১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রাঙ্গুনিয়ায় স্কুল কক্ষে যুবতীকে গণধর্ষণ ॥ গ্রেফতার চার


নিজস্ব সংবাদদাতা, রাঙ্গুনিয়া, ৭ জুলাই ॥ রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের একটি হাই স্কুল কক্ষে দারোয়ানসহ ৫ যুবক মিলে এক যুবতীকে ধর্ষণ করেছে। যুবতীর চিৎকারে স্থানীয় জনতা ছুটে আসে এবং চার যুবককে ধরে ফেলে। চারজনকেই গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। গত সোমবার রাত ১০টায় বেতাগী ইউনিয়নের রোটারী বেতাগী ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। ৫ জনের মধ্যে মূল হোতা একজন পলাতক রয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মঙ্গলবার সকালে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে রাঙ্গুনিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষিতা যুবতীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। জানা যায়, গত সোমবার রাতে মধ্য বেতাগীর মৃত আমিনুর রহমানের পুত্র মহিন উদ্দিন (২৮) চট্টগ্রাম শহর থেকে এক যুবতীকে জোরপূর্বক সিএনজিতে তুলে রাঙ্গুনিয়ার বেতাগীর রোটারী বেতাগী ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়ে আসে। স্কুলের দারোয়ান আমিনুর রহমানের পুত্র আশরাফ শাহের সহযোগিতায় প্রধান ফটকের দরজা খুলে সিএনজিটি স্কুল কক্ষের সামনে নিয়ে যায়। এরপর পালাক্রমে যুবতীকে ধর্ষণ করে। যুবতীর চিৎকারে সন্নিকটে মসজিদ থেকে তারাবির নামাজ ফেরত মুসল্লিরা শুনতে পেলে দারোয়ান পার্শ্ববর্তী পোমরা ইউনিয়নের ফারুক, মোঃ মান্নান, বাচা মিঞাকে আটক করে।

নিজেদের নির্দোষ দাবি করলেন চসিক মেয়রসহ সাত আসামি

হত্যা চেষ্টা মামলা

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ হত্যা প্রচেষ্টা মামলায় নিজেদের নির্দোষ দাবি করেছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন এবং আওয়ামী লীগ দলীয় এমপি নিজাম হাজারীসহ সাত আসামি। মঙ্গলবার চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ এসএম নুরুল হুদার আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের পরীক্ষার সময় তারা এ দাবি করেন। অবশ্য এর আগে আলোচিত এ মামলার সাক্ষীরাই আদালতে বলেছিলেন যে, লালদীঘি মাঠের জনসভায় কোন বিশৃঙ্খলার ঘটনা তারা প্রত্যক্ষ করেননি। বিচারক আগামী ১৪ জুলাই রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামি পক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের সময় নির্ধারণ করেছেন। মামলায় আসামি পক্ষের কৌঁসুলি এ্যাডভোকেট অনুপম চক্রবর্তী সাংবাদিকদের জানান, প্রায় ২২ বছর আগের এ মামলায় আসামিদের পরীক্ষার দিন ধার্য ছিল মঙ্গলবার। এ সময় মেয়র এবং এমপিসহ সকল আসামিই আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তারা নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন।