল দলে। সেই থেকে নিরবিচ্ছিন্ন সেবা দিয়ে চলেন সান্টিয়াগো বার্নাব্যুর দলটিকে। একাধারে ২৫ বছর খেলে চলা স্প্যানিশ অধিনায়ক কখনই ক্লাব ছাড়ার চিন্তা করেননি! মাঝে মধ্যে লোভনীয় প্রস্তাব যে আসেনি তা নয়।

প্রকাশিত : ১৪ জুলাই ২০১৫

১৪/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: