২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কোকেন আটক মামলায় সংযোজিত হচ্ছে চোরাচালানের ধারা


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ সানফ্লাওয়ার অয়েল ঘোষণায় দক্ষিণ আমেরিকার বলিভিয়া থেকে আনা কোকেন আটকের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় চোরাচালান সংক্রান্ত ধারা সংযোজিত হতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে পুলিশের পক্ষ থেকে আদালতের কাছে একটি আবেদন জানানো হয়েছে। আদালতের নির্দেশনা পাওয়া গেলে মামলাটি একইসঙ্গে মাদক চোরাচালান মামলায় রূপ নেবে। এছাড়া ঘটনার সঙ্গে ভারত, বলিভিয়া ও যুক্তরাজ্যের সাত নাগরিক সংশ্লিষ্ট রয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে বেরিয়ে এসেছে। ফলে অনুসন্ধান টিমকে ওই তিন দেশে পাঠাতে আবেদনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তদন্তের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সংস্থা।

চট্টগ্রাম মহানগর পিপি এ্যাডভোকেট ফখরুদ্দিন চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, ভোজ্যতেলের ঘোষণায় কোকেন আমদানির এই মামলায় চোরাচালান সম্পর্কিত ধারাও যুক্ত করা প্রয়োজন। সে জন্য চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আদালতে আবেদন করা হয়েছে। মামলাটি দায়ের হয়েছে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯-এর ১(খ) ধারায়। এর সঙ্গে বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫(বি) ধারা সংযোজনের আবেদন জানানো হয়েছে। কারণ, এটি একটি বড় ধরনের চোরাচালানও।

মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রিমান্ডে থাকা চার আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে অনেক তথ্য মিলেছে। এর সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে ভারত, বলিভিয়া ও যুক্তরাজ্যের সাত নাগরিক। দেশীয় তদন্ত কাজ শেষের দিকে এলে অনুসন্ধান টিম প্রয়োজনে ওই তিন দেশে যাবে। সে জন্য উচ্চ পর্যায়ে আবেদনও করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার এসএম তানভীর আরাফাত জানান, আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে পর্যাপ্ত তথ্য মিলেছে। দেশীয় তদন্ত কার্যক্রম অনেকটাই গুছিয়ে আনা হয়েছে। তিনিও জানান, কোকেন আটকের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় চোরাচালানের ধারা সংযোজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সে কারণে আদালতের কাছে আবেদন করা হয়েছে। আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী সকল পদক্ষেপ নেয়া হবে।