মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

র‌্যাংকিংয়ে পোক্ত টাইগারদের অবস্থান

প্রকাশিত : ১৩ জুলাই ২০১৫, ০১:০১ পি. এম.

অনলাইন রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে জয়। টিম বাংলাদেশ আইসিসি র‌্যাংকিংয়ে নিজেদের অবস্থানকে করে সুসংহত। আরও পাকাপোক্ত হয় র‌্যাংকিংয়ের ৭ম স্থান। নিশ্চিত করে মাশরাফি বাহিনীর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে।

একারণে দোলাচালে আছে অষ্টম দল কে হবে? ওয়েস্ট ইন্ডিজ না পাকিস্তান। এনিয়ে চলছে জটিল সমীকরণ। ওডিআই র‌্যাংকিংয়ের অষ্টম ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পাকিস্তান রয়েছে নবম স্থানে।

এরআগে নিজেদের মাঠে টানা দুই সিরিজ জয়। প্রতিপক্ষ সাবেক আইসিসি চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান ও ভারত। টাইগার বাহিনীর রেটিং পয়েন্ট হয় ৯৩। আইসিসির ওডিআই র‌্যাংকিংয়ের স্থান সপ্তম। চলতি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে তা আরও পোক্ত করে সৌম্য-রিয়াদরা।

অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে জয় পায় পাকিস্তান। একধাপ এগিয়ে তারা আসে অষ্টম স্থানে। রেটিং পয়েন্ট ৮৯। ওয়েস্ট ইন্ডিজের রয়েছে ৮৮ পয়েন্ট। ক্যারিবীয়দের জায়গা এখন নবম স্থানে।

যে কারণে ৠাকিং নিয়ে এতো আলোচনা, তা হলো- ২০১৭ সালে অনুষ্ঠেয় আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। এতে স্বাগতিক দেশ হিসেবে অংশ নেবে ইংল্যান্ড। অন্যরা হবে র‌্যাংকিংয়ের থাকা প্রথম ৭টি দেশ। তাই পাকিস্তান আর ক্যারিবীয়দের পয়েন্ট ব্যবধান কম হওয়ায় সমীকরণটা কষতে হচ্ছে পাকিস্তানকেই। তাদের হাতে আছে এখন তুরুপের তাস। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ। এই ফলাফলের দিকে তাকিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজও।

মাশরাফি বাহিনী দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জয় দিয়ে সপ্তম স্থান সুসংহত করলেও শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান সিরিজের ফলাফল প্রভাব ফেলবে র‌্যাংকিংয়ে। তবে, হিসেবটা খুব সহজ। বাংলাদেশ-পাকিস্তানের রেটিং ব্যবধান মাত্র ৫ পয়েন্ট। বাংলাদেশ যদি ২-১ ব্যবধানে এ সিরিজ জেতে টাইগারদের পয়েন্ট হবে ৯৬। হেরে গেলে রেটিং পয়েন্ট সেই ৯৩।

অন্যদিকে, শ্রলীঙ্কায় সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতেছে পাকিস্তান। দলটি যদি ৫-০ ব্যবধানে সিরিজ জেতে, তবে তারাও বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথভাবে পৌঁছে যাবে ৯৪ পয়েন্টে। ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে পাকিস্তানের পয়েন্ট দাঁড়াবে ৯২, আর ৩-২ ব্যবধানে সিরিজে জয়ী হলে পাকিস্তানের পয়েন্ট হবে ৯০। এতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হটিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি নিশ্চিত করবে পাকিস্তান। তবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলতে হলে সিরিজ জয়ের কোনো বিকল্প নেই পাকিস্তানের।

চলতি বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ওডিআই র‌্যাংকিংয়ের প্রথম সাতটি স্থানে থাকা দলগুলো (ইংল্যান্ড বাদে) চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলতে পারবে। এই সময়ের মধ্যে আইসিসির নির্ধারিত সূচিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোনো সিরিজ নেই। তাই পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা সিরিজের দিকেই তাকিয়ে থাকাই একমাত্র ভরসা। যদিও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তানকে নিয়ে জিম্বাবুয়েতে একটি ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়োজনের চেষ্টা করছে র‌্যাংকিংয়ের তলায় থাকা এই তিন ক্রিকেট বোর্ড।

প্রকাশিত : ১৩ জুলাই ২০১৫, ০১:০১ পি. এম.

১৩/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: