১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাংলাদেশকে সমীহ করছেন আমলা


মোঃ মামুন রশীদ ॥ স্লো-ওভার রেটের জন্য এমনিতেই প্রথম ওয়ানডে খেলতে পারতেন না এবি ডি ভিলিয়ার্স। এর সঙ্গে আবার সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর সন্তান জন্মদানের সময় এসে গেছে। এ কারণে দক্ষিণ আফ্রিকার ওয়ানডে অধিনায়ক ও অন্যতম নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান ভিলিয়ার্স দেশে ফিরে গেছেন। তার জন্য শুভকামনা জানিয়ে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক হাশিম আমলার দাবি বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যান ভিলিয়ার্সকে দল মিস করবে। কিন্তু বাকি যেসব ব্যাটসম্যান আছে তাদের দায়িত্ব নিতে হবে জয়ের পথ তৈরি করার ক্ষেত্রে। কিন্তু টি২০ সিরিজ যত সহজ হয়েছে ওয়ানডে তত সহজ হবে না। কারণ সর্বশেষ কয়েকটা ওয়ানডে সিরিজে দারুণ খেলে জিতেছে বাংলাদেশ দল। সে কারণে প্রাপ্য সম্মান দিচ্ছেন স্বাগতিকদের। বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

উপমহাদেশে খেলাটা দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটারদের জন্য এখন অনেক সহজতর হয়ে গেছে। কারণ দলের অনেক ক্রিকেটারই ভারতের টি২০ প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) খেলেন। আর অধিনায়ক আমলা ব্যক্তিগতভাবে ব্যাট হাতে বেশ সফল উপমহাদেশে। এ বিষয়ে আমলা বলেন, ‘গত কিছু বছর ধরেই আমরা এখানে অনেক সময় এসেছি। সুতরাং আমি মনে করি সবাই উপমহাদেশে খেলার বেশ অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে। এখানে খেলে আমি বাংলাদেশের বিপক্ষে কিছু রান পেয়েছি সেটা ভাগ্যের বিষয়। আমি মনে করি আমরা ওই অভিজ্ঞতাগুলো এখানে কাজে লাগিয়ে সিরিজের ক্ষেত্রে কাজে লাগাতে পারব।’ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে নামার আগের দিন বৃষ্টির কারণে অনুশীলন না হলেও প্রস্তুতির ক্ষতি হয়নি বলে দাবি করেছেন আমলা। কারণ টি২০ সিরিজ শেষে দু’দিন ভালভাবেই সময় পেয়েছে দল অনুশীলনের। কিন্তু ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশকে হারানো সহজ হবে না বলে মনে করেন তিনি। আমলা বলেন, ‘তারা আসলেই গত কয়েক মাস ধরে অনেক ভাল করছে। আমি মনে করি তাদের ওয়ানডে রেকর্ড অনেক ভাল টি২০ রেকর্ডের তুলনায়। সুতরাং বাংলাদেশের যে সম্মানটা প্রাপ্য আমরা সবটাই দিতে যাচ্ছি তাদের। আমি এটা জানি খুব ভাল ক্রিকেট খেলেই তারা সর্বশেষ কয়েকটা সিরিজ জিতেছে। আর সে কারণেই আমি বলেছি তাদের প্রাপ্য সম্মানটা আমরা তাদের দিচ্ছি।’

নিজেদের বোলিং বিভাগে ডেল স্টেইন ও মরনে মরকেলদের মতো দুই পেসার নেই। কিন্তু নতুনদের নিয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী আমলা। এছাড়া দলের জয়ের জন্য তিনি মূলত ব্যাটসম্যানদের ওপরই নির্ভর করছেন। এ বিষয়ে আমলা বলেন, ‘বোলিং আক্রমণে আমাদের প্রচুর নতুন ছেলে আছে। ডেল এবং মরনে হয় তো নেই। কিন্তু সে জন্য রাবাদা ও মরিস কয়েকটি খেলায় সুযোগ পেয়ে নিজেদের আরেকটু ঝালিয়ে নিতে পারবে। এবিও নেই যা অন্য ব্যাটসম্যানদের দারুণ সুযোগ। উপমহাদেশে ব্যাটসম্যানদের ওপর সব সময়ই দায়িত্বটা একটু বেশি। কাজটা কঠিনও বটে। আমরা চেষ্টা করব দায়িত্ব নিয়ে খেলার। দল যেমনই হোক জয়ের পথটা তৈরি করে দিতে হয় ব্যাটসম্যানদেরই। কিন্তু ব্যাটিং স্তম্ভ ভিলিয়ার্স নেই। সিরিজেই খেলবেন না তিনি। এ বিষয়ে অমলা বলেন, ‘দলের মধ্যে কে এবি ডি ভিলিয়ার্সকে মিস করবে না? কিন্তু আমরা তাকে শুভকামনা জানাই। তার স্ত্রী সন্তান জন্ম দিতে যাচ্ছে। আমাদের দলে সবসময়ই পরিবার প্রথম প্রাধান্য পায়। তিনি নিশ্চিতভাবেই বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান। সুতরাং আমরা তাকে মিস করবই।’

এবার বাংলাদেশ সফরে প্রোটিয়া স্পিনাররা এখন পর্যন্ত দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছে। টি২০ না খেললেও দলে ফিরেছেন ফর্মের তুঙ্গে থাকা লেগস্পিনার তাহির। তবে দু’দলের মধ্যে এবার একটি স্পিন যুদ্ধ হবে কি না সে বিষয়ে আমলা বলেন, ‘আমি জানি না। এটা উইকেটের ওপর নির্ভর করবে। ওয়ানডে ও টি২০ তে ইমরান তাহির অন্যতম সেরা একজন স্পিনার। সুতরাং তাকে দলে ফিরে পাওয়াটা আমাদের জন্য দারুণ বিষয় এবং ফাঙ্গিও অনেক ভাল করছেন আমাদের জন্য। এ ছাড়া জেপি দিনে দিনে অনেক উন্নতি করেছে। এটা বলা কঠিন স্পিনের লড়াই হবে কি না এখানে। ঐতিহ্যগতভাবে দক্ষিণ আফ্রিকা সিম আক্রমণে খুব ভাল। উপমহাদেশে দীর্ঘদিন সীমিত ওভারের ক্রিকেটে আমাদের স্পিনাররা ভাল করেনি। আমাদের স্পিনারদের আগের চেয়ে ভাল খেলাটা আমাদের এগিয়ে দিচ্ছে।’

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: