২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গ্রীসের প্রস্তাব বাতিলের প্রভাব নেই বিশ্ব বাজারে


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ গণভোটের মাধ্যমে প্রস্তাব ইস্যু বাতিল ও ইউরোজোন থেকে গ্রীসের বের হয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় বিশ্বব্যাপী পুঁজিবাজারে বড় ধরনের পতন হবে বলে ধারণা করেছিলেন বিশ্লেষকরা। কিন্তু বাজারে তাদের সেই আশঙ্কার প্রতিফলন দেখা যায়নি। সোমবার আমেরিকা, ইউরোপ ও এশিয়া অঞ্চলের শীর্ষ বাজারগুলোতে সূচকের পতন হলেও তার মাত্রা ছিল স্বাভাবিক। অপরদিকে বিশ্বের দ্বিতীয় অর্থনৈতিক দেশ চীনের শেয়ারবাজারে সূচকের বড় ধরনের উল্লম্ফন হয়েছে।

সোমবারের লেনদেন শেষে আমেরিকার প্রধান সূচকগুলোর পতন হয়েছে প্রায় ০.৩ শতাংশ। লন্ডন স্টক এক্সচেঞ্জের এফটিএসই ১০০ সূচকের পতন হয়েছে ০.৭৬ শতাংশ। ফ্রান্স স্টক এক্সচেঞ্জের সিএসি ৪০ সূচকের ২ শতাংশ ও জার্মানির ডেক্সের পতন হয়েছে ১.৫ শতাংশ।

অন্যদিকে ইউরো মুদ্রার দর বেড়েছে। ১ ডলারের বিপরীতে ইউরোর দর গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১.১০৪৫ তে। অবশ্য পাউন্ডের বিপরীতে ইউরোর দর কমেছে ০.৭ শতাংশ। অপরদিকে জাপানের নিক্কি সূচকের ১.২৫ শতাংশ বৃদ্ধি দিয়ে শুরু হয়েছে মঙ্গলবারের লেনদেন।

বাজারে বড় ধরনের পতন না হওয়ার বিষয়ে সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠানের প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকর্তা নেইল উইলিয়ামস বলেন, গ্রীসের ইউরোজোন থেকে বের হয়ে যাওয়ার বিষয়টি এখনও পুরো নিশ্চিত নয়। অপরদিকে গ্রীস হয়তো এমন কোন উপায় খুঁজে বের করবে যার মাধ্যমে সংকট থেকে বের হয়ে আসবে দেশটি।

এদিকে বন্ড মার্কেটেও গ্রীসের গণভোটের খুবই সামান্য প্রভাব পড়েছে। জার্মান বন্ডের সুদের হারের সামান্য পতন হয়েছে। অপরদিকে বেড়েছে ইতালি, স্পেন ও পর্তুগীজ সরকারের বন্ডের হার বেড়েছে। গত সোমবার থেকে গ্রীসের বন্ডের লেনদেন বন্ধ রয়েছে। তবে বাজার পূর্বাভাসে ধারণা করা হচ্ছে দুই বছর মেয়াদি দেশটির বন্ডে ৪৯.৭৭ শতাংশ ও ১০ বছর মেয়াদি বন্ডে ১৭.৪ শতাংশ ইয়েল্ড হবে।

অবশ্য বাজারে ব্যাংকের শেয়ারের বড় ধরনের পতন হয়েছে। বার্কলেসের শেয়ারের পতন হয়েছে ১.৬ শতাংশ।