মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বিশ্বখ্যাত অভিনেতা ওমর শরীফ আর নেই

প্রকাশিত : ১১ জুলাই ২০১৫, ০১:২৯ এ. এম.
বিশ্বখ্যাত অভিনেতা ওমর শরীফ আর নেই

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বিশ্বখ্যাত মিসরীয় অভিনেতা ওমর শরীফ আর নেই। ‘লরেন্স অব এ্যারাবিয়া’ ও ‘ডক্টর জিভাগো’র মতো সিনেমার এই অভিনেতা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শুক্রবার কায়রোর একটি হাসপাতালে মারা যান। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। ওমর শরীফের মুখপাত্র স্টিভ কেনিস তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন। এ বছরের শুরুতে ওমরের ছেলে তারেক আল-শরিফ জানিয়েছিলেন আলঝেইমার্স রোগে ভুগছিলেন তাঁর পিতা।

পঞ্চাশের দশকের শুরুর দিকে মিসরীয় সিনেমা ‘সিরা ফিল-ওয়াদি’ দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা ওমর শরীফ দ্রুতই নিজ দেশে খ্যাতির শীর্ষে উঠে যান। ১৯৫৫ সালে মিসরীয় অভিনেত্রী ফাতেন হামামাকে বিয়ে করার জন্য তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। লেবানিজ ক্যাথলিক পরিবারে জন্ম নেয়া ওমর শরীফের আগের নাম ছিল মাউকেল শালহুব। ওমর শরীফ আন্তর্জাতিক খ্যাতি লাভ করেন ডেভিড লিনের বিখ্যাত সিনেমা ‘লরেন্স অব এ্যারাবিয়া’য় অভিনয় করে। সিনেমার শেরিফ আলি চরিত্রে মরুভূমির গনগনে বালুরাশির মধ্য দিয়ে তাঁর উটে সওয়ার হওয়ার দৃশ্যটি রাতারাতি তাঁকে বিখ্যাত করে তোলে। সিনেমাটির জন্য সে বছর দুটি গোল্ডেন গ্লোব এ্যাওয়ার্ড লাভ করেন তিনি। এ ছবিটির জন্য পার্শ্বচরিত্রে সেরা অভিনেতা হিসেবে অস্কার মনোনয়ন পান তিনি।

ডেভিড লিন এর পর ১৯৬৫ সালে তাঁকে নিয়ে নির্মাণ করেন ‘ডক্টর জিভাগো’। রুশ বিপ্লবে জড়িয়ে পড়া এক চিকিৎসকের ভূমিকায় অভিনয় করে তিনি জিতে নেন তাঁর আবার গোল্ডেন গ্লোব এ্যাওয়ার্ড। ওমর শরীফকে পরবর্তীতে আরও দেখা গেছে চেঙ্গিস খান এবং চে গুয়েভারার মতো ঐতিহাসিক চরিত্রে অভিনয় করতে। ২০০৩ সালে ‘মসিয়ে ইব্রাহিম’ নামের একটি ফরাসী সিনেমায় অভিনয় করে অর্জন করেন ফ্রান্সের শীর্ষ চলচ্চিত্র পুরস্কার সিজার এ্যাওয়ার্ড। সূত্র: বিবিসি

প্রকাশিত : ১১ জুলাই ২০১৫, ০১:২৯ এ. এম.

১১/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: