২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ছাপাই ছবির প্রদর্শনী ‘এক্স অফিসিনা নস্ত্রা’


স্টাফ রিপোর্টার ॥ গুলশান এ্যাভিনিউয়ের প্রদর্শনালয় বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জ। এই গ্যালারিটির দেয়ালজুড়ে এখন শোভা পাচ্ছে বৈচিত্র্যময় বিষয়ের ছাপাই ছবি। বাংলাদেশ, ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নবীন-প্রবীণ ও খ্যাতিমান শিল্পীদের সৃজিত ছাপচিত্র ছড়াচ্ছে শিল্পের বৈভব। তিন দেশের ২৪ শিল্পীর চিত্রসম্ভারে সজ্জিত যৌথ এ প্রদর্শনীর শিরোনাম এক্স অফিসিনা নস্ত্রা। শিরোনামে ধারণকৃত লাতিন শব্দগুলোর বাংলা অর্থ দাঁড়ায় আমাদের কর্মশালা থেকে। এ প্রদর্শনীর নেপথ্যে রয়েছে সেই কর্মশালার তাৎপর্য। প্রদর্শনীতে অংশ নেয়া ২৪ চিত্রকর অংশ নিয়েছিলেন কর্মশালায়। ২০১২ সাল থেকে চলতিবছর পর্যন্ত তিন বছরের কর্মশালার ফসল হচ্ছে এ প্রদর্শনী। বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের ছাপচিত্র কারখানা সফিউদ্দীন বেঙ্গল প্রিন্ট মেকিং স্টুডিওতে চিত্রিত শিল্পীদের শিল্পকর্ম ঠাঁই পেয়েছে এই শিল্পযজ্ঞে।

প্রদর্শনীর ছাপচিত্রগুলো যেন প্রত্যেক শিল্পীর সৃজনশীল যাত্রার প্রতিচ্ছবি হয়ে ধরা দিয়েছে। শিল্পানুরাগীর নজর কেড়ে নেয় নিপুণ দক্ষতায় আঁকা অসিত মিত্রের একরঙা নান্দনিক ছবি। উজ্জ্বল রঙের আশ্রয়ে যোগেন চৌধুরীর আঁকা চিত্রকর্মের মাঝে মেলে আনন্দের আবাহন। এক জোড়া ময়ূরকে চিত্রপটে উপস্থাপন করেছেন সমরজিৎ রায় চৌধুরী। প্রজাপতির বর্ণিল ডানার ভেতর দিয়ে মানুষের মুখশ্রী ফুটিয়ে তুলেছেন রোকেয়া সুলতানা। বিভিন্ন ধর্মের প্রতীককে ব্যবহার করে চিত্রিত শিমুল সাহার ছবি যেন বলে যায় সৌহার্দ্য আর সম্প্রীতির কথা। সুখময় মজুমদারের সৃজিত তৃতীয় নয়নয্ক্তু মুখাবয়বের ছাপচিত্রটি শিল্পপিপাসুর অন্তরে ছড়িয়ে দেয় রহস্যময়তা। এভাবেই প্রতিটি ছবিতে যুক্ত হয়েছে দর্শককে ভিন্নতার স্বাদ দেয়া বহুমাত্রিক বিষয়।

ছাপাই ছবির এ শিল্পযজ্ঞে প্রদর্শিত হচ্ছে বাংলাদেশের ১৮ চিত্রশিল্পীর শিল্পকর্ম। দেশবরেণ্য শিল্পীদেরও ছাপচিত্র রয়েছে শিল্পের আয়োজনে। খ্যাতিমান শিল্পীদের মধ্যে যাদের চিত্রকর্ম রয়েছে তাঁরা হলেনÑ হাশেম খান, বীরেন সোম, মুর্তজা বশীর, কাইয়ুম চৌধুরী ও সমরজিৎ রায় চৌধুরী। এছাড়া দেশের অন্য শিল্পীরা হলেনÑ মাহমুদুল হক, আলমগীর হক, রণজিৎ দাশ, রোকেয়া সুলতানা, অসিত মিত্র, বনি আদম, হাসানুর রহমান রিয়াজ, জয়া শাহরিন হক, জুটন চন্দ্র রায়, মাহবুবুর রহমান, রোজভেল্ট বেনজামিন ডি’ রোজারিও, শিমুল সাহা ও তৈয়বা বেগম লিপি। প্রদর্শনীতে অংশ নেয়া ভারতের পাঁচ শিল্পী হলেনÑ অমিতাভ সেন গুপ্ত, ধীরাজ চৌধুরী, যোগেন চৌধুরী, সুখময় মজুমদার ও সুনীল দাশ। আমেরিকা থেকে অংশ নেয়া এক শিল্পী হলেন ক্যারেন কাংক।

বৃহস্পতিবার প্রদর্শনীর প্রাঙ্গণে কথা হয় আমিনুর রহমান নামে এক শিল্পানুরাগী। বহুমাত্রিক বিষয়ের ছাপচিত্র দেখে মুগ্ধ এই শিল্পপ্রেমী বলেন, রং ও ফর্মের ব্যবহারের ভিন্নতার কারণে একই আঙিনায় ভিন্ন ধরনের শিল্পরীতিরও দেখা মিলেছে এই প্রদর্শনীতে। তাছাড়া একসঙ্গে এতজন শিল্পীর কাজ দেখার সুযোগও সহজে ঘটে না। সব মিলিয়েই উদ্যোগটি প্রশংসনীয়। আর এ কারণেই রোজার মাঝেও ছবি দেখতে হাজির হয়েছিল গ্যালারিতে।

২০১২ সাল থেকে এ বছর ভিন্ন ভিন্ন সময়ে আধুনিক ও সময়োপযোগী মাধ্যমে ছাপচিত্রচর্চার জন্য সফিউদ্দীন বেঙ্গল প্রিন্ট মেকিং স্টুডিও ব্যবহার করেছেন শিল্পীরা। সেই প্রক্রিয়াতেই এই প্রদর্শনীর মূল ভাবনা। সব কাজই সম্প্রতি মুদ্রণ করা। গত ১৪ জুন থেকে শুরু হওয়া প্রায় মাসব্যাপী প্রদর্শনীটি শেষ হবে কাল শনিবার। বেলা ১২টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: