২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বরিশালের ৪৩ সংখ্যালঘু পরিবারকে উৎখাতের হুমকি


স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ কতিপয় চিহ্নিত সন্ত্রাসীর দাবিকৃত চাঁদার টাকা না দেয়ায় দীর্ঘদিন থেকে খাস জমিতে বন্দোবস্ত নিয়ে বসবাস করা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ৪৩টি পরিবারকে ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদসহ বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার সকালে স্থানীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ওইসব পরিবারের সদস্যরা এ অভিযোগ করেন। ঘটনাটি জেলার গৌরনদী উপজেলার নলচিড়া ইউনিয়নের চররমজানপুর গ্রামের। একটি বিশেষ মহলের প্রত্যক্ষ মদদে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের অব্যাহত হুমকির মুখে এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন ৪৩টি সংখ্যালঘু পরিবারের কয়েকশ বাসিন্দারা। ওই সম্প্রদায়ের নেতা কালিপদ ম-ল লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, ১৯৮৬ সালে সম্পূর্ণ বৈধভাবে খাস জমি বন্দোবস্ত নিয়ে তারা ৪৩ সংখ্যালঘু পরিবার ওই মৌজার ১১ একর ৫১ শতক জমিতে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছেন। অতি সম্প্রতি তাদের সহায় সম্পত্তির ওপর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে স্থানীয় প্রভাবশালী দেলোয়ার কবিরাজ, শাহে আলম হাওলাদার, সেকান্দার হাওলাদার, আলাউদ্দিন কবিরাজ ও মুজিবুর রহমানসহ তাদের সহযোগী সন্ত্রাসীদের। অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, একটি বিশেষ মহল ওইসব সন্ত্রাসীর পক্ষালম্বন করে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকজনদের কাছে মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবি করে। তাদের দাবিকৃত চাঁদার টাকা না দেয়ায় ওই ৪৩টি সংখ্যালঘু পরিবারকে দেশ থেকে উৎখাতের জন্য নানা ধরনের ভয়ভীতিসহ প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়।

কালিপদ ম-ল তার লিখিত বক্তব্যে আরও উল্লেখ করেন, সন্ত্রাসীরা অব্যাহত হুমকির পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দফতরে একের পর এক মিথ্যা অভিযোগ দাখিল করে হয়রানি করে আসছে। সংবাদ সম্মেলনে ৪৩ সংখ্যালঘু পরিবারের শতাধিক পুরুষ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।