১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দুর্নীতির আখড়া ব্রাজিলের ফুটবল ॥ রোমারিও


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ব্রাজিলের ফুটবল ঘোরতর দুর্নীতিতে নিমজ্জিত বলে মন্তব্য করেছেন দেশটি সাবেক কিংবদন্তি ফুটবলার রোমারিও। বুধবার ২০১৪ বিশ্বকাপে জার্মানির কাছে সেমিফাইনালে ব্রাজিলের ৭-১ গোলে হারের বর্ষপূর্তি ছিল। ওইদিন রোমারিও নানা প্রসঙ্গে কথা বলেন। ১৯৯৪ সালের বিশ্বকাপজয়ী তারকা রোমারিও বলেন, বিশ্বকাপে যা হয়েছে তা মেনে নেয়া কঠিন। দলের এই অবস্থার জন্য কর্মকর্তাদের খামখেয়ালি দায়ী। তারা ফুটবলের উন্নতি নয়, অর্থ লোপাটে ব্যস্ত আছে। কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে ব্রাজিল বিদায় নেয়ার কারণেও চটেছেন তিনি। এ জন্য রোমারিও ব্রাজিল ফুটবল কনফেডারেশনের অদক্ষতাকেই দায়ী করেন। ব্রাজিলের ফুটবল গৌরব নয়, তারা অর্থ আয়ের মেশিনে পরিণত হয়েছে বলে মনে করেন রোমারিও। গত বছর নিজেদের মাটিতে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে লজ্জা পাওয়ার পর কোপা আমেরিকায় প্যারাগুয়ের কাছে টাইব্রেকারে হার মেনে নিতে পারছেন না তিনি। ৪৯ বছর বয়সী সাবেক এই স্ট্রাইকার বলেন, আমি ব্রাজিলের এ লজ্জা নিয়ে বেশি কথা বলতে চাই না। ক্রমাগত মাঠে ব্রাজিলের লড়াই দেখে আমি লজ্জিত। আমাদের দেশের ফুটবলের প্রতি ক্ষেত্রে যা হচ্ছে তার জন্য পুরোটাই ফুটবল কনফেডারেশন দায়ী। কনফেডারেশনের কর্মকর্তারা এখন শুধু নিজেদের পকেটের কথাই চিন্তা করে। দেশের ফুটবলের মর্যাদা নিয়ে তাদের কোন ভাবনা নেই। আপসোসের সুরে রোমারিও বলেন, এক সময় ব্রাজিলের খেলোয়াড়দের নিয়ে দুটি বিশ্বসেরা দল বানানো যেত। কিন্তু এখন একটা একাদশ বানাতেই তারা হিমশিম খায়। প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়কে ধাক্কা দিয়ে ও বল গায়ে মেরে চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হন নেইমার। ব্রাজিল ফুটবল কনফেডারেশনের কেউ চিলিতে না থাকায় নেইমারের এত বড় শাস্তি হয়েছে বলে মনে করেন রোমারিও। নেইমার শাস্তি পাওয়ার মতো কাজ করেছন বলেও মনে করেন তিনি। কিন্তু এত বড় শাস্তি নয়। কনফেডারেশনের কেউ চিলিতে থাকলে কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে শাস্তি আরও কমানো যেত বলে মনে করেন রোমারিও। কোপা আমেরিকায় ব্রাজিল ব্যর্থ হওয়ার পর থেকে নেইমারদের খেলার ধরন ও কোচ কার্লোস দুঙ্গার কৌশল নিয়ে সমালোচনা চলছে। তবে গুরু দুঙ্গা শিষ্য মিরান্ডাকে পাশেই পাচ্ছেন। নেইমারের অনুপস্থিতিতে কোপায় ব্রাজিলের অধিনায়কত্ব করা মিরান্ডা বলেন, দুঙ্গা দারুণ কাজ করছে। কিছু কঠিন মুহূর্ত আসে। এটা স্বাভাবিক। আমরা এ পর্যন্ত যা ভাল কাজ করেছি, তা দুটো হারেই মুছে যেতে পারে না। আমরা টানা ১১ ম্যাচ জিতেছি। দুটি হারের পর আমরা বলতে পারি না সব ভুল।