মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

আনন্দ বাড়াতে ঈদে ফার্নিচার

প্রকাশিত : ১৩ জুলাই ২০১৫
  • তরিকুল ইসলাম

ঈদ মানেই আনন্দ, ঈদ মানেই খুশি, এ বাক্যটির সঙ্গে এদেশের অধিকাংশ মানুষের বেশ পরিচয় রয়েছে। মুসলমানপ্রধান দেশ হওয়ায় প্রতিবছর দুটি ঈদ উদযাপনের সুযোগ পাওয়া যায়। যদিও ঈদ-উল ফিতরের আনন্দ তুলনামূলক বেশি হয়। এ ঈদে সবাই কম বেশি কেনাকাটায় ব্যস্ত থাকে। নতুন পণ্যসামগ্রী সংগ্রহের প্রতিযোগিতায় যেন মহাব্যস্ত হয়ে পড়ে দেশের সকলে। ঈদে পরিবারের সকল সদস্যর নতুন পোশাক দিয়েছেন। পাশাপাশি অন্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য-সামগ্রী ও ঈদের বাজারও সম্পন্ন করে। অধিকাংশ প্রয়োজন মেটানো হলেও একটা জিনিস অপূর্ণ থেকে যায়। পর্যাপ্ত অর্থের অভাবে ঘরের জন্য একটি নতুন ডাইনিং টেবিল সংগ্রহ করতে পারেননি। ঘরে উপস্থিত ডাইনিং টেবিলটি বেশ পুরনো হয়ে গেছে। বার্নিস উঠে পুরো বিধ্বস্ত রূপে ডাইনিং রুমে স্থান দখল করে আছে। তার স্ত্রী অনেক দিন নতুন টেবিলের জন্য বায়না ধরলেও এখনও তা ঘরে শোভা পায়নি। কিন্তু আর নয়। আবদুল কালাম এবার আসন্ন ঈদের আগেই তার স্ত্রীর বায়না পূরণের জন্য মনস্থির করেছে বিভিন্ন কোম্পানির ফার্নিচারও তিনি দর্শন করেছে এবং এ তথ্যও জানতে পারেন যে ঈদ উপলক্ষে বেশ কিছু কোম্পানি নির্ধারিত মূল্য হতে ছাড় প্রদান করেছে। এতে তার মনোপূত হয়নি। কারণ তিনি পছন্দের কাঠ দিয়ে নিজের ডিজাইনের ডাইনিং টেবিল তৈরি করবে। স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে ফার্নিচারের দোকানের উদ্দেশে পা বাড়ালেন। অবশেষে কণিকা ফার্নিচারে হাজির হলেন। দনিয়া, পূর্ব ধোলাইপাড়ে অবস্থিত এ দোকানে সকল ধরনের ফার্নিচারের অর্ডার গ্রহণ করেন। পছন্দের কাঠ দিয়ে দর্শনীয় ডিজাইনে নির্দিষ্ট ফার্নিচার তৈরি করার নিশ্চয়তা দিচ্ছে তারা। যা অবশ্যই বেশ মজবুত ও টেকসই হবে। কণিকা ফার্নিচার্স : বিভিন্ন ডিজাইনের সমৃদ্ধ কেটালগের মাধ্যমে পছন্দের সুযোগ রয়েছে নির্বাচিত ডিজাইনের অর্ডার দেয়া যাবে ইচ্ছে কাঠ দিয়ে। ক্রেতাদের পছন্দ ও চাহিদা অনুসারে সর্বদা ফার্নিচার তৈরি করতে সচেষ্ট থাকেন এমনটাই বলেন কণিকা ফানির্চারের অন্যতম কর্মকর্তা পঙ্কজ রায়। তিনি আরও বলেন, ৩টি ফার্নিচারের ক্ষেত্রে কাঠ ও ডিজাইন ভিন্নতায় মূল্য নির্ধারণ হয়ে থাকে। তবে সাধারণত খাট তৈরিতে পড়বে ডিজাইন ভিন্নতার সেগুন কাঠের ২৫,০০০ থেকে ৩০০,০০০ টাকা, কড়াই কাঠের খাট ২২,০০০ থেকে ২৭,০০০ টাকা এবং মেহগনি কাঠের ক্ষেত্রে ১৮,০০০ থেকে ২৪,০০০ থেকে মূল্য পড়বে। আলমারি বিভিন্ন নকশা অনুযায়ী মিলবে সেগুন কাঠের ২৪,০০০ থেকে ২৮,০০০ টাকায় এবং মেহগনিতে প্রয়োজন হবে ২০,০০০ থেকে ২৫,০০০ টাকা। ডাইনিং টেবিল তৈরিতে প্রদান করতে হবে সেগুন কাঠের ক্ষেত্রে নকশা ভিন্নতায় ৩৫,০০০ থেকে ৪৫,০০০ টাকার এবং মেহগনি কাঠের জন্য ২৯,০০০ থেকে ৩৮,০০০ টাকার মধ্যে। ড্রেসিং টেবিলে পড়বে সেগুন কাঠ দিয়ে ১২,০০০ থেকে ১৭,০০০ টাকা এবং মেহগনি কাঠের জন্য ১০,০০০ থেকে ১৫,০০০০০০ টাকায় মিলবে ড্রেসিং টেবিল। এছাড়াও কণিকা ফার্নিচার্স এ মিলবে আলমারি, শোকেস ওয়ারড্রপসহ বেশকিছু ফার্নিচার।

হাতিল : হাতিল ফার্নিচার কোম্পানি ঈদের সারপ্রাইজ হচ্ছেÑ প্রতিটি ফার্নিচারের ওপর রয়েছে পাঁচ থেকে পনেরো ভাগ পর্যন্ত মূল্য ছাড়। এছাড়াও হাতিল দিচ্ছে কিস্তিতে ক্রয়ের সুযোগ। যাতে স্থানীয় মাত্রায় ইন্টারেস্ট প্রদান করতে হবে। হাতিলের খাট পাওয়া যাবে ৫০,৩৩৬ মূল্যেরটি ৪৫,৩০২ টাকায়, ৪৪,৩০৪ মূল্যের খাট ৩৯,৮৭৪ ও ৩৪,৮৪০ টাকার পরিবর্তে ঈদ উপলক্ষে ৩১,৩৫৬ টাকায় মিলবে। সোফাসেট মিলবে ৫৪,১৮৪ টাকার সেটটি ৪৮,৭৫৬ টাকায়, ৭৩,৬৩২ টাকার সেটটি ৬৬,২৬৯ টাকায় এবং ৭৭,৫৮৪ টাকার সোফাসেটটি পাওয়া তাকে ৬৫,৯৪৬ টাকাতেই। চারটি চেয়ারসহ ডাইনিং টেবিল সংগ্রহ করা যাবে। যা পড়বে ৪২,১২০ টাকার পরিবর্তে উৎসব মূল্য ৩৬,৩৭৪ টাকাতে এবং ছয়টি চেয়ারসহ বড় আকারের ডাইনিং টেবিল মিলবে ৫০,৯৫০ টাকাতে যার প্রকৃত মূল্য ৫৬,২৬৪ টাকা। এছাড়াও রয়েছে আলমারি, ওয়ারড্রপ, ড্রেসিং টেবিল, শোকেস, টি-টেবিল যার প্রতিটিতেই রয়েছে দশ থেকে পনেরো ভাগ মূল্য ছাড়।

আক্তার ফার্নিচার্স : ঈদ উপলক্ষে আক্তার ফার্নিচার্স বিশেষ ছাড় প্রদান করছে। আনন্দ যেন দ্বিগুণ হয়ে উঠে, তাই প্রতিটি ফার্নিচারেই দশ থেকে পনেরো ভাগ মূল্য ছাড় প্রদান করেছে। খুব সহজেই সংগ্রহ করা যাবে পছন্দের ফার্নিচার। ঝই-০৪৪ মডেলের খাটটির মূল্য ৪২,১০০ টাকা। তবে এখন ক্রয় পড়বে ৩৭,০৪৮ টাকা। প্রকৃত মূল্য ১,১৮১০০ টাকা ংঠ-০২৪ মডেলের সোফাসেট। বর্তমানে ছাড় দিয়ে মিলবে ১০৩,৯২৪ টাকাতে। ডাইনিং টেবিলের মধ্যে উঞ/উঈ-০৪৪ মডেলটির প্রকৃত মূল্য ৬১,০০০। অবশ্য ছাড় প্রদানে বর্তমানে মূল্য হয়েছে ৫৪,৯০০ টাকা। এছাড়াও ২৬,৪০০ টাকা মূল্যের অফিস চেয়ার পাওয়া যাবে ২৩,৭৬০ টাকাতে। মাত্র ৩৪,২০০ টাকাতে মিলবে প্রকৃত মূল্য ৩৮,০০০ টাকার অফিস টেবিল। আক্তার ফার্নিচার্সের প্রতিটি শো-রুম হতে ঈদ উপলক্ষে এ মূল্য ছাড় উৎসব চলছে।

অটবি : অটবির ২৫,৫৩০ টাকা মূল্যের কাট বর্তমানে মিলবে ২১,৭০১ টাকাতে। ডাইনিং টেবিল ২১,৮৯৬ টাকাতেই মিলবে, যার প্রকৃত মূল্য ২৫,৭৬০ টাকা। ১১,১০০ টাকা মূল্যের বুকসেলফ্ পাওয়া যাবে ঈদ উপলক্ষে ৯,৪৬৫ টাকায়। অটবির প্রতিটি ফানিচারেই পঁচিশ ভাগ পর্যন্ত মূল্য ছাড় দিয়েছে। ফলে বেশ স্বাচ্ছন্দ্যেই ক্রেতারা পছন্দের সামগ্রী সংগ্রহ করতে পারছে। দেশের অধিকাংশ ফার্নিচার কোম্পানিগুলো মূল্য ছাড় প্রদান করছে। ফলে এ সময় ফার্নিচার ক্রয়ের পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে। যা ঈদের দিনে ঘরের আনন্দ দ্বিগুণ করতে ব্যাপক সাহায্য করবে।

মডেল : অনন্যা

কৃতজ্ঞতা : খুবসুরাত

প্রকাশিত : ১৩ জুলাই ২০১৫

১৩/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: