মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

কেএফসি ও পিৎজা হাটকে জরিমানা

প্রকাশিত : ১৪ জুলাই ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কেএফসি ও পিৎজা হাট বিশ্বখ্যাত খাবার প্রতিষ্ঠান। এসব খাবারের গুণগত মান নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে-এমনটি বিশ্বাসযোগ্য নয়। অথচ খাবারের দুনিয়ায় কুলীন দাবিদার এ দুটো প্রতিষ্ঠানও এখন নানা কারণে বিতর্কিত। সোমবার রাজধানীতে এ দুটো প্রতিষ্ঠানকেও জরিমানা করা হয়েছে। পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকা, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি, অস্বাস্থ্যকর উপায়ে খাদ্যপণ্য তৈরিসহ বিভিন্ন অপরাধে কেএফসি, পিৎজা হাটসহ ৫১ প্রতিষ্ঠানের মালিককে পাঁচ লাখ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ক্রেতারাও অবাক।

জানা যায়, সোমবার দুপুর পর্যন্ত রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় বাজার তদারকির অংশ হিসেবে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উদ্যোগে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করা হয়। অধিদফতরের পরিচালক মতিন-উল হক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা যায়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ইফতেখারুল আলম রিজভীর পরিচালনায় রাজধানীর ধানম-ি এলাকায় আম্বালা ইন ও পিৎজা হাটের মালিককে যথাক্রমে ৬০ হাজার ও ৫০ হাজার এবং কেএফসির মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এ দিকে ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আতিয়া সুলতানার পরিচালনায় রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় হোটেল গ্রীন এ্যান্ড রেস্টুরেন্টের মালিককে ২৫ হাজার টাকা এবং অন্য তিন প্রতিষ্ঠানের মালিককে ২৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এ ছাড়া খুলনা সদরের চার প্রতিষ্ঠানের মালিককে এক লাখ পাঁচ হাজার, যশোর সদরের সাত প্রতিষ্ঠানের মালিককে ২৮ হাজার ৫০০, রাজশাহীর তানোর উপজেলার পাঁচ প্রতিষ্ঠানের মালিককে আট হাজার, চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার দুই প্রতিষ্ঠানের মালিককে ১০ হাজার, নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার চার প্রতিষ্ঠানের মালিককে ১৫ হাজার, কুড়িগ্রাম সদরের তিন প্রতিষ্ঠানের মালিককে ১৪ হাজার, দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার পাঁচ প্রতিষ্ঠানের মালিককে ২৭ হ, সিলেট সদরের তিন প্রতিষ্ঠানের মালিককে ৫৩ হাজার, মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি উপজেলার ৯ প্রতিষ্ঠানের মালিককে ২৫ হাজার এবং মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার দুই প্রতিষ্ঠানের মালিককে সাত হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মোট ৫১ প্রতিষ্ঠানের মালিককে পাঁচ লাখ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্যাম্পলেটও বিতরণ করা হয়েছে।

অভিযানে অংশ নেন মহানগর ও জেলা পুলিশ, বাজার কর্মকর্তা, ক্যাব, মৎস্য অধিদফতর, চেম্বার অব কমার্স ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

প্রকাশিত : ১৪ জুলাই ২০১৫

১৪/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: