মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মাদ্রিদ ছেড়ে প্যারিসে সি আর সেভেন!

প্রকাশিত : ১৪ জুলাই ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এর আগেও একাধিকবার গুঞ্জন শোনা গেছে। রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়তে পারেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। আরও একবার এমন সংবাদ চাউর হয়েছে। গুঞ্জনের ডালপালা ছড়িয়েছে দিনকয়েক আগে রিয়াল মাদ্রিদ প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্টিনো পেরেজ প্যারিসে এক বৈঠক করলে। সেখানে নাকি সি আর সেভেনকে বিক্রি করা প্রসঙ্গে কথা বলেছেন তিনি!

স্প্যানিশ পরাশক্তি রিয়ালের প্রাণভোমরা রোনাল্ডো। ফিফা সেরা এই ফুটবলার ২০০৯ সালে ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে গ্যালাক্টিকো শিবিরে নাম লেখান। সেই থেকে দলটির সেরা তারকায় পরিণত হয়েছেন। একের পর পর এক সাফল্যে ভাসিয়েছেন সান্টিয়াগো বার্নাব্যুর দলটিকে। কিন্তু গত মৌসুমে ২০১৪-১৫ থাকতে হয়েছে শিরোপাশূন্য। যে কারণে চাপে আছেন সি আর সেভেন। তাই তো শোনা যাচ্ছে, রিয়াল ছাড়তে পারেন পর্তুগীজ মহাতারকা। নতুন ঠিকানা হতে পারে ফরাসী ক্লাব প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইন (পিএসজি)।

গত কয়েক বছরে জ¬াতান ইব্রাহিমোভিচ, থিয়াগো সিলভা, ডেভিড লুইজদের দলে ভিড়িয়ে রীতিমতো চমক দেখিয়েছে প্যারিসের ক্লাব পিএসজি। নতুন মালিক আসার পর একের পর এক বড় তারকাকে সই করিয়েছে তারা। এই তালিকায় এবার যোগ হতে পারে রোনাল্ডোর নাম। সি আর সেভেন যতই রিয়ালে প্রায় প্রতিম্যাচে গোল করুন না কেন, যতই তাকে ঘিরে দলের পরিকল্পনা তৈরি হোক না কেন, রোনাল্ডো নাকি রিয়ালে খুশি নন। এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, মেসুত ওজিল, গঞ্জালো হিগুয়াইন, ইকার ক্যাসিয়াসদের মতো ফুটবলার বিক্রি করে দেয়ার পর ক্লাবের উপর ক্ষুব্ধ রোনাল্ডো। পাশাপাশি যোগ হয়েছে গত মৌসুমে আট আটটি হ্যাটট্রিক করেও একটি শিরোপা জিততে না পারার হতাশা। স্বভাবতই প্রশ্ন উঠেছে, অন্যরা পারছেন না কেন? শুধু কেন সি আর সেভেনের উপর নির্ভরশীলতা!

এমন পরিস্থিতিতে রোনাল্ডো নাকি বার্নাব্যুতে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারছেন না। দলের অপরিহার্য তারকারা চলে যাওয়ায় অসহায় বোধ করছেন পর্তুগীজ তারকা। যে কারণে রিয়াল ছাড়ার চিন্তাভাবনা করছেন। এক স্প্যানিশ দৈনিকের মতে, সদ্যই কাতারে নাকি গোপনে প্যারিস মালিকদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন রিয়াল প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্টিনো পেরেজ। যেখানে আলোচনার মূল বিষয় ছিল রোনাল্ডোর ভবিষ্যত। মানে পর্তুগীজ তারকা বার্নাব্যুতে থাকবেন না চলে যাবেন।

এর আগেও রোনাল্ডোর জন্য প্রস্তাব দিয়েছিল পিএসজি। তবে সেটা প্রত্যাখ্যান করেছিল রিয়াল। তবে এবারের পরিস্থিতি ভিন্নতর। রোনাল্ডোর বয়স ত্রিশ পেরিয়ে একত্রিশের দিকে। তাকে হয় তো আর দু’এক বছর সেরা ফর্মে পাওয়া যাবে। তাই আগেভাগেই বেশি দামে তাকে বিক্রি করতে চায় মাদ্রিদ। অবশ্য জানা গেছে, প্রস্তাব সবে প্রাথমিক পর্যায়ে আছে। এখনও কিছুই চূড়ান্ত হয়নি। যদি চুক্তি হয়ও তাহলে সেটা ২০১৬ সালের আগে সম্ভব নয়।

ওল্ডট্রাফোর্ডে খেলেই নিজের প্রতিভার বিকাশ ঘটান রোনাল্ডো। ইংলিশ পরাশক্তি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ছয় মৌসুম কাটিয়েছেন। ক্যারিয়ারের উঠতি সময়ে ২০০৯ সালে পাড়ি জমান স্প্যানিশ পরাশক্তি রিয়াল মাদ্রিদে। সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতেও ছয় বছর অতিক্রম করেছেন। এখন ম্যানইউর বেহাল দশা। রোনাল্ডোও মাঝে মধ্যে বলে থাকেন ফিরতে চান পুরনো ক্লাবে। এসবের কারণে রেড ডেভিলসদের ভক্ত-সমর্থকরা আশায় বুক বেঁধে আছেন আবারও ম্যানইউতে ফিরবেন পর্তুগীজ সুপারস্টার। সম্প্রতি আরেকবার রোনাল্ডোর রিয়াল ছাড়ার গুঞ্জন রটায় আশাবাদী হতেই পারেন ইউনাইটেড সমর্থকরা।

গত বছর অভিনব উদ্যোগ নেন ম্যানইউর একদল অন্ধ সমর্থক। তাতে ভক্তরা ব্যানারে আহ্বান জানান, ‘ঘরে ফেরো রোনাল্ডো’। স্প্যানিশ লা লিগায় ভিয়ারিয়াল-রিয়াল মাদ্রিদ ম্যাচে অভিনব উদ্যোগ নেন ভক্তরা। এল মাডরিগাল স্টেডিয়ামে ম্যাচের সময় ভাড়া করা একটি বিমানে ‘ঘরে ফেরো রোনাল্ডো’ লেখা ব্যানার উড়ায় একদল সমর্থক। ‘ইউনাইটেড রিল’ নামে পরিচিত সমর্থকগোষ্ঠীর এই অভিনব আয়োজন করে। ব্যানারটির এক পাশে সংগঠনটির নামও লেখা ছিল। তাদের চাওয়া একটাই, রোনাল্ডো ফিরে আসবেন ওল্ডট্রাফোর্ডে।

এখন দেখার বিষয় রোনাল্ডো সত্যিই কি প্যারিস কিংবা ওল্ডট্রাফোর্ডে পাড়ি জমাবেন। না থেকে যাবেন বার্নাব্যুতেই।

প্রকাশিত : ১৪ জুলাই ২০১৫

১৪/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: