২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ঈদ আনন্দ সবার জন্য


কয়েকদিন বাদেই মহা আনন্দের ঈদ। তাই সকলের ছোটাছুটির মাত্রা গিয়েছে বেড়ে। বিশেষ করে ইফতারি শেষ করেই পরিবার নিয়ে মার্কেটে যাওয়ার নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ ঈদের আর বেশি দিন নেই হাতে। এরই মাঝে পরিবারসহ নিজের পছন্দের পোশাক সংগ্রহ করতে হবে। মনের মতো পোশাকই ঈদের আনন্দের মাত্রা অনেক বেশি বাড়িয়ে দেয়। এজন্য রমজানের শেষ মুহূতে এসে প্রায় সকল পরিবারের মধ্যেই শপিং করার ব্যস্ততা লক্ষ্য করা যায়। শুধু ব্যস্ততা দেখা মেলে না পথে বসবাসকারী পরিবারের, এছাড়াও অসহায়-দুস্থ, গরিব ও বস্তিতে বসবাসকারীদের। কারণ তারা সারাদিনের উপার্জনে পরিবারের খাদ্য সংগ্রহে ব্যয় করে। অনেকে আবার পরিবারের প্রয়োজনীয় খাদ্য যোগাড় করতে বিড়ম্বনায় পড়ে। তাই ঈদের নতুন পোশাক ক্রয়ের সাধ্য সকলের থাকে না।

বিশেষ করে পরিবারের ছোট্ট কোমল শিশুদের জন্য একটি নতুন পোশাক ও সংগ্রহ করা তাদের কাছে স্বপ্ন হয়ে দাঁড়ায়। আর তাদের এ স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে এগিয়ে আসে দেশের বেশ কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। প্রতি বছর এসব সমাজসেবী সংগঠন পথবাসী, অসহায়-দরিদ্র, বস্তিবাসীর সন্তানদের ঈদের পোশাক পৌঁছে দেয়। এসব সংগঠনের মধ্যে অন্যতম হলো জাগো, প্রথম সূর্য, সিভন, হাসিমুখ, শিশু স্বর্গ, শিশু কানন ইত্যাদি।

সিভন : বেশ কয়েকজন যুবকের মহতী উদ্যোগে সমাজসেবী সংগঠন সিভনের পথচলা শুরু হয়। সংগঠনটি বিভিন্ন জাতীয় দিবসে অসহায়-অবহেলিত শিশুদের নিয়ে বিনোদন ও শিক্ষামূলক বিশেষ অনুষ্ঠান আয়োজন করে। আর ঈদের আনন্দ সকলের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য প্রতিবছর পথ ও বস্তি শিশুদের মধ্যে ঈদ পোশাক বিতরণ করে এই সংগঠনটি। উদ্দেশ্য প্রতিটি শিশুর মুখেই ঈদের হাসি ছড়িয়ে দেয়া। কারণ এসব শিশুর পরিবারের পক্ষে ঈদের পোশাক ক্রয় করার সামর্থ্য নেই। তাই ইচ্ছে থাকলেও পরিবারের শিশুকে ঈদের বস্ত্র দিতে পারছে না। এ জন্যই ঈদের কয়েকদিন পূর্বেই সিভনের ভলেন্টিয়ারগণ রাস্তায় অবস্থানকারী পথ ও বস্তির শিশুদের নিয়ে মার্কেটে যান এবং সামর্থ্য অনুসারে তাদের ঈদের সকল পোশাক ক্রয় করে দেন।

প্রথম সূর্য : শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষা প্রদানের কাজ করে যাচ্ছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রথম সূর্য। শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটের পাশে পরিবাগের রাস্তায় এই স্কুলের কার্যক্রম। শিশু থেকে ষষ্ঠ শ্রেণীর শিশুদের প্রতিদিন পাঠদান করা হয় এ স্কুলে। প্রথম সূর্য শিশুদের শিক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিনোদনের ব্যবস্থা করে। আর বিশেষ করে তাদের অধিকাংশ শিশুই পথ ও বস্তিবাসী, তাই ঈদের আনন্দ পরিপূর্ণ করতে প্রথম সূর্য সকল শিশুদের মাঝে ঈদের পোশাক বিতরণ করে থাকে। সিভন, প্রথম সূর্য থেকে শুরু করে দেশের অনেক সমাজসেবী সংগঠন পবিত্র রমজান মাসের শেষ দিকে রাস্তা ও বস্তিতে বসবাসকারী ছোট্ট মিশুদের ঈদের পেশাক পৌঁছে দেয়। যার মাধ্যমে ঈদের আনন্দ সকলের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে।

পোশাক : নিত্য উপহার

মডেল : সানিয়াত, বেনজির, অহনা ও জাওয়াদ