২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভারি বর্ষণে জলাবদ্ধতা জনজীবনে দুর্ভোগ


জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ টানা চার দিনের বৃষ্টিতে বাগেরহাট, কুষ্টিয়া ও মাদারীপুরের বিভিন্ন স্থানে দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের।

বাগেরহাট ॥ টানা ৪ দিনের ভারি বর্ষণে উপকূলীয় বাগেরহাট জেলার জীবনযাত্রা বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে। বাগেরহাট, মোরেলগঞ্জ ও মংলা পৌরসভাসহ জেলার নি¤œাঞ্চলের লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। এসব স্থানে সরকারী-বেসরকারী অফিস, রাস্তা-ঘাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, স্কুল-মাদ্রাসা, বাড়ি-ঘর, বীজতলা ও ফসলের ক্ষেত জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। শহরের রাস্তায়ও জমেছে হাঁটু পানি। শত শত পরিবারের রান্না-বান্না বন্ধ হয়ে গেছে। বসতঘরে পানি উঠে ফ্রিজ-টিভিসহ দামী আসবাবপত্র নষ্ট হয়েছে অনেকের। কচুয়া, মংলা, মোরেলগঞ্জ, রামপাল, চিতলমারী ও বাগেরহাট সদর উপজেলার দুই শতাধিক পুকুর ও মাছের ঘের ভেসে গেছে। এতে অন্তত ৩০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে চাষীদের সূত্রে জানা গেছে। কমপক্ষে ৫০টি গ্রামে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। মানুষের পাশাপাশি গবাদী পশুও চরম কষ্টের মধ্যে পড়েছে। এসব এলাকায় পানীয়-জলের তীব্র সঙ্কট দেখা দিয়েছে।

স্লুইজ গেটগুলো দিয়ে ঠিকমতো পানি ওঠা-নামা না করা, সরকারী খালগুলো ভরাট ও দখল হওয়া এবং পর্যাপ্ত ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানি সরতে পারছে না। ফলে মানুষের দুর্ভোগ আরও বাড়ছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। এদিকে, বলেশ্বর, পানগুছি, চিত্রা, ভৈরব, মধুমতি নদীর ভাঙ্গন বেড়েছে। জেলার কমপক্ষে ১২টি স্থানে বেড়িবাঁধ ও সড়কে ধস ও ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে।

কুষ্টিয়া ॥ কুষ্টিয়ায় টানা দুই দিনের ভারি বর্ষণে শহরের নিম্নাঞ্চলে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। এতে জনজীবন ব্যাহত ও শহরবাসী চরম দুর্ভোগের মধ্যে পড়েন। অতি বৃষ্টি ও সুষ্ঠু পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থার আভাবে শহরের অধিকাংশ এলাকার রাস্তা-ঘাট ও ঘর-বাড়িতে পানি ঢুকে হাঁটু পানি জমে জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, শহরের কোর্টপাড়া, থানাপাড়া, হাউজিং এস্টেট, পূর্ব ও পশ্চিম মজমপুরসহ অধিকাংশ এলাকা বৃষ্টির পানিতে হাঁটু পানি জমে যায়। জলাবদ্ধতায় এসব এলাকার রাস্তাগুলো পানিতে ডুবে যায় এবং অধিকাংশ ঘর-বাড়ির আঙ্গিনায় পানি ঢুকে পড়ে।

মাদারীপুর ॥ গত তিন দিনের টানা বৃষ্টিতে মাদারীপুরের বিভিন্নস্থানে সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। এছাড়াও শহরের পুলিশ লাইন্স, জেলা রেজিস্টার অফিস সংলগ্ন, পুরাতন বাসস্ট্যান্ড, বাজারঘাটসহ আবাসিক এলাকা তলিয়ে আছে হাঁটু পানিতে। এ অবস্থায় পানিবন্দী মানুষ পোহাচ্ছে চরম দুর্ভোগ। হঠাৎ এ বৃষ্টিতে পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন মাদারীপুর পৌর শহরবাসী। শহরের মধ্যে ড্রেনের কাজ চলমান থাকায় বৃষ্টির পানি বের হতে পারছে না। ফলে শহরের বিভিন্নস্থানে তৈরি হয়েছে স্থায়ী জলাবদ্ধতা। এ অবস্থায় বৃষ্টিতে ঘরের রাইরে বের হতে না পেরে মানবেতর দিন যাপন করছেন অনেক মানুষ। অন্যদিকে খেটে খাওয়া শ্রমজীবী মানুষ পড়েছেন চরম বিপাকে।