২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নীলফামারীতে শিবির ছাত্রলীগ সংঘর্ষে আহত ৫


স্টাফ রির্পোটার, নীলফামারী ॥ নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় সোমবার দুপুরে ছাত্রলীগের সঙ্গে শিবিরের নেতাকর্মীদের সংঘর্ষে উভয়পক্ষের পাঁচজন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে উপজেলা শিবিরের সভাপতি অপিয়ার রহমানকে গুরুতর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এবং ছাত্রলীগের চার নেতাকর্মীকে ডিমলা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ডিমলা উপজেলায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করায় সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে টহল জোরদার করা হয়েছে। জামায়াত-শিবিরের একটি আনন্দ মিছিল থেকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ওপর হামলাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা সৃষ্টি হয়েছে বলে ছাত্রলীগ অভিযোগ করেছে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, গত ৫ জানুয়ারী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় ভোটকেন্দ্রে হামলার মামলার আসামি হিসেবে চলতি বছরের ৪ মে রাতে ডিমলা উপজেলা জামায়াতের আমীর নাউতারা নিজপাড়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আব্দুস সাত্তারকে পুলিশ গ্রেফতার করে। আব্দুস সাত্তার দুই মাস নয়দিন পর সোমবার আদালত থেকে জামিনে মুক্ত হন।

এলাকাবাসী জানায়, জামায়েতের আমীর মুক্তি পাওয়ায় সোমবার দুপুরে ডিমলা উপজেলার নিজপাড়া মাদ্রাসা সংলগ্ন ঠুটার বাজার এলাকায় ছাত্রশিবির একটি আনন্দ মিছিল বের করে। এ সময় ওই মিছিল থেকে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক সেøাগান দিয়ে ঠুটারডাঙ্গা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ধাওয়া করে শিবিরকর্মীরা।

ডিমলা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার রায় অভিযোগ করে বলেন, গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচনী সহিংসতার মামলার আসামি উপজেলা জামায়াতের আমীর আব্দুস সাত্তার গত রবিবার (১২ জুলাই) জামিনে মুক্ত হয়ে সোমবার দুপুরে ডিমলা উপজেলা সদরের নিজপাড়া ঠুটার বাজারে আনন্দ মিছিল বের করে। এ সময় তারা ছাত্রলীগের ঠুটার বাজার শাখার নেতাকর্মীদের ধাওয়া করে। খবর পেয়ে তাদের উদ্ধারে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ছুটে গেলেও তাদের ওপরও হামলা চালায় জামায়াত-শিবির কর্মীরা। এ সময় উভয়পক্ষের ৫ জন আহত হয়। এতে ছাত্রলীগের সাইফুল ইসলাম (২৫), ফরিদুল ইসলাম (২৩), মাসুদ রানা (২৪) ও ফারুক হোসেন তরুন (২২) নামে চার চারজন নেতাকর্মী গুরুতর আহত হয়। তাদের ডিমলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে উপজেলা জামায়াতের আমীর আব্দুস সাত্তার বলেন, উচ্চ আদালত থেকে জামিন পেয়ে তিনিসহ ছয়জন গত রবিবার ইফতারের পর নীলফামারী জেলা কারাগার থেকে বের হন। সোমবার দুপুরে সেখানে কোন আনন্দ মিছিল বের করা হয়নি। প্রকৃত ঘটনা হলো, উপজেলা শিবিরের সভাপতি অপিয়ার রহমান ঠুটার বাজারের একটি সেলুনে চুল কাটছিল। এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তার ওপর হামলা চালিয়ে তাকে গুরুতর আহত করে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: