১৪ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ২ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সরকারী ব্যাংকগুলো কৃষিঋণ বিতরণে পিছিয়ে


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ২০১৪-১৫ অর্থবছরের ১১ মাসে সার্বিক কৃষিঋণ বিতরণ কমেছে প্রায় ৩ শতাংশ। গেল অর্থবছরের জুলাই থেকে মে এ ১১ মাসে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো মোট কৃষিঋণ বিতরণ করেছে ১৩ হাজার ৬৯৫ কোটি ৯৭ লাখ টাকা, যা লক্ষ্যমাত্রার ৮৮ শতাংশ। ২০১৩-১৪ অর্থবছরের একই সময়ে কৃষিঋণ বিতরণ হয়েছিল ১৪ হাজার ১২০ কোটি ৮৯ লাখ টাকা, যা লক্ষ্যমাত্রার ৯৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ ছিল। এ সময়ে বেসরকারী ব্যাংকের চেয়ে সরকারী খাতের ব্যাংকগুলো কৃষিঋণ বিতরণে বেশি পিছিয়ে রয়েছে। গেল অর্থবছরের ১১ মাসে সরকারী ব্যাংকগুলো কৃষিঋণ বিতরণ করেছে ৭ হাজার ৯০০ কোটি ৯৫ লাখ টাকা, যা তাদের লক্ষ্যমাত্রার ৮৫ দশমিক ৫১ শতাংশ। অন্যদিকে এ সময়ে বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকগুলো কৃষিঋণ বিতরণ করেছে ৫ হাজার ৭৯৫ কোটি ৯৭ লাখ টাকা, যা তাদের লক্ষ্যমাত্রার ৯১ দশমিক ৮৪ শতাংশ।

অন্যদিকে ২০১৩-১৪ অর্থবছরের একই সময়ে সরকারী ব্যাংকগুলো ঋণ বিতরণ করেছিল ৮ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা, যা তাদের লক্ষ্যমাত্রার ৯৮ দশমিক ১৬ শতাংশ ছিল। একই সময়ে বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকগুলোর ঋণ বিতরণের পরিমাণ ছিল ৫ হাজার ৩৩৫ কোটি ৮৫ লাখ টাকা, যা তাদের লক্ষ্যমাত্রার ৯৪ দশমিক ৫২ শতাংশ ছিল। প্রথম ১১ মাসে সরকারী ব্যাংকগুলোর মধ্যে কৃষিঋণ বিতরণে সবচেয়ে পিছিয়ে রয়েছে রূপালী ব্যাংক। ব্যাংকটি ১১ মাসে মাত্র সাড়ে ৩০ কোটি টাকার কৃষিঋণ বিতরণ করেছে, যা লক্ষ্যমাত্রার মাত্র ২০ দশমিক ৩৫ শতাংশ। এ সময়ে অগ্রণী ব্যাংকের কৃষিঋণ বিতরণ হয়েছে ৫৬০ কোটি টাকা, যা লক্ষ্যমাত্রার প্রায় ৮৫ দশমিক ১৪ শতাংশ। জনতা ব্যাংক বিতরণ করেছে ৭২৮ কোটি টাকা, যা লক্ষ্যমাত্রার ৯৭ শতাংশ। সোনালী ব্যাংক বিতরণ করেছে ৯৪২ কোটি টাকা, যা লক্ষ্যমাত্রার প্রায় ৮০ শতাংশ।