২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জাফরুল্লাহ চৌধুরীর আপীল শুনানি ২৬ জুলাই যুদ্ধাপরাধী বিচার


স্টাফ রিপোর্টার ॥ আদালত অবমাননার অভিযোগে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের দেয়া জরিমানার টাকা স্থগিতের গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরীর দায়ের করা আপীল আবেদনের শুনানি ২৬ জুলাই পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। আসামিপক্ষের সময়ের আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বে সুপ্রীমকোর্টের চার সদস্যের আপীল বিভাগের বেঞ্চ এই দিন নির্ধারণ করেছেন। বেঞ্চের অন্য সদস্যরা ছিলেন বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা, বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ও বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। সোমবার সকালে আদালতের কার্যক্রম শুরু হলে জাফরুল্লাহর আইনজীবী তৌফিক হোসেন সময় চেয়ে আবেদন করেন। ওই আবেদন গ্রহণ করে এই আদেশ দেন আদালত। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষে উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত এ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা।

গত ১০ জুন ব্রিটিশ নাগরিক ডেভিড বার্গম্যানকে ট্রাইব্যুনালের দ- ও জরিমানার রায়ের বিষয়ে উদ্বেগ জানিয়ে বিবৃতি দেয়ায়, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে আদালত অবমাননার দায়ে কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে এক ঘণ্টার দ- ভোগ করেন। একই সঙ্গে তাকে পাঁচ হাজার টাকা জারিমানা করা হয়। সাত দিনের মধ্যে উক্ত টাকা রেজিস্ট্রারের বরাবর পরিশোধ করতে বলা হয়। অনাদায়ে তাকে আরও এক মাস কারাদ- ভোগ করতে হবে। একই আদেশে আদালত অবমাননার অভিযোগ থেকে অপর ২২ জনকে সতর্ক করে ক্ষমা করে দেন ট্রাইব্যুনাল। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ আদেশ প্রদান করেন। সাজা ভোগ করার পর ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরী নিচে সাংবাদিকদের বলেন, তিনি জারিমানার টাকা দিবেন না । উচ্চ আদালতে আপীল করবেন।

চেম্বার জজে আপীল করলে ট্রাইব্যুনালের দেয়া পাঁচ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ গত ১৬ জুন স্থগিত করেন চেম্বার জজ বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর আদালত। একই সঙ্গে আপীল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠিয়ে দেয়া হয় আবেদনটি। কিন্তু আদশের কপি ট্রাইব্যুনালে না পৌঁছায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন ট্রাইব্যুনাল-২। ২১ জুন ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরীর চেম্বার জজের আদেশের কপি ট্রাইব্যুনালের রেজিস্ট্রারের কাছে জমা দেন। আদেশের কপি ট্রাইব্যুনালের রেজিস্ট্রার ট্রাইব্যুনাল-২ এ পাঠান। পরে ঐ দিনই জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহার (রি কল) করে নেন ট্রাইব্যুনাল। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের ডেপুটি রেজিস্ট্রার আফতাব উজ জামান জানান, ডাঃ জাফরুল্লাহ ২১ জুন রবিবার জরিমানা স্থগিত করে সুপ্রীমকোর্টের দেয়া আদেশ ট্রাইব্যুনালে জমা দেন। পরে ট্রাইব্যুনাল তার বিরুদ্ধে জারি করা গ্রেফতারি পরোয়ানা স্থগিত করেন।

গত ১৬ জুন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনালে দেয়া জরিমানার আদেশ স্থগিত করেছেন আপীল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি। ওই দিন ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরীর পক্ষে সংবিধানের ১০৪ ধারায় অনুযায়ী করা আপীল আবেদনের শুনানির পর ট্রাইব্যুনালের দেয়া পাঁচ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ স্থগিত করেন চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। একই সঙ্গে ৫ জুলাই এই আবেদনের ওপর শুনানির জন্য সুপ্রীমকোর্টের আপীল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠানো হয়। কিন্তু মামলাটি এতদিন কার্যতালিকায় না আসায় আবেদনের শুনানি হয়নি। সোমবার কার্যতালিকায় আসার পর ডাঃ জাফরুল্লাহ সময়ের আবেদন করার আবার শুনানি পিছিয়ে ২৬ জুলাই নির্ধারণ করা হয়েছে।

এদিকে অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারপতিদের নিয়ে ‘কটূক্তি’ করায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে আগামী ২২ জুলাই বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় তাকে ট্রাব্যুনালে স্বশরীরে হাজির হয়ে তার বিরুদ্ধে কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে না, তা জানতে চেয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। এই নিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে তৃতীয় দফায় আদালত অবমাননার অভিযোগ আনা হয়েছে। এদিকে ৬ জুলাই জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে তৃতীয় দফায় আদালত অবমাননার অভিযোগ আনার জন্য আবেদন জানায় তিন মুক্তিযোদ্ধা ও গণজাগরণ মঞ্চের একাংশ।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: