২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মামলা প্রত্যাহার দাবিতে কুড়িগ্রামে মানববন্ধন


স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম ॥ জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক রোবেল আলম ম-লের ওপর পুলিশী নির্যাতনের বিচার এবং হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহাারের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে কুড়িগ্রাম ব্রহ্মপুত্র নদে সড়ক ও রেলসেতু বাস্তবায়ন কমিটির ব্যানারে এ কর্মসূচী আয়োজন করা হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব মোখছেদুর রহমান মিরান, যুগ্ম- আহ্বায়ক আতাউর রহমান আতা, জাতীয় কৃষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নজির হোসেন, রাজারহাট উপজেলা কৃষক সমিতির সভাপতি নজরুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, হামিদুল প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, এটি একটি ষড়যন্ত্রমূলক মামলা। প্রকৃত ঘটনা আড়াল করে রাজারহাট থানা পুলিশ মিথ্যা মামলায় ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা রোবেল আলম ম-লকে গ্রেফতার করে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে।

রাজশাহীতে অটো চালকদের বিক্ষোভ, স্মারকলিপি

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহী নগরীতে ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকের নবায়ন ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে রাজশাহী মহানগর ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। বুধবার সকাল ছয়টা থেকে ১০টা পর্যন্ত অটেরিক্সা বন্ধ রেখে নগরীর রেলগেটে প্রতিবাদ সমাবেশ করে তারা।

সমাবেশ থেকে মাহানগর ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক রাশেদুজ্জামান রাশেদ বলেন, দ্রুত নবায়ন ফি কমানোসহ মোট নয়টি দাবি আদায়ের জন্য তারা মাঠে নেমেছেন।

দ্বিতীয় দফায়ও একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি বন্ধ

নাটোর এনএস কলেজ

সংবাদদাতা, নাটোর, ৮ জুলাই ॥ কারিগরি ত্রুটির কারণে দ্বিতীয় দফায়ও নাটোরের নবাব সিরাজ উদ-দৌলা সরকারী কলেজে (এনএস কলেজ) একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। কারিগরি ত্রুটির কারণে ওই কলেজে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির জন্য মেধা তালিকার নাম না আসায় এমন সিদ্ধান্ত নেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ। কারিগরি ত্রুটির কারণ দেখিয়ে বুধবার কলেজের নোটিস বোর্ডে ভর্তি কার্যক্রমের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

এ নিয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ভর্তি নিয়ে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে কলেজ ক্যাম্পাসে অতিরিক্তি পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। এর আগে প্রথম ধাপেও একই ঘটনা ঘটনায় ভর্তি প্রক্রিয়ায় অচলবস্থার সৃষ্টি হয় সরকারী এ কলেজটিতে।

প্রথম ধাপে ৯শ’ আসনের বিপরীতে প্রায় তিন হাজার ৮শ’ শিক্ষার্থী অনলাইনে ভর্তির জন্য আবেদন করে। কিন্তু কারিগরি ত্রুটির কারণে প্রথম ভর্তি প্রক্রিয়ার শেষ দুই দিনে মাত্র ২১২ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়। কলেজটিতে এখনও ৬১২ অর্থাৎ শতকরা ৭৬ ভাগ আসনই ফাঁকা পড়ে রয়েছে। কারিগরি ত্রুটির বিষয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষ রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করেও কোন সুফল পায়নি বলে অভিযোগ করেছেন অধ্যক্ষ আতাউর রহমান। ত্রুটি সারিয়ে ফলাফল আসামাত্রই ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করা হবে বলেও জানান তিনি।