১৬ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সেমিতে মারে-ফেদেরারের লড়াই


সেমিতে মারে-ফেদেরারের লড়াই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ উইম্বল্ডনের সেমিফাইনালে আজ কোর্টে নামছেন রজার ফেদেরার। প্রতিপক্ষ ব্রিটিশ টেনিস তারকা এ্যান্ডি মারে। অল ইংল্যান্ড ক্লাবে অনুষ্ঠিত কোয়ার্টার ফাইনালে বুধবার ফেদেরার ৬-৩, ৭-৫ এবং ৬-২ গেমে হারান ফ্রান্সের গিলেস সিমনকে। এর ফলে ক্যারিয়ারের ৩৭তম গ্র্যান্ডসøাম সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেন তিনি। অন্য ম্যাচে কানাডিয়ান টেনিস খেলোয়াড় ভাসেক পসপিসিলকে ৬-৪, ৭-৫, ৬-৪ গেমে হারান মারে। বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের তিন নম্বরে থাকা মারেকে ম্যাচ জিততে বেশ বেগ পেতে হয়। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচের ব্যাপ্তি ছিল দুই ঘণ্টা ১২ মিনিট। র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা নোভাক জোকোভিচও সেমির টিকেট নিশ্চিত করেছেন। গত বছরের ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন মারিন চিলিসেকে হারান ৬-৪, ৬-৪, ৬-৪ গেমে। সেমিতে তার প্রতিপক্ষ রিচার্ড গ্যাসকুয়েট। এই ফরাসী খেলোয়াড় কোয়ার্টারে দুর্দান্ত লড়াইয়ের পর স্ট্যানিসøাস ওয়ারিঙ্কাকে ৬-৪, ৪-৬, ৩-৬, ৬-৪, ১১-৯ গেমে হারিয়ে শেষ চারে ওঠেন। গত বছর লন্ডনে এটিপি ট্যুরের ফাইনালে মারেকে সরাসরি সেটে ৬-০, ৬-১ গেমে উড়িয়ে দেন ফেদেরার। তাই ইংলিশ তারকার জন্য উইম্বল্ডনের সেমির ম্যাচটি বেশ চ্যালেঞ্জিং হবে বলেই ধারণা করছেন টেনিসবোদ্ধারা। ক্যারিয়ারে একবারই উইম্বল্ডন শিরোপার স্বাদ পেয়েছেন মারে। ২০১৩ সালের ফাইনাল ম্যাচটিতে সার্বিয়ান টেনিস তারকা নোভাক জোকোভিচকে ৬-৪, ৭-৫, ৬-৪ গেমে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছিলেন তিনি। অন্যদিকে ফেদেরার সাতবার উইম্বল্ডন জয়ের স্বাদ পেয়েছেন। সর্বশেষ ২০১২ সালে অল ইংল্যান্ড ক্লাবে শিরোপা জয়ের হাসি হেসেছিলেন তিনি। এর পরের সময়টা একেবারেই বাজেভাবে কাটে তার। অনেকে তো মনে করেন ফুরিয়েই গেছেন রজার ফেদেরার। তবে জাত চ্যাম্পিয়নরা যে কখনই নুইয়ে পড়ে না তার প্রমাণ মিলল আরেকবার। ৩৩ বছর বয়সী রজার ফেদেরার এখন রেকর্ড অষ্টম উইম্বল্ডন শিরোপা জয়ের সামনে। এবার ফাইনাল জিততে পারলে আরও একটি মাইলফলক স্পর্শ করবেন ফেড এক্সপ্রেস। টেনিসের উন্মুক্ত যুগে বেশি বয়সে উইম্বল্ডন জয়ের রেকর্ড গড়বেন তিনি। তবে সে পথে তার সামনে এখন বড় বাধা মারে। ২০১৩ সালে এই উইম্বল্ডনেই প্রথম চ্যাম্পিয়ন হন স্কটিশ তারকা। ১৯৩৬ সালে ফ্রেড পেরি শেষবারের মতো ইংল্যান্ডের হয়ে উইম্বল্ডন জিতেছিলেন। এরপর মারের হাতেই মেজর এই টুর্নামেন্টের শিরোপার ছুঁয়া পায় ইংলিশরা। এবার সেই শিরোপা পুনরুদ্ধারের লক্ষ্য নিয়েই সেমির বাধা পেরুতে কোর্টে নামবেন মারে।

অন্য সেমিফাইনালে আজ নোভাক জোকোভিচ কোর্টে নামবেন রিচার্ড গ্যাসকুয়েটের বিপক্ষে। টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জোকোভিচ। এবারও শিরোপা জয়ের তালিকায় এগিয়ে রয়েছেন শীর্ষ বাছাই। তবে প্রতিপক্ষ যেহেতু গ্যাসকুয়েট সেক্ষেত্রে সতর্ক থেকেই খেলতে হবে সার্বিয়ান তারকাকে। এই উইম্বল্ডনে নিজের ভুল বুঝতে পেরে বল গার্লের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিলেন নোভাক জোকোভিচ। ঘটনাটা আসলে মঙ্গলবারের। এ্যান্ডারসনের বিপক্ষে লড়াইয়ের সময় রেগে গিয়ে এক বল গার্লকে তোয়ালে আনতে বলেছিলেন জোকার। কিন্তু সেটা যে তার করা উচিত হয়নি, তা উপলব্ধি করতে খুব বেশি সময় লাগেনি বিশ্বের এক নাম্বার তারকার। এ বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করেই জোকোভিচ বলেন, ‘আমি দুঃখিত! ওর প্রতি আমার এ হেন আচরণ করা উচিত হয়নি। হতে পারে এতে ও ভয় পেয়ে গিয়েছে। সম্ভব হলে আমি ওর কাছে গিয়ে ক্ষমা চাইব।’

টেনিসের ‘বিগ ফোর‘ খ্যাত রজার ফেদেরার, নোভাক জোকোভিচ, এ্যান্ডি মারে এবং রাফায়েল নাদাল। কিন্তু দুর্ভাগ্য স্প্যানিশ টেনিস তারকা নাদালের। বিগ ফোরের তিনজন থাকলেও শুধু নেই নাদাল। এবার তার জায়গায় বিগ ফোরের তালিকায় থেকে সেমিতে লড়াইয়ে নামছেন রিচার্ড গ্যাসকুয়েট।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: