মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

আবারও পতনের বৃত্তে আটকা পুঁজিবাজার

প্রকাশিত : ৭ জুলাই ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ আবারও পতনের বৃত্তে আটকা পড়ছে দেশের পুঁজিবাজার। গত সপ্তাহে পুুঁজিবাজারে সূচকের ইতিবাচক প্রবণতা থাকার পরে রবিবারের মতো দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জে সোমবারও মূল্য সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। লেনদেনের পরিমাণও কমে গেছে। এদিন ডিএসইতে প্রায় ৫২ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়েছে। পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে বিনিয়োগকারীদের মুনাফা তোলার প্রবণতার কারণেই এই টানা মূল্য সংশোধন ঘটছে বলে বাজার বিশ্লেষকরা মনে করছেন। তাদের মতে শেয়ার বিক্রির চাপ কিছুটা কমে গেলে বাজার আবারও উর্ধমুখী প্রবণতায় ফিরে আসবে।

ডিএসইর বাজার পর্যালোচনায় অনুযায়ী, সোমবার ডিএসইতে ৪২৩ কোটি ৩১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের চেয়ে ৪৪ কোটি ৯১ লাখ টাকা বা ১০ শতাংশ কম লেনদেন। আগের দিন এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ৪৬৮ কোটি ২২ লাখ টাকার শেয়ার।

এদিন ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় ৩২১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৬টির, কমেছে ১৬৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির শেয়ার দর।

ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ৯ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৫২৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরিয়াহ সূচক দশমিক ৫৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ১১০ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৭৬৪ পয়েন্টে।

খাতভিত্তিক বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, সোমবারেও ডিএসইতে লেনদেনের সেরা স্থান দখল করেছে ওষুধ এবং রসায়ন খাতটি। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৯৪ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের প্রায় ২৩ ভাগ। দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল প্রকৌশল খাতটি। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৭২ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১৭ দশমিক ৩৯ ভাগ। তৃতীয় অবস্থানে ছিল জ্বালানি এবং শক্তি খাতের কোম্পানিগুলো। খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৪৬ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১১ দশমিক ২৩ ভাগ।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হচ্ছে- ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ, এসিআই, অলিম্পিক এক্সেসরিজ লিমিটেড, এসিআই ফরমুলেশন, স্কয়ার ফার্মা, ইফাদ অটোস, গ্রামীণফোন, বেক্সিমকো, খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ ও লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট।

দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : সোনালী আঁশ, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, মুন্নু সিরামিক, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স, ইস্টার্ন কেবলস, ইউনাইটেড এয়ার, ৭ম আইসিবি ও এসিআই।

দর হারানো সেরা কোম্পানিগুলো হলো : প্রগতি লাইফ, আরএন স্পিনিং, আইসিবি ১ম এনআরবি, স্টাইল ক্রাফট, ইস্টার্ন লুব্রিক্যান্টস, পদ্মা লাইফ, ফনিক্স ইন্স্যুরেন্স, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, প্রাইম আইসিবি ১ম মিউচুয়াল ফান্ড ও ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড।

সোমবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৩৫ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ২৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৯৩৫ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯১টির, কমেছে ১২০টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : অলিম্পিক এক্সেসরিজ, ইউনাইটেড এয়ার, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, বেক্সিমকো, স্কয়ার ফার্মা, মবিল যমুনা বাংলাদেশ, বেক্সিমকো ফার্মা, তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ ও বিএসআরএম লিমিটেড।

প্রকাশিত : ৭ জুলাই ২০১৫

০৭/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: