১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ৭ ফাল্গুন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 

অব্যবস্থা ও অবহেলার শিকার পটুয়াখালী বাস টার্মিনাল

প্রকাশিত : ১৪ জুলাই ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী, ১৩ জুলাই ॥ নানা অব্যবস্থাপনা, জলাবদ্ধতা আর কর্তৃপক্ষের উদাসীনতার ও অবহেলার কারণে পটুয়াখালী শহরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালটি এখন ময়লা অবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। ইজারাদার ও পৌর কর্তৃপক্ষ একে অপরকে দোষারোপ করার মধ্য দিয়েই বর্তমানে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে সাধারণ যাত্রীদের। নিয়মিত কর প্রদান করেও সেবা না পাওয়ায় ক্ষুব্ধ বাস মালিক শ্রমিক ও সাধারণ যাত্রীরা। তার চাচ্ছেন যথাযথ কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে এ ভোগান্তির অবসান ঘটবে। ২০০৩ সালে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে ১ কোটি ৬৫ লাখ টাকা ব্যয়ে পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের পাশে স্থাপন করা হয় আধুনিক মানের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল। নির্মাণের পর থেকেই পৌরসভা এটি বছর বছর ইজারা দিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বছর ঘুরতে না ঘুরতেই মুখ থুবড়ে পড়ে এ টার্মিনালের পয়নিঃষ্কাশন ব্যবস্থাসহ যাবতীয় সুযোগ সুবিধা। নামে মাত্র টয়লেট থাকলেও তা এখন পুরোপুরি ব্যবহারে অনুপযোগী। আর টয়লেটে পানি সরবরাহ ব্যবস্থা না থাকায় বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে সাধারণ যাত্রীদের।

এদিকে কিছুদিন আছে টার্মিনালের সেপটি ট্যাঙ্ক ফেটে টয়লেটের ময়লা পানিতে এখন পুরো বাস স্ট্যান্ড সয়লাব। তার উপর বাড়তি বিড়ম্বনা যোগ হয়েছে বর্ষার পানি। পানি নিষ্কাশনের কোন ব্যবস্থা না থাকায় পুরো বাসস্ট্যান্ড এখন হাঁটু সমান পানিতে ডুবে আছে। এ সব বিষয়ে পৌর মেয়র তাদের সীমাবদ্ধতার কথা স্বীকার করে জানিয়েছেন, ইজারাদার এটি রক্ষণাবেক্ষণ ও সংস্কারের কথা থাকলেও তারা তা করছেন না। আর এ বিষয়ে ইজারাদারকে একাধিকবার বললেও ইজারাদার তা মানছেন না।

প্রকাশিত : ১৪ জুলাই ২০১৫

১৪/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: