১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নাশকতার মামলা, আত্মসমর্পণের পর মিনু কারাগারে


স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর অবশেষে আদালতে আত্মসমর্পণ করেছেন নাশকতার ছয় মামলায় অভিযুক্ত বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও রাজশাহী মহানগরের সভাপতি মিজানুর রহমান মিনু। তবে আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁকে কারাগারে পাঠিয়ে দেয়।

সোমবার দুপুরে সাতটি মামলায় দু’টি পৃথক আদালতে আত্মসর্পণ করে জামিন আবেদন জানান তিনি। জামিন আবেদনের শুনানি শেষে বিচারক একটি মামলায় জামিন দেন এবং অপর ছয়টি মামলায় তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মিজানুর রহমান মিনুর আইনজীবী রইসুল ইসলাম জানান, মিনুর নামে নাশকতার সাতটি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে বোয়ালিয়া থানায় চারটি ও মতিহার থানায় তিনটি। বোয়ালিয়া থানার একটি মামলায় মিজানুর রহমান মিনু উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়েছিলেন। গত ৫ জানুয়ারির পর এসব মামলা দায়ের করা হয় বলে তিনি জানান।

তিনি বলেন, রাজশাহী মহানগর হাকিম আদালত-১ এ চারটি মামলায় মিনু আত্মসর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। এর মধ্যে তিনটি মামলায় জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক মোকসেদা আজগর। আর যে মামলায় তিনি উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়েছিলেন, সেটির জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন বিচারক। পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমা হামলার অভিযোগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি বোয়ালিয়া থানায় এ মামলাটি দায়ের করা হয়েছিল।

এর আগে বেলা ১২টায় রাজশাহী মহানগর হাকিম আদালত-৫ এ হাজির হয়ে তিনটি মামলার জামিন আবেদন জানানো হয়। শুনানি শেষে বিচারক জয়ন্তী রানী দাস জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আত্মসমর্পণের আগে মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হকসহ প্রায় অর্ধশত নেতাকর্মী নিয়ে আদালত চত্বরে উপস্থিত হন মিনু। এ সময় কারাগার চত্বরে মোতায়েন করা হয় বিপুলসংখ্যক পুলিশ। আদালতের আদেশের পরপরই দুপুর পৌনে একটার দিকে প্রিজন ভ্যানে করে মিনুকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: