মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

গ্রেফতার আট আসামি জেল হাজতে ॥ এসআই সাসপেন্ড

প্রকাশিত : ১২ জুলাই ২০১৫
  • ময়মনসিংহে যাকাত ট্র্যাজেডি

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ ॥ ময়মনসিংহে যাকাত ট্র্যাজেডির ঘটনায় গ্রেফতার আট আসামির প্রত্যেককে সাতদিন করে রিমান্ড আবেদন জানিয়ে শনিবার দুপুরে আদালতে হাজির করা হলে রবিবার শুনানির দিন ধার্য করে বিচারক তাদের জেল হাজতে পাঠিয়ে দেন। ময়মনসিংহের ১ নম্বর আমলী আদালতের বিচারক আহসান হাবীব এ আদেশ দেন। যাকাতের কাপড় আনতে গিয়ে ২৭ জনের লাশ হয়ে ফেরার ঘটনায় কর্তব্যে অবহেলার অভিযোগে শহরের ২ নম্বর পুলিশ ফাঁড়ির টিএসআই সাইদুল ইসলামকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার মঈনুল হক শুক্রবার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। যাকাতদাতার বাসার সামনে শনিবারও পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়।

যাকাত ট্র্যাজেডির শিকার পরিবারগুলোতে এখনও চলছে কান্নার রোল। ঘরে ঘরে শোকস্তব্ধ পরিবারের স্বজনেরা গুমরে কেঁদে ফিরছে, নির্বাক অনেকে স্বজন দেখলেই হাউমাউ করে কাঁদছে। মর্মান্তিক এ ঘটনার শিকার শহরের পাটগুদাম বিহারী কলোনি, থানারঘাট বাস্তুহারা বস্তিসহ বিভিন্ন এলাকার যারা হতাহত হয়েছেন, তাদের পরিবারে এবারের ঈদ আনন্দ ম্লান হয়ে গেছে। ঘটনার বিচার দাবিতে শনিবার দুপুরে শহরের শহীদ ফিরোজ জাহাঙ্গীর চত্বরে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে উদীচীসহ বাম সংগঠনগুলো।

পুলিশ জানায়, হত্যামামলায় গ্রেফতার যাকাতদাতা শামীম, ছেলে হেদায়েত ও ম্যানেজার কর্মচারীসহ আটজনকে শনিবার বেলা দুটার দিকে কোতোয়ালি মডেল থানা থেকে আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মুশফিকুর রহমান জানান, আসামিদের প্রত্যেককে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন জানিয়ে আদালতে পাঠানো হয়। অজ্ঞাত আসামিদের শনাক্ত ও তাদের গ্রেফতার, অব্যবস্থাপনার কারণ উদ্ঘাটন, পুলিশ প্রশাসনকে কেন জানানো হয়নি, যাকাতদানের উদ্দেশ্য দান-খয়রাত নাকি অন্য কিছুÑএসব প্রশ্নের উত্তর বের করতেই আসামিদের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে বলে জানান পুলিশের তদন্তকারী কর্মকর্তা। ময়মনসিংহের ১ নম্বর আমলী আদালতের বিচারক আহসান হাবীব রবিবার রিমান্ডের ওপর শুনানির দিন ধার্য করে আসামিদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। শুক্রবার যাকাত দেয়ার সময় বিপুলসংখ্যক মানুষের উপস্থিতি সম্পর্কে কোন খোঁজখবর না রাখা ও কর্তব্যে অবহেলার অভিযোগে শহরের ২ নম্বর পুলিশ ফাঁড়ির টিএসআই সাইদুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। যাকাতদানের সময় প্রাণহানির ঘটনার প্রতিবাদ ও বিচার দাবিতে শনিবার দুপুরে শহরের শহীদ ফিরোজ জাহাঙ্গীর চত্বরে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে উদীচী। সংক্ষিপ্ত সমাবেশ চলাকালে বক্তারা তদন্তপূর্বক দায়ীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। এ সময় বক্তব্য রাখেন এ্যাডভোকেট এমদাদুল হক মিল্লাত, নারী নেত্রী মনিরা সুলতানা অনু ও আব্দুর রব মোশাররফ।

প্রকাশিত : ১২ জুলাই ২০১৫

১২/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: