মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৪ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

উইম্বল্ডনে ষষ্ঠ শিরোপা ॥ তবু সন্তুষ্ট নন সেরেনা

প্রকাশিত : ১৩ জুলাই ২০১৫
  • ক্যালেন্ডার স্লামে চোখ এখন আমেরিকান তারকার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আরও একবার ‘সেরেনা সøাম’ দেখতে পেলেন টেনিস ভক্তরা। শনিবার উইম্বল্ডনের ফাইনালে স্প্যানিশ টেনিস তারকা গারবিন মুগুরুজাকে হারিয়ে শিরোপা জয়ের স্বাদ পেলেন সেরেনা উইলিয়ামস। সেই সঙ্গে টানা চার গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট জয়ের রেকর্ড গড়লেন তিনি। পূর্ণ করলেন ‘সেরেনা সøাম’। এক যুগ আগেও একবার টানা চার গ্র্যান্ডসøাম জিতেছিলেন আমেরিকান টেনিস তারকা। ২০০২ সালে তিনি ফরাসী ওপেন, উইম্বল্ডন, ইউএস ওপেন এবং ২০০৩ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে টানা চার শিরোপা জয়ের অসামান্য কীর্তি গড়েছিলেন। একযুগেরও বেশি সময় পর আবারও স্বরূপে ফিরলেন সেরেনা উইলিয়ামস। মৌসুমের তৃতীয় গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট উইম্বল্ডনে সবচেয়ে বেশি বয়সী প্রমীলা খেলোয়াড় হিসেবে ২১তম মেজর শিরোপা জেতা সেরেনা উইলিয়ামস এখনই থেমে যেতে নারাজ। এ বিষয়ে তার অভিমত হলো, ‘এই মুহূর্তে আমি যেভাবে চড়ছি তাতে নিশ্চিত উপভোগ করছি। কিন্তু আমি পেছনের দিকে ফিরে তাকাতে চাই না। আপনি যদি পেছনের দিকে তাকান এটা খুবই সহজ যে আমি নিজেকে সন্তুষ্ট মনে করবেন। কিন্তু আমি এখনই সন্তুষ্ট হতে পারব না।’

উইম্বল্ডন ফাইনালে ২০তম বাছাই মুগুরুজার মুখোমুখি হয়েছিলেন সেরেনা। প্রতিপক্ষ যেহেতু মুগুরুজা সেক্ষেত্রে স্বাভাবিকভাবেই ফেবারিট ছিলেন আমেরিকান টেনিস তারকা। টুর্নামেন্টের শীর্ষ বাছাই সেরেনা ৬-৪ ও ৬-৪ গেমে সহজেই জয় তুলে নেন। ৩৩ বছরের সেরেনা উইলিয়ামসের ক্যারিয়ারে এটি ২১তম গ্র্যান্ডসøাম শিরোপা। লন্ডনের অল ইংল্যান্ড ক্লাবের সেন্টার কোর্টে ফাইনাল শেষে যেন নিজেকে বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না তিনি। এ বিষয়ে শীর্ষ তারকার মন্তব্য, ‘আমার বিশ্বাস হচ্ছে না আরও একটি সেরেনা সøাম পূর্ণ করলাম। ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আমি চাপে ছিলাম।’ পাওয়ার টেনিসের শীর্ষ তারকা সেরেনা উইলিয়ামসের এটি ষষ্ঠ উইম্বল্ডন শিরোপা। আর এ শিরোপার স্বাদ পেলেন তিন বছর পর। তুখোড় ফর্মের সেরেনা উইলিয়ামসের সামনে এবার বিরল এক রেকর্ডের হাতছানি। আসন্ন ইউএস ওপেন জিতলে ‘ক্যালেন্ডার সøাম’ পূর্ণ হবে তার। এক পঞ্জিকাবর্ষে চার গ্র্যান্ডসøামের রেকর্ড জার্মান তারকা স্টেফিগ্রাফের। ১৯৮৮ সালে এই রেকর্ড গড়েছিলেন তিনি।

দুই যুগেরও বেশি সময় পর সেই রেকর্ডে ভাগ বসানোর সুযোগ আসছে সেরেনার। আমেরিকান টেনিস তারকা পারবেন কী সেই কীর্তিতে ভাগ বসাতে? এমন প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে ভক্ত-অনুরাগীদের মনে। তবে সেরেনা বলছেন পারবেন। এর পেছনে যুক্তিও দাঁড় করিয়েছেন তিনি। ইউএস ওপেনে ছয়বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ তারকা। শুধুই তাই নয় টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সেরেনা তার ক্যারিয়ারের প্রথম মেজর শিরোপাটাও জিতেছিলেন এখানে। ২০১২, ১৩ এবং ১৪ সালে টানা তিনবার শিরোপা জয়ের রেকর্ডটিও তার দখলে। আর এটাই তার অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করছে। এ বিষয়ে সেরেনা উইলিয়ামস বলেন, ‘নিউইয়র্কে আমি টানা তিনবার শিরোপা জিতেছি। আশা করি বছরের শেষটাও আমার বাজে কাটবে না। সেখানেও (নিউইয়র্ক) ভাল করতে চাই আমি। আমার মনে হচ্ছে যদি সেরেনা সøাম জিততে পারি তাহলে ক্যালেন্ডার সøাম জিততেও তেমন কোন সমস্যা হবে না।’

টেনিস ইতিহাসে ২৪ গ্র্যান্ডসøাম জিতে সবার উপরে অবস্থান করছেন মার্গারেট কোর্ট। ২২টিতে দুইয়ে আছেন স্টেফিগ্রাফ। আর একটি কম নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন সেরেনা উইলিয়ামস। ইউএস ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হতে পারলে ক্যালেন্ডার সøাম জয়ের পাশাপাশি স্টেফিগ্রাফকেও ছুঁয়ার রেকর্ড গড়বেন তিনি। আগামী সেপ্টেম্বরেই ৩৪ বছরে পা দেবেন সেরেনা। এখন কোর্টে তার অনুভূতিটা কেমন? এমন প্রশ্নের জবাবে আমেরিকান তারকা বলেন, ‘সর্বোপরি শারীরিকভাবে নিজেকে ফিট মনে করি আমি। কখনও কখনও মনে হয় যে ১০ এবং ১২ বছর আগে যা করেছিলাম তার চেয়েও ভাল করার সামর্থ আছে আমার।’ তবে সেরেনার বিপক্ষে কম যাননি গারবিন মুগুরুজাও। আরান্থা সাঞ্চেজ ভিকারিওর পর প্রথম স্প্যানিশ মেয়ে হিসেবে উইম্বল্ডনের ফাইনালে ওঠা মুগুরুজা তার সেরাটা দিয়েই খেলে ফেলেছেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত রানারআপ নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে তাকে।

প্রকাশিত : ১৩ জুলাই ২০১৫

১৩/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: